মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০২৪, ১ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

পুতিনকে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট হিসেবে স্বীকৃতি না দেওয়ার আহ্বান ইউক্রেনের

 

পরবর্তী প্রেসিডেন্ট পদে মঙ্গলবার শপথ নিতে যাচ্ছেন ভ্লাদিমির পুতিন। এরই মধ্যে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট হিসেবে পুতিনকে স্বীকৃতি দিতে অস্বীকৃতি জানিয়েছে ইউক্রেন। তারা জানিয়েছে, ভ্লাদিমির পুতিনকে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট হিসাবে স্বীকৃতি দেওয়ার জন্য কোনো আইনি ভিত্তি নেই।

সোমবার (৬ মে) ইউক্রেনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের একটি বিবৃতিতে এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।

বিবৃতিতে বলা হয়েছে— ভ্লাদিমির পুতিনের বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালতে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি রয়েছে। এ ছাড়া ইউক্রেনের বিরুদ্ধে অন্যায়ভাবে আক্রমণ চালাচ্ছে পুতিনের নির্দেশে এবং তার অধীনে নির্বাচন সম্পূর্ণ অবৈধ হয়েছে। এর ফলে বৈধ প্রেসিডেন্ট হিসাবে পুতিনকে স্বীকৃতি দেওয়ার কোনো আইনি ভিত্তি নেই।

এতে আরও বলা হয়েছে, রাশিয়া গত মার্চে যে প্রেসিডেন্ট নির্বাচন হয়েছে, এতে অসংখ্য আন্তর্জাতিক নীতি লঙ্ঘন করার জন্য অভিযুক্ত করা হয়েছে দেশটিকে, যেমন ২০২২ সালে রাশিয়া জোর করে দোনেৎস্ক, লুহানস্ক, জাপোরিঝিয়া এবং খেরসন অঞ্চল দখল করে অসাংবিধানিক ভোটগ্রহণ করেছে। এরই সঙ্গে ২০১৪ সালে ক্রিমিয়ান উপদ্বীপ রাশিয়ার সঙ্গে সংযুক্ত করেছে পুতিন। যেটি পুরোপুরি অবৈধ।

বিবৃতিতে আরও বলা হয়েছে, আন্তর্জাতিক আইনে দখলদারির সতর্কতা সত্ত্বেও রাশিয়ার পদক্ষেপগুলো আবারও প্রমাণ করে যে পুতিনের নেতৃত্বে ইউক্রেনের বিরুদ্ধে অবৈধ, অপ্রীতিকর এবং অযৌক্তিকভাবে সশস্ত্র আগ্রাসন চালিয়ে যাচ্ছে রাশিয়া।

এ ছাড়া বিশ্বের সব নেতা এবং জনসাধারণকে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের ফল ও পুতিনকে বৈধ প্রেসিডেন্ট হিসাবে স্বীকৃতি না দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছে ইউক্রেন।

কালের চিঠি / আশিকুর।

Tag :
Popular Post

বেরোবিতে কোঠা ইস্যুতে আন্দোলনকারীদের ওপর ছাত্রলীগের হামলা

পুতিনকে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট হিসেবে স্বীকৃতি না দেওয়ার আহ্বান ইউক্রেনের

Update Time : ০৫:৪২:২০ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ৭ মে ২০২৪

 

পরবর্তী প্রেসিডেন্ট পদে মঙ্গলবার শপথ নিতে যাচ্ছেন ভ্লাদিমির পুতিন। এরই মধ্যে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট হিসেবে পুতিনকে স্বীকৃতি দিতে অস্বীকৃতি জানিয়েছে ইউক্রেন। তারা জানিয়েছে, ভ্লাদিমির পুতিনকে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট হিসাবে স্বীকৃতি দেওয়ার জন্য কোনো আইনি ভিত্তি নেই।

সোমবার (৬ মে) ইউক্রেনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের একটি বিবৃতিতে এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।

বিবৃতিতে বলা হয়েছে— ভ্লাদিমির পুতিনের বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালতে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি রয়েছে। এ ছাড়া ইউক্রেনের বিরুদ্ধে অন্যায়ভাবে আক্রমণ চালাচ্ছে পুতিনের নির্দেশে এবং তার অধীনে নির্বাচন সম্পূর্ণ অবৈধ হয়েছে। এর ফলে বৈধ প্রেসিডেন্ট হিসাবে পুতিনকে স্বীকৃতি দেওয়ার কোনো আইনি ভিত্তি নেই।

এতে আরও বলা হয়েছে, রাশিয়া গত মার্চে যে প্রেসিডেন্ট নির্বাচন হয়েছে, এতে অসংখ্য আন্তর্জাতিক নীতি লঙ্ঘন করার জন্য অভিযুক্ত করা হয়েছে দেশটিকে, যেমন ২০২২ সালে রাশিয়া জোর করে দোনেৎস্ক, লুহানস্ক, জাপোরিঝিয়া এবং খেরসন অঞ্চল দখল করে অসাংবিধানিক ভোটগ্রহণ করেছে। এরই সঙ্গে ২০১৪ সালে ক্রিমিয়ান উপদ্বীপ রাশিয়ার সঙ্গে সংযুক্ত করেছে পুতিন। যেটি পুরোপুরি অবৈধ।

বিবৃতিতে আরও বলা হয়েছে, আন্তর্জাতিক আইনে দখলদারির সতর্কতা সত্ত্বেও রাশিয়ার পদক্ষেপগুলো আবারও প্রমাণ করে যে পুতিনের নেতৃত্বে ইউক্রেনের বিরুদ্ধে অবৈধ, অপ্রীতিকর এবং অযৌক্তিকভাবে সশস্ত্র আগ্রাসন চালিয়ে যাচ্ছে রাশিয়া।

এ ছাড়া বিশ্বের সব নেতা এবং জনসাধারণকে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের ফল ও পুতিনকে বৈধ প্রেসিডেন্ট হিসাবে স্বীকৃতি না দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছে ইউক্রেন।

কালের চিঠি / আশিকুর।