মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪, ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ছুটি বাতিলের বিষয়ে যা জানাল মন্ত্রণালয়

শিক্ষা মন্ত্রণালয় শনিবার স্কুল খোলা রাখার সিদ্ধান্ত নিলেও প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় নিয়েছে ভিন্ন সিদ্ধান্ত। আগের মতোই শনিবার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সাপ্তাহিক ছুটি থাকছে।

শনিবার (২৭ এপ্রিল) বিকেলে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র তথ্য অফিসার মাহবুবুর রহমান তুহিন গণমাধ্যমকে জানান, শনিবার বন্ধ থাকবে কিংবা খোলা থাকবে—এমন কিছু আমরা বলিনি। আগের মতোই চলবে। অর্থাৎ শিক্ষা মন্ত্রণালয় শনিবার স্কুল খোলা রাখলেও আমাদের বন্ধ রাখা হয়েছে।

এর আগে এক প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, চলমান দাবদাহের কারণে শিশুদের স্বাস্থ্য ঝুঁকি বিবেচনায় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, শিশু কল্যাণ ট্রাস্ট পরিচালিত প্রাথমিক বিদ্যালয়সমূহ ও উপানুষ্ঠানিক শিক্ষা ব্যুরোর লার্নিং সেন্টারগুলোতে শ্রেণি কার্যক্রম চালুর বিষয়ে নতুন সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে।

আগামী ২৮ এপ্রিল থেকে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শ্রেণি কার্যক্রম চলমান থাকবে। এক শিফটে পরিচালিত বিদ্যালয়গুলো প্রতিদিন সকাল ৮টা থেকে বেলা সাড়ে ১১টা পর্যন্ত চলবে।

দুই শিফটে পরিচালিত বিদ্যালয়গুলো প্রথম শিফট সকাল ৮টা থেকে সকাল সাড়ে ৯টা এবং দ্বিতীয় শিফট পৌনে ১০টা থেকে বেলা সাড়ে ১১টা পর্যন্ত চলমান থাকবে।

প্রাক-প্রাথমিক শ্রেণির কার্যক্রম পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত বন্ধ থাকবে। দাবদাহ সহনীয় পর্যায়ে না আসা পর্যন্ত অ্যাসেম্বলি বন্ধ থাকবে।

এর আগে গত বৃহস্পতিবার (২৫ এপ্রিল) উপসচিব মোসাম্মৎ রহিমা আক্তারের সই করা নির্দেশে জানানো হয়, ৪ মে থেকে শনিবারও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়।

নির্দেশনায় বলা হয়েছে, তাপপ্রবাহ এবং নানা কারণে শ্রেণি কার্যক্রম বন্ধ থাকার ফলে যে শিখন ঘাটতি তৈরি হয়েছে তা পূরণ এবং নতুন শিক্ষাক্রম অনুযায়ী শিখন ফল অর্জনের জন্য পরবর্তী নির্দেশনা না দেয়া পর্যন্ত শনিবারও শ্রেণি কার্যক্রম চলবে।

কালের চিঠি / আশিকুর।

Tag :

প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ছুটি বাতিলের বিষয়ে যা জানাল মন্ত্রণালয়

Update Time : ০৬:০০:১৮ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৭ এপ্রিল ২০২৪

শিক্ষা মন্ত্রণালয় শনিবার স্কুল খোলা রাখার সিদ্ধান্ত নিলেও প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় নিয়েছে ভিন্ন সিদ্ধান্ত। আগের মতোই শনিবার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সাপ্তাহিক ছুটি থাকছে।

শনিবার (২৭ এপ্রিল) বিকেলে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র তথ্য অফিসার মাহবুবুর রহমান তুহিন গণমাধ্যমকে জানান, শনিবার বন্ধ থাকবে কিংবা খোলা থাকবে—এমন কিছু আমরা বলিনি। আগের মতোই চলবে। অর্থাৎ শিক্ষা মন্ত্রণালয় শনিবার স্কুল খোলা রাখলেও আমাদের বন্ধ রাখা হয়েছে।

এর আগে এক প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, চলমান দাবদাহের কারণে শিশুদের স্বাস্থ্য ঝুঁকি বিবেচনায় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, শিশু কল্যাণ ট্রাস্ট পরিচালিত প্রাথমিক বিদ্যালয়সমূহ ও উপানুষ্ঠানিক শিক্ষা ব্যুরোর লার্নিং সেন্টারগুলোতে শ্রেণি কার্যক্রম চালুর বিষয়ে নতুন সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে।

আগামী ২৮ এপ্রিল থেকে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শ্রেণি কার্যক্রম চলমান থাকবে। এক শিফটে পরিচালিত বিদ্যালয়গুলো প্রতিদিন সকাল ৮টা থেকে বেলা সাড়ে ১১টা পর্যন্ত চলবে।

দুই শিফটে পরিচালিত বিদ্যালয়গুলো প্রথম শিফট সকাল ৮টা থেকে সকাল সাড়ে ৯টা এবং দ্বিতীয় শিফট পৌনে ১০টা থেকে বেলা সাড়ে ১১টা পর্যন্ত চলমান থাকবে।

প্রাক-প্রাথমিক শ্রেণির কার্যক্রম পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত বন্ধ থাকবে। দাবদাহ সহনীয় পর্যায়ে না আসা পর্যন্ত অ্যাসেম্বলি বন্ধ থাকবে।

এর আগে গত বৃহস্পতিবার (২৫ এপ্রিল) উপসচিব মোসাম্মৎ রহিমা আক্তারের সই করা নির্দেশে জানানো হয়, ৪ মে থেকে শনিবারও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়।

নির্দেশনায় বলা হয়েছে, তাপপ্রবাহ এবং নানা কারণে শ্রেণি কার্যক্রম বন্ধ থাকার ফলে যে শিখন ঘাটতি তৈরি হয়েছে তা পূরণ এবং নতুন শিক্ষাক্রম অনুযায়ী শিখন ফল অর্জনের জন্য পরবর্তী নির্দেশনা না দেয়া পর্যন্ত শনিবারও শ্রেণি কার্যক্রম চলবে।

কালের চিঠি / আশিকুর।