সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সাবেক ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামানের অবৈধ সম্পদের অনুসন্ধান চেয়ে হাইকোর্টে রিট

সাবেক ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরীর অবৈধ সম্পদের অনুসন্ধান চেয়ে রিট হয়েছে হাইকোর্টে। আজ বৃহস্পতিবার (৯ মে) সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী মো. সালাউদ্দিন জনস্বার্থে এ রিট করেন।

দুর্নীতি দমন কমিশনসহ সংশ্লিষ্টদের বিবাদী করা হয়েছে রিটে। সম্প্রতি, ‘সাবেক ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরীর সাম্রাজ্য যুক্তরাজ্যে’- শিরোনামে জাতীয় দৈনিকে প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। প্রতিবেদনটি সংযুক্ত করে রিটটি দায়ের করা হয়।

প্রতিবেদনের প্রথমাংশে বলা হয়– উত্তর-পশ্চিম লন্ডনের একটি বাড়ি, যার দাম ১৮০ কোটি টাকারও বেশি। বাড়িটি বাংলাদেশের সাবেক ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরীর মালিকানাধীন। অথচ বাংলাদেশের আইন অনুযায়ী দেশটির কোনো নাগরিক, বাসিন্দা ও সরকারি কর্মচারী বছরে ১৩ লাখ ১৭ হাজার টাকার বেশি অর্থ দেশের বাইরে নিতে পারেন না।

সাইফুজ্জামান চৌধুরী গত জানুয়ারি পর্যন্ত পাঁচ বছর ভূমিমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। এর আগে, সাইফুজ্জামান চৌধুরীর অবৈধ সম্পদের অনুসন্ধান চেয়ে আবেদন করেছিলেন এই আইনজীবী। দুদক কোনো পদক্ষেপ গ্রহণ না করায় এবার রিট করা হলো।

 

কালের চিঠি / আলিফ

Tag :

শ্রেণিকক্ষে যৌন হয়রানির অভিযোগ, ২ শিক্ষককে বরখাস্তের দাবিতে বিদ্যালয়ে তালা

সাবেক ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামানের অবৈধ সম্পদের অনুসন্ধান চেয়ে হাইকোর্টে রিট

Update Time : ০৭:০১:৫৬ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৯ মে ২০২৪

সাবেক ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরীর অবৈধ সম্পদের অনুসন্ধান চেয়ে রিট হয়েছে হাইকোর্টে। আজ বৃহস্পতিবার (৯ মে) সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী মো. সালাউদ্দিন জনস্বার্থে এ রিট করেন।

দুর্নীতি দমন কমিশনসহ সংশ্লিষ্টদের বিবাদী করা হয়েছে রিটে। সম্প্রতি, ‘সাবেক ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরীর সাম্রাজ্য যুক্তরাজ্যে’- শিরোনামে জাতীয় দৈনিকে প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। প্রতিবেদনটি সংযুক্ত করে রিটটি দায়ের করা হয়।

প্রতিবেদনের প্রথমাংশে বলা হয়– উত্তর-পশ্চিম লন্ডনের একটি বাড়ি, যার দাম ১৮০ কোটি টাকারও বেশি। বাড়িটি বাংলাদেশের সাবেক ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরীর মালিকানাধীন। অথচ বাংলাদেশের আইন অনুযায়ী দেশটির কোনো নাগরিক, বাসিন্দা ও সরকারি কর্মচারী বছরে ১৩ লাখ ১৭ হাজার টাকার বেশি অর্থ দেশের বাইরে নিতে পারেন না।

সাইফুজ্জামান চৌধুরী গত জানুয়ারি পর্যন্ত পাঁচ বছর ভূমিমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। এর আগে, সাইফুজ্জামান চৌধুরীর অবৈধ সম্পদের অনুসন্ধান চেয়ে আবেদন করেছিলেন এই আইনজীবী। দুদক কোনো পদক্ষেপ গ্রহণ না করায় এবার রিট করা হলো।

 

কালের চিঠি / আলিফ