রবিবার, ২৬ মে ২০২৪, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ফেসবুক মুখপাত্রকে ৬ বছরের কারাদণ্ড দিলেন রুশ আদালত

সন্ত্রাসবাদকে বৈধতা’ দেওয়ার জন্যে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুক এবং ইন্সটাগ্রামের মালিক কোম্পানি মেটার রুশ কার্যালয়ের মুখপাত্র অ্যান্ডি স্টোনকে ৬ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন রাশিয়ার একটি সামরিক আদালত। সোমবার (২৩ এপ্রিল) এই রায় ঘোষণা করা হয়।

অ্যান্ডি স্টোনের বিরুদ্ধে অভিযোগ, তিনি রুশ সেনাদের ওপর হামলায় উসকানিদাতাদের প্রশ্রয় দিয়েছিলেন। বর্তমানে অ্যান্ডি স্টোন রাশিয়ার বাইরে অবস্থান করছেন। রায় ঘোষণার সময় আদালত বলেন, তিনি রাশিয়ায় পা রাখা মাত্র রায় কার্যকর হবে।

২০২২ সালে ২৪ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনে অভিযান শুরু করে রুশ বাহিনী। তার এক সপ্তাহ পর মার্চ মাসে ফেসবুকে এক পোস্টে স্টোন বলেছিলেন, ‘যেসব ব্যবহারকারী রুশ বাহিনীর নিন্দা জানিয়ে তাদের সহিংসতার জবাব দেওয়ার জন্য অস্ত্র ধারণের আহ্বান জানাচ্ছেন, তাদের শাস্তি দেবে না ফেসবুক।’

আদালত এই রায় ঘোষণার পর ফেসবুকে এক পোস্টে আত্মপক্ষ সমর্থন করে অ্যান্ডি স্টোন বলেন, ইউক্রেনে রুশ বাহিনীর আগ্রাসনের বিরুদ্ধে রাশিয়া ও বিশ্বের অন্যান্য দেশে যে জনমত গড়ে উঠছিল, তাকে উৎসাহ দিতে ‘সাময়িক’ ভিত্তিতে এই পোস্ট দিয়েছিলেন।

তিনি আরও বলেন, এটি সাময়িক আহ্বান ছিল; আর আমরা কখনও বেসামরিক রুশদের বিরুদ্ধে হামলার উসকানিদাতাদের প্রশ্রয় দিই নি, ভবিষ্যতেও দেবো না।

এ বিষয়ে মেটা কোম্পানির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের গ্লোবাল অ্যাফেয়ার্স বিভাগের প্রধান নিক ক্লেগ বলেন, ‘যে সময়ের পোস্ট নিয়ে অভিযোগ, সেটি করা হয়েছিল একটি বিশেষ সময়ে এবং অনাকাঙ্ক্ষিত পরিস্থিতিতে। আর এটা সত্যি যে ফেসবুক যাবতীয় সহিংসতা ও আগ্রাসনের বিরুদ্ধে। তবে অ্যান্ডি স্টোনের ওই পোস্টটি কেবল রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের ক্ষেত্রেই প্রাসঙ্গিক।’

স্থানীয় একটি গণমাধ্যম মিডিয়াজোনার এক প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, স্টোনকে প্রাথমিকভাবে সন্ত্রাসী কার্যকলাপের জন্য ডাকা হয়। চরমপন্থী কার্যকলাপের জন্য জনসাধারণকে আহ্বান এবং সর্বজনীনভাবে সন্ত্রাসবাদকে বৈধতা দেওয়ার জন্য অভিযুক্ত করা হয়েছিল। কিন্তু প্রথম দুটি অভিযোগ অভিযুক্তের চূড়ান্ত সংস্করণে বাদ দেওয়া হয়।

শুক্রবার শুরু হওয়া এ বিচার মাত্র দুটি শুনানির পরে সোমবার শেষ হয়। স্টোনকে ছয় বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয় এবং আরও চার বছরের জন্য ওয়েবসাইটগুলি পরিচালনা করতে পারবেন না তিনি।

মেটা রায়ের বিষয়ে মন্তব্য করতে অস্বীকৃতি জানায়।

এর আগে মেটার প্রতিষ্ঠাতা ও শীর্ষ নির্বাহী মার্ক জুকারবার্গকে রাশিয়ায় প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা দেয় মস্কো। পরে ফেসবুক-ইনস্টাগ্রামের ওপরও বিধিনিষেধ জারি করে মস্কো।

কালের চিঠি/ ফাহিম

Tag :

ফেসবুক মুখপাত্রকে ৬ বছরের কারাদণ্ড দিলেন রুশ আদালত

Update Time : ০৪:৪০:৫৪ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০২৪

সন্ত্রাসবাদকে বৈধতা’ দেওয়ার জন্যে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুক এবং ইন্সটাগ্রামের মালিক কোম্পানি মেটার রুশ কার্যালয়ের মুখপাত্র অ্যান্ডি স্টোনকে ৬ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন রাশিয়ার একটি সামরিক আদালত। সোমবার (২৩ এপ্রিল) এই রায় ঘোষণা করা হয়।

অ্যান্ডি স্টোনের বিরুদ্ধে অভিযোগ, তিনি রুশ সেনাদের ওপর হামলায় উসকানিদাতাদের প্রশ্রয় দিয়েছিলেন। বর্তমানে অ্যান্ডি স্টোন রাশিয়ার বাইরে অবস্থান করছেন। রায় ঘোষণার সময় আদালত বলেন, তিনি রাশিয়ায় পা রাখা মাত্র রায় কার্যকর হবে।

২০২২ সালে ২৪ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনে অভিযান শুরু করে রুশ বাহিনী। তার এক সপ্তাহ পর মার্চ মাসে ফেসবুকে এক পোস্টে স্টোন বলেছিলেন, ‘যেসব ব্যবহারকারী রুশ বাহিনীর নিন্দা জানিয়ে তাদের সহিংসতার জবাব দেওয়ার জন্য অস্ত্র ধারণের আহ্বান জানাচ্ছেন, তাদের শাস্তি দেবে না ফেসবুক।’

আদালত এই রায় ঘোষণার পর ফেসবুকে এক পোস্টে আত্মপক্ষ সমর্থন করে অ্যান্ডি স্টোন বলেন, ইউক্রেনে রুশ বাহিনীর আগ্রাসনের বিরুদ্ধে রাশিয়া ও বিশ্বের অন্যান্য দেশে যে জনমত গড়ে উঠছিল, তাকে উৎসাহ দিতে ‘সাময়িক’ ভিত্তিতে এই পোস্ট দিয়েছিলেন।

তিনি আরও বলেন, এটি সাময়িক আহ্বান ছিল; আর আমরা কখনও বেসামরিক রুশদের বিরুদ্ধে হামলার উসকানিদাতাদের প্রশ্রয় দিই নি, ভবিষ্যতেও দেবো না।

এ বিষয়ে মেটা কোম্পানির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের গ্লোবাল অ্যাফেয়ার্স বিভাগের প্রধান নিক ক্লেগ বলেন, ‘যে সময়ের পোস্ট নিয়ে অভিযোগ, সেটি করা হয়েছিল একটি বিশেষ সময়ে এবং অনাকাঙ্ক্ষিত পরিস্থিতিতে। আর এটা সত্যি যে ফেসবুক যাবতীয় সহিংসতা ও আগ্রাসনের বিরুদ্ধে। তবে অ্যান্ডি স্টোনের ওই পোস্টটি কেবল রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের ক্ষেত্রেই প্রাসঙ্গিক।’

স্থানীয় একটি গণমাধ্যম মিডিয়াজোনার এক প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, স্টোনকে প্রাথমিকভাবে সন্ত্রাসী কার্যকলাপের জন্য ডাকা হয়। চরমপন্থী কার্যকলাপের জন্য জনসাধারণকে আহ্বান এবং সর্বজনীনভাবে সন্ত্রাসবাদকে বৈধতা দেওয়ার জন্য অভিযুক্ত করা হয়েছিল। কিন্তু প্রথম দুটি অভিযোগ অভিযুক্তের চূড়ান্ত সংস্করণে বাদ দেওয়া হয়।

শুক্রবার শুরু হওয়া এ বিচার মাত্র দুটি শুনানির পরে সোমবার শেষ হয়। স্টোনকে ছয় বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয় এবং আরও চার বছরের জন্য ওয়েবসাইটগুলি পরিচালনা করতে পারবেন না তিনি।

মেটা রায়ের বিষয়ে মন্তব্য করতে অস্বীকৃতি জানায়।

এর আগে মেটার প্রতিষ্ঠাতা ও শীর্ষ নির্বাহী মার্ক জুকারবার্গকে রাশিয়ায় প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা দেয় মস্কো। পরে ফেসবুক-ইনস্টাগ্রামের ওপরও বিধিনিষেধ জারি করে মস্কো।

কালের চিঠি/ ফাহিম