মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪, ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বাসের ধাক্কায় চুয়েটের দুই শিক্ষার্থী নিহত

মোটরসাইকেলে ঘুরতে বের হয়ে বাসের ধাক্কায় প্রাণ গেল চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (চুয়েট) দুই শিক্ষার্থী। এ ঘটনায় আরও একজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

 

সোমবার (২২ এপ্রিল) বিকেলে চট্টগ্রামের কাপ্তাই সড়কের সেলিনা কাদের চৌধুরী কলেজ সংলগ্ন এলাকায় এই দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন- চুয়েটের পুরকৌশল বিভাগের ২০তম ব্যাচের শিক্ষার্থী শান্ত সাহা এবং ২১তম ব্যাচের শিক্ষার্থী তৌফিক হোসেন। শান্ত সাহা নরসিংদী সদরের চার নম্বর ওয়ার্ডের কাজল সাহার ছেলে। আর তৌফিক নোয়াখালীর সুধারামের নিউ কলেজ রোড দুই নম্বর ওয়ার্ডের মোহাম্মদ দেলোয়ার হোসেনের ছেলে।

এ দুর্ঘটনায় আহত শিক্ষার্থীর নাম জাকারিয়া হিমু। তিনি ২১তম ব্যাচের শিক্ষার্থী বলে জানা গেছে। হতাহতরা সবাই মোটরসাইকেলে ছিলেন।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, চুয়েটের তিন শিক্ষার্থীকে বহনকারী মোটরসাইকেলটিকে শাহ আমানত নামের দ্রুতগামী একটি বাস পিছন থেকে ধাক্কা দেয়। এতে মোটরসাইকেলের আরোহী শিক্ষার্থীরা ছিটকে পড়েন। এ ঘটনায় বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা বাসটিকে আটক করেছে।

চট্টগ্রাম জেলা পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) মো. আলাউদ্দিন বলেন, সড়ক দুর্ঘটনায় আহত একজনকে চট্টগ্রামের বেসরকারি হাসপাতালে ও আরেকজনকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের দু’জনকে মৃত ঘোষণা করেন।

কালের চিঠি/ ফাহিম

Tag :

বাসের ধাক্কায় চুয়েটের দুই শিক্ষার্থী নিহত

Update Time : ০৫:৪৫:৩৭ অপরাহ্ন, সোমবার, ২২ এপ্রিল ২০২৪

মোটরসাইকেলে ঘুরতে বের হয়ে বাসের ধাক্কায় প্রাণ গেল চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (চুয়েট) দুই শিক্ষার্থী। এ ঘটনায় আরও একজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

 

সোমবার (২২ এপ্রিল) বিকেলে চট্টগ্রামের কাপ্তাই সড়কের সেলিনা কাদের চৌধুরী কলেজ সংলগ্ন এলাকায় এই দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন- চুয়েটের পুরকৌশল বিভাগের ২০তম ব্যাচের শিক্ষার্থী শান্ত সাহা এবং ২১তম ব্যাচের শিক্ষার্থী তৌফিক হোসেন। শান্ত সাহা নরসিংদী সদরের চার নম্বর ওয়ার্ডের কাজল সাহার ছেলে। আর তৌফিক নোয়াখালীর সুধারামের নিউ কলেজ রোড দুই নম্বর ওয়ার্ডের মোহাম্মদ দেলোয়ার হোসেনের ছেলে।

এ দুর্ঘটনায় আহত শিক্ষার্থীর নাম জাকারিয়া হিমু। তিনি ২১তম ব্যাচের শিক্ষার্থী বলে জানা গেছে। হতাহতরা সবাই মোটরসাইকেলে ছিলেন।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, চুয়েটের তিন শিক্ষার্থীকে বহনকারী মোটরসাইকেলটিকে শাহ আমানত নামের দ্রুতগামী একটি বাস পিছন থেকে ধাক্কা দেয়। এতে মোটরসাইকেলের আরোহী শিক্ষার্থীরা ছিটকে পড়েন। এ ঘটনায় বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা বাসটিকে আটক করেছে।

চট্টগ্রাম জেলা পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) মো. আলাউদ্দিন বলেন, সড়ক দুর্ঘটনায় আহত একজনকে চট্টগ্রামের বেসরকারি হাসপাতালে ও আরেকজনকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের দু’জনকে মৃত ঘোষণা করেন।

কালের চিঠি/ ফাহিম