মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০২৪, ১ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সারা পৃথিবী থেকে হজ পালনে এসেছেন ১৫ লাখ মুসল্লি

চলতি সপ্তাহের শেষের দিকে শুরু হতে যাচ্ছে মুসলিমদের সর্ববৃহৎ জমায়েত হজ। সৌদি কর্মকর্তারা বলছেন,ইতোমধ্যে ১৫ লাখ বিদেশী তীর্থযাত্রী সারা বিশ্ব থেকে এসেছেন পবিত্র মক্কা নগরীতে। বুধবার (১২ জুন) এক প্রতিবেদনে এবিসি নিউজ এ তথ্য জানায়।

প্রতিবেদনে বলা হয়, সৌদি কর্তৃপক্ষ আশা করছেন আগামী শুক্রবার আনুষ্ঠানিকভাবে হজ শুরু হলে তীর্থযাত্রাদের সাথে যোগ দিবেন আরও অনেক মুসল্লি।

সৌদি কর্মকর্তারা বলেছেন যে এই বছর তীর্থযাত্রীর সংখ্যা ২০২৩ সালের ১৮ লাখ মুসল্লির রেকর্ড ছাড়িয়ে যাবে। এর আগে ২০১৯ সালে, হজ পালনে এসেছিলেন ২৪ লাখের বেশি তীর্থযাত্রা।

ফিলিস্তিনি আওকাফ ও ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মতে, এই মাসের শুরুর দিকে অধিকৃত পশ্চিম তীর থেকে ৪ হাজার ২শ’ ফিলিস্তিনি তীর্থযাত্রীদের আসার কথা ছিল মক্কায়। তবে অনাকাঙ্ক্ষিত ইসরায়েল ও হামাসের মধ্যে ৮ মাসের যুদ্ধের কারণে গাজা উপত্যকার ফিলিস্তিনিরা এ বছর হজে সৌদি আরবে যেতে পারেনি।

স্থানীয় সময় মঙ্গলবার দিনের বেলা তাপমাত্রা ৪২ ডিগ্রি সেলসিয়াসে পৌঁছায়। এ সময় অনেক তীর্থযাত্রীকে ছাতা বহন করতে দেখা গেছে।

এ বছর হজ করতে আসা মরক্কোর নারী রাবেয়া আল-রাঘি বলেন, ‘স্বামী ও সন্তান নিয়ে হজ করতে এসেছি। আমি যখন আল-মসজিদ আল-হারামে পৌঁছেছিলাম এবং কাবা দেখেছিলাম তখন এক অদ্ভুত স্বস্তি পেয়েছিলাম। আমি খুব খুশি’।

 

কালের চিঠি / আলিফ

Tag :
Popular Post

বেরোবিতে কোঠা ইস্যুতে আন্দোলনকারীদের ওপর ছাত্রলীগের হামলা

সারা পৃথিবী থেকে হজ পালনে এসেছেন ১৫ লাখ মুসল্লি

Update Time : ০৮:২৯:৩৭ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১২ জুন ২০২৪

চলতি সপ্তাহের শেষের দিকে শুরু হতে যাচ্ছে মুসলিমদের সর্ববৃহৎ জমায়েত হজ। সৌদি কর্মকর্তারা বলছেন,ইতোমধ্যে ১৫ লাখ বিদেশী তীর্থযাত্রী সারা বিশ্ব থেকে এসেছেন পবিত্র মক্কা নগরীতে। বুধবার (১২ জুন) এক প্রতিবেদনে এবিসি নিউজ এ তথ্য জানায়।

প্রতিবেদনে বলা হয়, সৌদি কর্তৃপক্ষ আশা করছেন আগামী শুক্রবার আনুষ্ঠানিকভাবে হজ শুরু হলে তীর্থযাত্রাদের সাথে যোগ দিবেন আরও অনেক মুসল্লি।

সৌদি কর্মকর্তারা বলেছেন যে এই বছর তীর্থযাত্রীর সংখ্যা ২০২৩ সালের ১৮ লাখ মুসল্লির রেকর্ড ছাড়িয়ে যাবে। এর আগে ২০১৯ সালে, হজ পালনে এসেছিলেন ২৪ লাখের বেশি তীর্থযাত্রা।

ফিলিস্তিনি আওকাফ ও ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মতে, এই মাসের শুরুর দিকে অধিকৃত পশ্চিম তীর থেকে ৪ হাজার ২শ’ ফিলিস্তিনি তীর্থযাত্রীদের আসার কথা ছিল মক্কায়। তবে অনাকাঙ্ক্ষিত ইসরায়েল ও হামাসের মধ্যে ৮ মাসের যুদ্ধের কারণে গাজা উপত্যকার ফিলিস্তিনিরা এ বছর হজে সৌদি আরবে যেতে পারেনি।

স্থানীয় সময় মঙ্গলবার দিনের বেলা তাপমাত্রা ৪২ ডিগ্রি সেলসিয়াসে পৌঁছায়। এ সময় অনেক তীর্থযাত্রীকে ছাতা বহন করতে দেখা গেছে।

এ বছর হজ করতে আসা মরক্কোর নারী রাবেয়া আল-রাঘি বলেন, ‘স্বামী ও সন্তান নিয়ে হজ করতে এসেছি। আমি যখন আল-মসজিদ আল-হারামে পৌঁছেছিলাম এবং কাবা দেখেছিলাম তখন এক অদ্ভুত স্বস্তি পেয়েছিলাম। আমি খুব খুশি’।

 

কালের চিঠি / আলিফ