শনিবার, ২৫ মে ২০২৪, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

রাশিয়াকে পরমাণু অস্ত্র ব্যবহারের বিষয়ে সতর্ক করল জার্মানি

 

কৌশলগত পারমাণবিক অস্ত্র ব্যবহারে রাশিয়ার মহড়ার ঘোষণার পর দেশটিকে সতর্ক করেছেন জার্মান চ্যান্সেলর ওলাফ শোলজ। সোমবার লাটভিয়ার রাজধানী রিগায় একটি প্রেস ব্রিফিংয়ে শোলজ এ কথা বলেন।

আনাদোলু জানিয়েছে, এ সময় তিনটি বাল্টিক রাষ্ট্র তথা লিথুয়ানিয়া, লাটভিয়া এবং এস্তোনিয়ার প্রধানমন্ত্রীরা উপস্থিত ছিলেন। ইউক্রেন যুদ্ধে পারমাণবিক অস্ত্র মোতায়েনের বিরুদ্ধে মস্কোকে সতর্ক করেন শোলজ।

তিনি বলেন, এটি সর্বদা জোর দিয়ে বলা গুরুত্বপূর্ণ যে, এই যুদ্ধে পারমাণবিক অস্ত্র ব্যবহার করা উচিত নয়।

জার্মান নেতা জানান, সুইজারল্যান্ডে একটি শান্তি সম্মেলন আয়োজনের কাজ চলছে, যা অবশ্যই রাশিয়ার কাছে একটি স্পষ্ট বার্তা হবে।

জার্মানির চ্যান্সেলর হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণের পর সোমবার প্রথম সরকারি সফরে লাটভিয়ায় পৌঁছেন তিনি। তিনটি বাল্টিক রাষ্ট্রই সফর করবেন শোলজ। তিনটি দেশই আবার সামরিক জোট ন্যাটোর অংশীদার।

জার্মান চ্যান্সেলর বলেন, ইউক্রেনের বিরুদ্ধে রাশিয়ার আগ্রাসন একটি ভুল সিদ্ধান্ত ছিল এবং এটি ইউরোপকে বিভক্ত করে ন্যাটোকে দুর্বল করার পরিবর্তে তাদের ঐক্যকে শক্তিশালী করেছে।

এর আগে রাশিয়া ঘোষণা করেছে যে, তারা কৌশলগত পারমাণবিক অস্ত্রের ব্যবহার বিষয়ে মহড়া পরিচালনা করবে। অবশ্য শীর্ষ ইউরোপীয় নেতারা ইউক্রেনের প্রতি শক্তিশালী সামরিক সমর্থন প্রকাশের পরই তার প্রতিক্রিয়ায় এমন ঘোষণা দেয় মস্কো।

ক্রেমলিনের মতে, প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন ইউক্রেনে সৈন্য পাঠানোর বিষয়ে পশ্চিমা ও ন্যাটো সদস্য দেশগুলোর বক্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় সামরিক মহড়ার নির্দেশ দিয়েছেন।

এর আগে শোলজ বাল্টিক সাগর অঞ্চলে ন্যাটো অংশীদারদের আশ্বাস দিয়েছিলেন যে, জার্মানি নির্ভরযোগ্য সামরিক সহায়তা প্রদান করবে।

কালের চিঠি / আশিকুর।

Tag :

রাশিয়াকে পরমাণু অস্ত্র ব্যবহারের বিষয়ে সতর্ক করল জার্মানি

Update Time : ১০:১৮:৪৬ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ৭ মে ২০২৪

 

কৌশলগত পারমাণবিক অস্ত্র ব্যবহারে রাশিয়ার মহড়ার ঘোষণার পর দেশটিকে সতর্ক করেছেন জার্মান চ্যান্সেলর ওলাফ শোলজ। সোমবার লাটভিয়ার রাজধানী রিগায় একটি প্রেস ব্রিফিংয়ে শোলজ এ কথা বলেন।

আনাদোলু জানিয়েছে, এ সময় তিনটি বাল্টিক রাষ্ট্র তথা লিথুয়ানিয়া, লাটভিয়া এবং এস্তোনিয়ার প্রধানমন্ত্রীরা উপস্থিত ছিলেন। ইউক্রেন যুদ্ধে পারমাণবিক অস্ত্র মোতায়েনের বিরুদ্ধে মস্কোকে সতর্ক করেন শোলজ।

তিনি বলেন, এটি সর্বদা জোর দিয়ে বলা গুরুত্বপূর্ণ যে, এই যুদ্ধে পারমাণবিক অস্ত্র ব্যবহার করা উচিত নয়।

জার্মান নেতা জানান, সুইজারল্যান্ডে একটি শান্তি সম্মেলন আয়োজনের কাজ চলছে, যা অবশ্যই রাশিয়ার কাছে একটি স্পষ্ট বার্তা হবে।

জার্মানির চ্যান্সেলর হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণের পর সোমবার প্রথম সরকারি সফরে লাটভিয়ায় পৌঁছেন তিনি। তিনটি বাল্টিক রাষ্ট্রই সফর করবেন শোলজ। তিনটি দেশই আবার সামরিক জোট ন্যাটোর অংশীদার।

জার্মান চ্যান্সেলর বলেন, ইউক্রেনের বিরুদ্ধে রাশিয়ার আগ্রাসন একটি ভুল সিদ্ধান্ত ছিল এবং এটি ইউরোপকে বিভক্ত করে ন্যাটোকে দুর্বল করার পরিবর্তে তাদের ঐক্যকে শক্তিশালী করেছে।

এর আগে রাশিয়া ঘোষণা করেছে যে, তারা কৌশলগত পারমাণবিক অস্ত্রের ব্যবহার বিষয়ে মহড়া পরিচালনা করবে। অবশ্য শীর্ষ ইউরোপীয় নেতারা ইউক্রেনের প্রতি শক্তিশালী সামরিক সমর্থন প্রকাশের পরই তার প্রতিক্রিয়ায় এমন ঘোষণা দেয় মস্কো।

ক্রেমলিনের মতে, প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন ইউক্রেনে সৈন্য পাঠানোর বিষয়ে পশ্চিমা ও ন্যাটো সদস্য দেশগুলোর বক্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় সামরিক মহড়ার নির্দেশ দিয়েছেন।

এর আগে শোলজ বাল্টিক সাগর অঞ্চলে ন্যাটো অংশীদারদের আশ্বাস দিয়েছিলেন যে, জার্মানি নির্ভরযোগ্য সামরিক সহায়তা প্রদান করবে।

কালের চিঠি / আশিকুর।