রবিবার, ২১ জুলাই ২০২৪, ৬ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সাংবাদিককে হুমকি কোনোভাবেই গ্রহণযোগ্য নয়: মিলার

অন্য দেশ নিয়ে প্রশ্ন করার কারণে সাংবাদিককে হুমকি, ভয় দেখানো এবং হয়রানি করা কোনোভাবেই গ্রহণযোগ্য নয় বলে মন্তব্য করেছেন স্টেট ডিপার্টমেন্টের মুখপাত্র ম্যাথিউ মিলার।

বৃহস্পতিবার মার্কিন স্টেট ডিপার্টমেন্টের ব্রিফিংয়ে ভারতের চলমান রাজনৈতিক পরিস্থিতি নিয়ে প্রশ্ন করার কারণে সাংবাদিকদের প্রাণনাশের হুমকি এবং হয়রানি করা প্রসঙ্গে জানতে চাইলে তিনি এ কথা বলেন।

মিলার জানান, সাংবাদিকরা যে কোনো দেশ নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের ব্রিফিংয়ে প্রশ্ন করতে পারে এবং তা স্বাগত জানায় যুক্তরাষ্ট্র।

বৃহস্পতিবার স্টেট ডিপার্টমেন্টের নিয়মিত ব্রিফিংয়ে স্টেট ডিপার্টমেন্ট করেসপন্ডেট এক সাংবাদিক জানতে চান, আমার এক সহকর্মী (এআরওয়াই প্রতিনিধি) যিনি সেদিন ভারত ইস্যুতে এই ব্রিফিং রুমে প্রশ্ন করেছিলেন। তিনি এখন বাইরে থেকে খুব কঠিন হয়ে দাঁড়িয়েছে। আপনি হয়তো জানেন যে, ব্রিফিংয়ে প্রশ্ন করা হলে তার কারণে হয়রানির মুখোমুখি হতে হচ্ছে। প্রশ্ন করার কারণে আমাকেও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে হুমকি দেওয়া হচ্ছে, এমনকি প্রাণনাশের হুমকিও দেওয়া হচ্ছে। তারা এখন সাংবাদিকের দেশ নিয়ে প্রশ্ন তুলছে। এই ব্রিফিং রুমে কোনো দেশ নিয়ে প্রশ্ন করার জন্য কী একজন সাংবাদিককে সেই দেশের জাতিগত কিংবা সেই অঞ্চলের অধিবাসী হতে হবে? এমন কোনো বিধিবদ্ধ নিয়ম কী রয়েছে?

জবাবে মিলার বলেন, আপনার প্রশ্নের উত্তরে বলব— পৃথিবীর যে কোনো দেশের সাংবাদিককে আমরা স্বাগত জানাই। যে কোনো জাতি বা বর্ণের, বিশ্বের যে কোনো দেশের সাংবাদিক, যে কোনো বিষয় নিয়েই প্রশ্ন করাকে আমরা স্বাগত জানাই। এটা দুর্ভাগ্যজনক যে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে এই কারণে বিরূপ মন্তব্যের মুখোমুখি হতে হয়, হুমকি এবং ভয় দেখানো হয়। এটা কোনোভাবেই গ্রহণযোগ্য নয়।

কালের চিঠি / আশিকুর।

Tag :
Popular Post

কোটা বিরোধী আন্দোলনে ঢাকায় ২ শিক্ষার্থী নিহত

সাংবাদিককে হুমকি কোনোভাবেই গ্রহণযোগ্য নয়: মিলার

Update Time : ১১:১০:২৯ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ৩ মে ২০২৪

অন্য দেশ নিয়ে প্রশ্ন করার কারণে সাংবাদিককে হুমকি, ভয় দেখানো এবং হয়রানি করা কোনোভাবেই গ্রহণযোগ্য নয় বলে মন্তব্য করেছেন স্টেট ডিপার্টমেন্টের মুখপাত্র ম্যাথিউ মিলার।

বৃহস্পতিবার মার্কিন স্টেট ডিপার্টমেন্টের ব্রিফিংয়ে ভারতের চলমান রাজনৈতিক পরিস্থিতি নিয়ে প্রশ্ন করার কারণে সাংবাদিকদের প্রাণনাশের হুমকি এবং হয়রানি করা প্রসঙ্গে জানতে চাইলে তিনি এ কথা বলেন।

মিলার জানান, সাংবাদিকরা যে কোনো দেশ নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের ব্রিফিংয়ে প্রশ্ন করতে পারে এবং তা স্বাগত জানায় যুক্তরাষ্ট্র।

বৃহস্পতিবার স্টেট ডিপার্টমেন্টের নিয়মিত ব্রিফিংয়ে স্টেট ডিপার্টমেন্ট করেসপন্ডেট এক সাংবাদিক জানতে চান, আমার এক সহকর্মী (এআরওয়াই প্রতিনিধি) যিনি সেদিন ভারত ইস্যুতে এই ব্রিফিং রুমে প্রশ্ন করেছিলেন। তিনি এখন বাইরে থেকে খুব কঠিন হয়ে দাঁড়িয়েছে। আপনি হয়তো জানেন যে, ব্রিফিংয়ে প্রশ্ন করা হলে তার কারণে হয়রানির মুখোমুখি হতে হচ্ছে। প্রশ্ন করার কারণে আমাকেও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে হুমকি দেওয়া হচ্ছে, এমনকি প্রাণনাশের হুমকিও দেওয়া হচ্ছে। তারা এখন সাংবাদিকের দেশ নিয়ে প্রশ্ন তুলছে। এই ব্রিফিং রুমে কোনো দেশ নিয়ে প্রশ্ন করার জন্য কী একজন সাংবাদিককে সেই দেশের জাতিগত কিংবা সেই অঞ্চলের অধিবাসী হতে হবে? এমন কোনো বিধিবদ্ধ নিয়ম কী রয়েছে?

জবাবে মিলার বলেন, আপনার প্রশ্নের উত্তরে বলব— পৃথিবীর যে কোনো দেশের সাংবাদিককে আমরা স্বাগত জানাই। যে কোনো জাতি বা বর্ণের, বিশ্বের যে কোনো দেশের সাংবাদিক, যে কোনো বিষয় নিয়েই প্রশ্ন করাকে আমরা স্বাগত জানাই। এটা দুর্ভাগ্যজনক যে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে এই কারণে বিরূপ মন্তব্যের মুখোমুখি হতে হয়, হুমকি এবং ভয় দেখানো হয়। এটা কোনোভাবেই গ্রহণযোগ্য নয়।

কালের চিঠি / আশিকুর।