মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪, ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

চেন্নাইয়ের হয়ে শেষটা রাঙানো হলো না মোস্তাফিজের।

চলতি আইপিএলের উদ্বোধনী ম্যাচে বেঙ্গালুরুকে হারিয়ে চেন্নাইয়ের জার্সিতে শুভসূচনা করেছিলেন মোস্তাফিজুর রহমান। তবে পাঞ্জাবের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে এবারের আইপিএল শেষ হলো ফিজের। কিন্তু নিজের বিদায়ী ম্যাচটা জয় দিয়ে রাঙাতে পারলেন না এই টাইগার পেসার। নিজেদের দশম ম্যাচে পাঞ্জাবের কাছে সাত উইকেটে হেরেছে চেন্নাই।

বুধবার (১ মে) আগে ব্যাট করতে নেমে পাঞ্জাবকে ১৬৩ রানের লক্ষ্য দিয়েছে চেন্নাই। জবাব দিতে নেমে সাত উইকেট এবং ১৩ বল হাতে থাকতেই জয়ের বন্দরে পৌঁছে যায় পাঞ্জাব। এতে চতুর্থ জয়ের দেখা পেলো দলটি।

চ্যালেঞ্জিং লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে শুরুতেই উইকেট হারায় পাঞ্জাব। ১০ বলে ১৩ রান করে সাজঘরে ফেরেন প্রাভসিমরান সিং। এরপর রাইলি রুসোকে সঙ্গে নিয়ে রান তুলতে থাকেন জনি বেয়ারস্টো। দুজনের ব্যাটে ভর করে জয়ের পথে এগোতে থাকে পাঞ্জাব।

তবে ফিফটি কাছ থেকে ফিরতে হয়েছে দুই ব্যাটারকেই। ৩০ বলে ৪৬ রান করে বেয়ারস্টো আউট হলেও ২৩ বলে ৪৩ রান করে তাকে সঙ্গ দেন রুসো।

এরপর পাঞ্জাব শিবিরের হাল ধরে শাশাঙ্ক সিং এবং স্যাম কারান। শেষ পর্যন্ত শাশাঙ্কের ২৬ বলের ২৫ রান এবং কারানের ২০ বলের অপরাজিত ২৬ রানের ভর করে সাত উইকেট এবং ১৩ বল হাতে থাকতেই জয়ের বন্দরে পৌঁছে যায় পাঞ্জাব।

চেন্নাইয়ের হয়ে শার্দুল ঠাকুর, রিচার্ড গ্লেসন এবং শিভম ডুবে একটি করে উইকেট নেন।

এর আগে টসে হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে চেন্নাইকে উড়ন্ত সূচনা এনে দেয় দুই ওপেনার আজিঙ্কা রাহানে এবং রুতুরাজ গায়কোয়াড়। দুজনের ব্যাট থেকে আসে ৬৪ রান। তবে ইনিংস লম্বা করতে পারেননি রাহানে। ২৪ বলে ২৯ রান করে সাজঘরে ফেরেন এই ডান হাতি ব্যাটার।

এদিন ব্যাট হাতে আলো ছড়াতে পারেননি শিভম ডুবে। ৯তম ওভারে ডাক আউট হন এই ভারতীয় ব্যাটার। ৪ বলে ২ রান করে তাকে সঙ্গ দেন রবিন্দ্র জাদেজা। এতে ৬ রানের ব্যবধানে তিন উইকেট হারিয়ে ছন্দ হারায় চেন্নাই। কিন্তু এক প্রান্ত আগলে রেখে রান তুলতে থাকেন গায়কোয়াড়।

৪৪ বলে ফিফটি তুলে নেন চেন্নাই দলপতি। ২৩ বলে ২১ রান করে তাকে সঙ্গ দেন সামার রিজভি। ৪৮ বলে ৬২ রান করে আউট হন গায়কোয়াড়।

শেষ দিকে ৯ বলে ১৫ রান করে আউট হলে ধোনির ১১ বলে ১৪ রানের ইনিংসে ভর করে সাত উইকেটে ১৬২ রানে লড়াকু পুঁজি পায় চেন্নাই সুপার কিংস।

পাঞ্জাবের হয়ে রাহুল চাহার এবং হারপ্রিত ব্রার দুটি করে উইকেট শিকার করেন। এ ছাড়াও আর্শদ্বীপ সিং এবং কাগিসো রাবাদা দুটি করে উইকেট নেন।

কালের চিঠি/ফাহিম

Tag :

চেন্নাইয়ের হয়ে শেষটা রাঙানো হলো না মোস্তাফিজের।

Update Time : ০৬:৩৪:৪৪ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২ মে ২০২৪

চলতি আইপিএলের উদ্বোধনী ম্যাচে বেঙ্গালুরুকে হারিয়ে চেন্নাইয়ের জার্সিতে শুভসূচনা করেছিলেন মোস্তাফিজুর রহমান। তবে পাঞ্জাবের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে এবারের আইপিএল শেষ হলো ফিজের। কিন্তু নিজের বিদায়ী ম্যাচটা জয় দিয়ে রাঙাতে পারলেন না এই টাইগার পেসার। নিজেদের দশম ম্যাচে পাঞ্জাবের কাছে সাত উইকেটে হেরেছে চেন্নাই।

বুধবার (১ মে) আগে ব্যাট করতে নেমে পাঞ্জাবকে ১৬৩ রানের লক্ষ্য দিয়েছে চেন্নাই। জবাব দিতে নেমে সাত উইকেট এবং ১৩ বল হাতে থাকতেই জয়ের বন্দরে পৌঁছে যায় পাঞ্জাব। এতে চতুর্থ জয়ের দেখা পেলো দলটি।

চ্যালেঞ্জিং লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে শুরুতেই উইকেট হারায় পাঞ্জাব। ১০ বলে ১৩ রান করে সাজঘরে ফেরেন প্রাভসিমরান সিং। এরপর রাইলি রুসোকে সঙ্গে নিয়ে রান তুলতে থাকেন জনি বেয়ারস্টো। দুজনের ব্যাটে ভর করে জয়ের পথে এগোতে থাকে পাঞ্জাব।

তবে ফিফটি কাছ থেকে ফিরতে হয়েছে দুই ব্যাটারকেই। ৩০ বলে ৪৬ রান করে বেয়ারস্টো আউট হলেও ২৩ বলে ৪৩ রান করে তাকে সঙ্গ দেন রুসো।

এরপর পাঞ্জাব শিবিরের হাল ধরে শাশাঙ্ক সিং এবং স্যাম কারান। শেষ পর্যন্ত শাশাঙ্কের ২৬ বলের ২৫ রান এবং কারানের ২০ বলের অপরাজিত ২৬ রানের ভর করে সাত উইকেট এবং ১৩ বল হাতে থাকতেই জয়ের বন্দরে পৌঁছে যায় পাঞ্জাব।

চেন্নাইয়ের হয়ে শার্দুল ঠাকুর, রিচার্ড গ্লেসন এবং শিভম ডুবে একটি করে উইকেট নেন।

এর আগে টসে হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে চেন্নাইকে উড়ন্ত সূচনা এনে দেয় দুই ওপেনার আজিঙ্কা রাহানে এবং রুতুরাজ গায়কোয়াড়। দুজনের ব্যাট থেকে আসে ৬৪ রান। তবে ইনিংস লম্বা করতে পারেননি রাহানে। ২৪ বলে ২৯ রান করে সাজঘরে ফেরেন এই ডান হাতি ব্যাটার।

এদিন ব্যাট হাতে আলো ছড়াতে পারেননি শিভম ডুবে। ৯তম ওভারে ডাক আউট হন এই ভারতীয় ব্যাটার। ৪ বলে ২ রান করে তাকে সঙ্গ দেন রবিন্দ্র জাদেজা। এতে ৬ রানের ব্যবধানে তিন উইকেট হারিয়ে ছন্দ হারায় চেন্নাই। কিন্তু এক প্রান্ত আগলে রেখে রান তুলতে থাকেন গায়কোয়াড়।

৪৪ বলে ফিফটি তুলে নেন চেন্নাই দলপতি। ২৩ বলে ২১ রান করে তাকে সঙ্গ দেন সামার রিজভি। ৪৮ বলে ৬২ রান করে আউট হন গায়কোয়াড়।

শেষ দিকে ৯ বলে ১৫ রান করে আউট হলে ধোনির ১১ বলে ১৪ রানের ইনিংসে ভর করে সাত উইকেটে ১৬২ রানে লড়াকু পুঁজি পায় চেন্নাই সুপার কিংস।

পাঞ্জাবের হয়ে রাহুল চাহার এবং হারপ্রিত ব্রার দুটি করে উইকেট শিকার করেন। এ ছাড়াও আর্শদ্বীপ সিং এবং কাগিসো রাবাদা দুটি করে উইকেট নেন।

কালের চিঠি/ফাহিম