সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪, ৩ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

২ লাখ ৬৫ হাজার কোটি টাকার উন্নয়ন বাজেট অনুমোদন

আগামী অর্থবছরের জন্য ২ লাখ ৬৫ হাজার কোটি টাকার উন্নয়ন বাজেট অনুমোদন দেয়া হয়েছে। প্রকল্পের সংখ্যা ১ হাজার ৩৩৭টি।

বৃহস্পতিবার (১৬ মে) পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ে জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের (এনইসি) সভায় এই উন্নয়ন বাজেট অনুমোদন দেয়া হয়। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়।

তাতে স্পষ্ট হয়, দেশে চলমান অর্থনৈতিক চাপের কারণে বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচির (এডিপি) আকার বাড়াচ্ছে না সরকার। চলতি অর্থবছরের তুলনায় আসন্ন অর্থবছরের আকার বেড়েছে মাত্র দুই হাজার কোটি টাকা।

সভা শেষে সংবাদ সম্মেলনে পরিকল্পনামন্ত্রী মেজর জেনারেল (অব.) আব্দুস সালাম ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী শহীদুজ্জামান সরকার বিস্তারিত তুলে ধরেন।

তাতে জানানো হয়, মোট বরাদ্দের বৈদেশিক ঋণ বা অনুদানের লক্ষ্যমাত্রা ১ লাখ কোটি টাকা। সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দেয়া হয়েছে যোগাযোগ ও বিদ্যুৎ খাতে। যোগাযোগ খাতে বরাদ্দের প্রস্তাব ৭০ হাজার ৬৮৭ কোটি টাকা, যা মোট এডিপির ২৮ ভাগ। আর বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাতের জন্য ৪০ হাজার ৭৫১ কোটি টাকা রাখার প্রস্তাব দেয়া হয়েছে।

আগামীতে উপজেলা নয়, জেলাভিত্তিক প্রকল্প প্রণয়নে গুরুত্ব দেয়া হবে বলে জানান পরিকল্পনামন্ত্রী মেজর জেনারেল (অব.) আব্দুস সালাম।

সংবাদ সম্মেলনে আরও জানানো হয়, চলতি অর্থবছরে ৩৫৬টি প্রকল্প শেষ হবে। যা এ যাবতকালের সর্বোচ্চ। বিদেশে প্রশিক্ষণপ্রাপ্তদের সংশ্লিষ্ট প্রকল্পে নিয়োগের অনুশাসন দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেছেন, কোনো চিকিৎসক প্রকল্প পরিচালক হলে, তাকে অবশ্যই প্রশিক্ষণ নিতে হবে।

Tag :

২ লাখ ৬৫ হাজার কোটি টাকার উন্নয়ন বাজেট অনুমোদন

Update Time : ১০:৪৪:২০ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৬ মে ২০২৪

আগামী অর্থবছরের জন্য ২ লাখ ৬৫ হাজার কোটি টাকার উন্নয়ন বাজেট অনুমোদন দেয়া হয়েছে। প্রকল্পের সংখ্যা ১ হাজার ৩৩৭টি।

বৃহস্পতিবার (১৬ মে) পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ে জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের (এনইসি) সভায় এই উন্নয়ন বাজেট অনুমোদন দেয়া হয়। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়।

তাতে স্পষ্ট হয়, দেশে চলমান অর্থনৈতিক চাপের কারণে বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচির (এডিপি) আকার বাড়াচ্ছে না সরকার। চলতি অর্থবছরের তুলনায় আসন্ন অর্থবছরের আকার বেড়েছে মাত্র দুই হাজার কোটি টাকা।

সভা শেষে সংবাদ সম্মেলনে পরিকল্পনামন্ত্রী মেজর জেনারেল (অব.) আব্দুস সালাম ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী শহীদুজ্জামান সরকার বিস্তারিত তুলে ধরেন।

তাতে জানানো হয়, মোট বরাদ্দের বৈদেশিক ঋণ বা অনুদানের লক্ষ্যমাত্রা ১ লাখ কোটি টাকা। সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দেয়া হয়েছে যোগাযোগ ও বিদ্যুৎ খাতে। যোগাযোগ খাতে বরাদ্দের প্রস্তাব ৭০ হাজার ৬৮৭ কোটি টাকা, যা মোট এডিপির ২৮ ভাগ। আর বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাতের জন্য ৪০ হাজার ৭৫১ কোটি টাকা রাখার প্রস্তাব দেয়া হয়েছে।

আগামীতে উপজেলা নয়, জেলাভিত্তিক প্রকল্প প্রণয়নে গুরুত্ব দেয়া হবে বলে জানান পরিকল্পনামন্ত্রী মেজর জেনারেল (অব.) আব্দুস সালাম।

সংবাদ সম্মেলনে আরও জানানো হয়, চলতি অর্থবছরে ৩৫৬টি প্রকল্প শেষ হবে। যা এ যাবতকালের সর্বোচ্চ। বিদেশে প্রশিক্ষণপ্রাপ্তদের সংশ্লিষ্ট প্রকল্পে নিয়োগের অনুশাসন দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেছেন, কোনো চিকিৎসক প্রকল্প পরিচালক হলে, তাকে অবশ্যই প্রশিক্ষণ নিতে হবে।