মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০২৪, ৪ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধের ঘোষণা প্রত্যাখ্যান শিক্ষার্থীদের

কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধের ঘোষণা প্রত্যাখ্যান শিক্ষার্থীদের

 

কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ ঘোষণা এবং হল ত্যাগের নির্দেশ দেয়া হলেও তা মানছেন না বেশিরভাগ শিক্ষার্থী। আজ বৃহস্পতিবার (২ মে) দ্বিতীয় দিনের মতো হল ও ক্যাম্পাসে অবস্থান করছেন তারা।

এর আগে, বুধবার (১ মে) দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের সিদ্ধান্ত প্রত্যাখ্যান করে মানববন্ধন করেছেন শিক্ষার্থীরা। বিশ্ববিদ্যালয়ের গোল চত্বরে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। এতে অংশ নেন বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল হলের শত শিক্ষার্থী। বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ ঘোষণা এবং হল ছাড়ার সিদ্ধান্ত অবিলম্বে বাতিলের দাবি জানান তারা। তারা বলেছেন– বিরোধ শিক্ষকদের, আমরা কেন হল ছাড়বো? হল ছাড়তে চাই না। ক্লাসে ফিরতে চাই।

শিক্ষক সমিতির ৭ দফা দাবি আদায়ে বেশ কিছুদিন ধরেই উত্তপ্ত ক্যাম্পাস। উপাচার্যের পদত্যাগের দাবিতে একাডেমিক ও প্রশাসনিক কার্যক্রম বর্জনের ঘোষণা দেয় শিক্ষক সমিতি। পরে মঙ্গলবার (৩০ এপ্রিল) সন্ধ্যার দিকে বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ ঘোষণা করা হয়। বুধবার (১ মে) বিকেলের মধ্যে ছাত্র-ছাত্রীদের হল ছাড়ার নির্দেশ দেয় কর্তৃপক্ষ। তবে ভর্তি পরীক্ষার কার্যক্রম চলমান থাকবে বলে জানানো হয়।

কালের চিঠি / আলিফ

Tag :

কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধের ঘোষণা প্রত্যাখ্যান শিক্ষার্থীদের

Update Time : ১১:০১:২২ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২ মে ২০২৪

কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধের ঘোষণা প্রত্যাখ্যান শিক্ষার্থীদের

 

কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ ঘোষণা এবং হল ত্যাগের নির্দেশ দেয়া হলেও তা মানছেন না বেশিরভাগ শিক্ষার্থী। আজ বৃহস্পতিবার (২ মে) দ্বিতীয় দিনের মতো হল ও ক্যাম্পাসে অবস্থান করছেন তারা।

এর আগে, বুধবার (১ মে) দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের সিদ্ধান্ত প্রত্যাখ্যান করে মানববন্ধন করেছেন শিক্ষার্থীরা। বিশ্ববিদ্যালয়ের গোল চত্বরে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। এতে অংশ নেন বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল হলের শত শিক্ষার্থী। বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ ঘোষণা এবং হল ছাড়ার সিদ্ধান্ত অবিলম্বে বাতিলের দাবি জানান তারা। তারা বলেছেন– বিরোধ শিক্ষকদের, আমরা কেন হল ছাড়বো? হল ছাড়তে চাই না। ক্লাসে ফিরতে চাই।

শিক্ষক সমিতির ৭ দফা দাবি আদায়ে বেশ কিছুদিন ধরেই উত্তপ্ত ক্যাম্পাস। উপাচার্যের পদত্যাগের দাবিতে একাডেমিক ও প্রশাসনিক কার্যক্রম বর্জনের ঘোষণা দেয় শিক্ষক সমিতি। পরে মঙ্গলবার (৩০ এপ্রিল) সন্ধ্যার দিকে বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ ঘোষণা করা হয়। বুধবার (১ মে) বিকেলের মধ্যে ছাত্র-ছাত্রীদের হল ছাড়ার নির্দেশ দেয় কর্তৃপক্ষ। তবে ভর্তি পরীক্ষার কার্যক্রম চলমান থাকবে বলে জানানো হয়।

কালের চিঠি / আলিফ