শনিবার, ২৫ মে ২০২৪, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ইউসিএলএ ক্যাম্পাসে পুলিশ, থমথমে পরিবেশ

লস অ্যাঞ্জেলসের ইউনিভার্সিটি অব ক্যালিফোর্নিয়ায় (ইউসিএলএ) শিক্ষার্থীদের ওপর পুলিশি তাণ্ডবের পর থমথমে পরিবেশ পুরো ক্যাম্পাসজুড়ে। দিনের আলো ফুটতেই দেখা যায়, বিশ্ববিদ্যালয় চত্ত্বরে অবস্থান করছে দাঙ্গা পুলিশ। শুক্রবার (৩ মে) এমনটা জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

নিরাপত্তা বাহিনীর উপস্থিতি সত্ত্বেও বিচ্ছিন্নভাবে বিক্ষোভ করছেন শিক্ষার্থীরা। এসময় আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের সাথে বাকবিতণ্ডাও হয় নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যদের।

এর আগে, বৃহস্পতিবার (২ মে) দিবাগত রাতে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের ওপর চড়াও হয় পুলিশ। ব্যাপক অভিযানের পর সরিয়ে দেয়া হয় অবস্থানরত শিক্ষার্থীদের। ব্যবহার করা হয় জলকামান। এসময় দফায়-দফায় টিয়ারগ্যাস ছোড়ে পুলিশ। রাবার বুলেটও চার্জ করা হয়। আটক করা হয়েছে বহু আন্দোলনকারীকে।

 

এদিকে, ইসরায়েল বিরোধী বিক্ষোভ চলছে ইউনিভার্সিটি অব পোর্টল্যান্ড, ইউনিভার্সিটি অব ওয়াশিংটনসহ বেশ কয়েকটি বিশ্ববিদ্যালয়ে। এরমধ্যে ইউনিভার্সিটি অব পোর্টল্যান্ডের লাইব্রেরিতে অবস্থান নেয় শিক্ষার্থীরা। এসময় অভিযান চালিয়ে তাদের সেখান থেকে সরিয়ে দেয়া হয়।

প্রসঙ্গত, গত ৭ অক্টোবর ইসরায়েলে ফিলিস্তিনি স্বাধীনতাকামী সংগঠন হামাসের হামলা এবং পরে গাজায় শুরু করা ইসরায়েলি বাহিনীর অভিযানে প্রাথমিকভাবে যুদ্ধবিরোধী সমাবেশ, অবস্থান কর্মসূচি পালন করে যুক্তরাষ্ট্রের শিক্ষার্থীরা। তবে অতিসম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্রজুড়ে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে তাঁবুর শিবির গড়ে টানা বিক্ষোভ চালিয়ে যাচ্ছেন তারা।

শিক্ষার্থীদের দাবি, বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর কর্তৃপক্ষ যেন ইসরায়েলকে সরবরাহ করা অস্ত্র উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান ও ইসরায়েলি সেনাবাহিনীর সঙ্গে যুক্ত প্রতিষ্ঠানগুলোতে বিনিয়োগ না করে এবং তাদের কাছ থেকে কোনো আর্থিক সুবিধা না নেয়।

কালের চিঠি /

Tag :

ইউসিএলএ ক্যাম্পাসে পুলিশ, থমথমে পরিবেশ

Update Time : ০৩:৫৯:২৯ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ৩ মে ২০২৪

লস অ্যাঞ্জেলসের ইউনিভার্সিটি অব ক্যালিফোর্নিয়ায় (ইউসিএলএ) শিক্ষার্থীদের ওপর পুলিশি তাণ্ডবের পর থমথমে পরিবেশ পুরো ক্যাম্পাসজুড়ে। দিনের আলো ফুটতেই দেখা যায়, বিশ্ববিদ্যালয় চত্ত্বরে অবস্থান করছে দাঙ্গা পুলিশ। শুক্রবার (৩ মে) এমনটা জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

নিরাপত্তা বাহিনীর উপস্থিতি সত্ত্বেও বিচ্ছিন্নভাবে বিক্ষোভ করছেন শিক্ষার্থীরা। এসময় আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের সাথে বাকবিতণ্ডাও হয় নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যদের।

এর আগে, বৃহস্পতিবার (২ মে) দিবাগত রাতে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের ওপর চড়াও হয় পুলিশ। ব্যাপক অভিযানের পর সরিয়ে দেয়া হয় অবস্থানরত শিক্ষার্থীদের। ব্যবহার করা হয় জলকামান। এসময় দফায়-দফায় টিয়ারগ্যাস ছোড়ে পুলিশ। রাবার বুলেটও চার্জ করা হয়। আটক করা হয়েছে বহু আন্দোলনকারীকে।

 

এদিকে, ইসরায়েল বিরোধী বিক্ষোভ চলছে ইউনিভার্সিটি অব পোর্টল্যান্ড, ইউনিভার্সিটি অব ওয়াশিংটনসহ বেশ কয়েকটি বিশ্ববিদ্যালয়ে। এরমধ্যে ইউনিভার্সিটি অব পোর্টল্যান্ডের লাইব্রেরিতে অবস্থান নেয় শিক্ষার্থীরা। এসময় অভিযান চালিয়ে তাদের সেখান থেকে সরিয়ে দেয়া হয়।

প্রসঙ্গত, গত ৭ অক্টোবর ইসরায়েলে ফিলিস্তিনি স্বাধীনতাকামী সংগঠন হামাসের হামলা এবং পরে গাজায় শুরু করা ইসরায়েলি বাহিনীর অভিযানে প্রাথমিকভাবে যুদ্ধবিরোধী সমাবেশ, অবস্থান কর্মসূচি পালন করে যুক্তরাষ্ট্রের শিক্ষার্থীরা। তবে অতিসম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্রজুড়ে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে তাঁবুর শিবির গড়ে টানা বিক্ষোভ চালিয়ে যাচ্ছেন তারা।

শিক্ষার্থীদের দাবি, বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর কর্তৃপক্ষ যেন ইসরায়েলকে সরবরাহ করা অস্ত্র উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান ও ইসরায়েলি সেনাবাহিনীর সঙ্গে যুক্ত প্রতিষ্ঠানগুলোতে বিনিয়োগ না করে এবং তাদের কাছ থেকে কোনো আর্থিক সুবিধা না নেয়।

কালের চিঠি /