রবিবার, ২১ জুলাই ২০২৪, ৬ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বাংলাদেশে আরও বিনিয়োগের পরিকল্পনা রয়েছে: চীন রাষ্ট্রদূত

বাংলাদেশে নিযুক্ত চীনের রাষ্ট্রদূত ইয়াও ওয়েন‌ বলেছেন, বাংলাদেশের অনেক বড় বড় প্রকল্পের অংশীদার হতে পেরেছে চীন, বিশেষ করে পদ্মা সেতু। বাংলাদেশের জন্য সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ প্রজেক্ট পদ্মা সেতুতে পাশে থেকে সর্বোচ্চ সাপোর্ট দিয়েছে চীন। আমরা বিশ্বাস করি এর মধ্য দিয়ে বাংলাদেশ বদলে গিয়েছে। আর সম্মানের সঙ্গে আমরা সেটি শেষ করতে পেরেছি।

সোমবার (২২ এপ্রিল) টুঙ্গিপাড়া পৌঁছে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধি সৌধে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরের তিনি এসব কথা বলেন।

বাংলাদেশে নিযুক্ত চীনের রাষ্ট্রদূত ইয়াও ওয়েন‌ বলেন, চট্টগ্রামের বঙ্গবন্ধু ট্যানেলে নিয়েও আমরা কাজ করেছি। আমাদের আরও মেগা প্রকল্প রয়েছে। অবকাঠামো খাতও আমাদের বিনিয়োগ রয়েছে। বেশি বিনিয়োগ রয়েছে আইসিটি বা হাই-টেক পার্কে এবং শিল্প ও শিক্ষা খাতে। বাংলাদেশ বিনিয়োগ নিয়ে আমাদের আরো কিছু পরিকল্পনা রয়েছে।

এর আগে বাংলাদেশে নিযুক্ত চীনের রাষ্ট্রদূত ইয়াও ওয়েন‌ (Yao wen) গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় পৌঁছে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধিতে পুষ্পস্তবক অর্পন করে শ্রদ্ধা জানান। পরে বিছুক্ষণ নীরবে দাঁড়িয়ে থেকে বঙ্গবন্ধু ও তাঁর পরিবারের শহীদ সদস্যদের রুহের মাগফেরাত কামনা করে।

শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে তিনি টুঙ্গিপাড়া বঙ্গবন্ধু সমাধি সৌধের এডমিন ভবনে রক্ষিত পরিদর্শন বইতে স্বাক্ষর করেন এবং বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধি সৌধের বিভিন্ন স্থান পরিদর্শন করে।

এ সময় চীনা দূতাবাসের অর্থনৈতিক ও বাণিজ্যিক পরামর্শদাতা সং ইয়াং, দূতাবাসের প্রথম সচিব কুই ইফেং, দ্বিতীয় সচিব শি জুলিয়াং, অ্যাটাচি লিয়াং শুইং, বাংলাদেশে চাইনিজ এন্টার প্রাইজ অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি কে চাংলিয়াং, গোপালগঞ্জের জেলা প্রশাসক কাজী মাহবুবুল আলম, গোপালগঞ্জের পুলিশ সুপার আল বেলী আফিফা, গোপালগঞ্জের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মোঃ গোলাম কবির, টুঙ্গিপাড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ মঈনুল হক, টুঙ্গিপাড়া থানার ওসি খন্দকার আমিনুর রহমান চীন দূতাবাসের পদস্থ কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

কালের চিঠি / আশিকুর

Tag :
Popular Post

কোটা বিরোধী আন্দোলনে ঢাকায় ২ শিক্ষার্থী নিহত

বাংলাদেশে আরও বিনিয়োগের পরিকল্পনা রয়েছে: চীন রাষ্ট্রদূত

Update Time : ০৫:৫০:১১ অপরাহ্ন, সোমবার, ২২ এপ্রিল ২০২৪

বাংলাদেশে নিযুক্ত চীনের রাষ্ট্রদূত ইয়াও ওয়েন‌ বলেছেন, বাংলাদেশের অনেক বড় বড় প্রকল্পের অংশীদার হতে পেরেছে চীন, বিশেষ করে পদ্মা সেতু। বাংলাদেশের জন্য সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ প্রজেক্ট পদ্মা সেতুতে পাশে থেকে সর্বোচ্চ সাপোর্ট দিয়েছে চীন। আমরা বিশ্বাস করি এর মধ্য দিয়ে বাংলাদেশ বদলে গিয়েছে। আর সম্মানের সঙ্গে আমরা সেটি শেষ করতে পেরেছি।

সোমবার (২২ এপ্রিল) টুঙ্গিপাড়া পৌঁছে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধি সৌধে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরের তিনি এসব কথা বলেন।

বাংলাদেশে নিযুক্ত চীনের রাষ্ট্রদূত ইয়াও ওয়েন‌ বলেন, চট্টগ্রামের বঙ্গবন্ধু ট্যানেলে নিয়েও আমরা কাজ করেছি। আমাদের আরও মেগা প্রকল্প রয়েছে। অবকাঠামো খাতও আমাদের বিনিয়োগ রয়েছে। বেশি বিনিয়োগ রয়েছে আইসিটি বা হাই-টেক পার্কে এবং শিল্প ও শিক্ষা খাতে। বাংলাদেশ বিনিয়োগ নিয়ে আমাদের আরো কিছু পরিকল্পনা রয়েছে।

এর আগে বাংলাদেশে নিযুক্ত চীনের রাষ্ট্রদূত ইয়াও ওয়েন‌ (Yao wen) গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় পৌঁছে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধিতে পুষ্পস্তবক অর্পন করে শ্রদ্ধা জানান। পরে বিছুক্ষণ নীরবে দাঁড়িয়ে থেকে বঙ্গবন্ধু ও তাঁর পরিবারের শহীদ সদস্যদের রুহের মাগফেরাত কামনা করে।

শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে তিনি টুঙ্গিপাড়া বঙ্গবন্ধু সমাধি সৌধের এডমিন ভবনে রক্ষিত পরিদর্শন বইতে স্বাক্ষর করেন এবং বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধি সৌধের বিভিন্ন স্থান পরিদর্শন করে।

এ সময় চীনা দূতাবাসের অর্থনৈতিক ও বাণিজ্যিক পরামর্শদাতা সং ইয়াং, দূতাবাসের প্রথম সচিব কুই ইফেং, দ্বিতীয় সচিব শি জুলিয়াং, অ্যাটাচি লিয়াং শুইং, বাংলাদেশে চাইনিজ এন্টার প্রাইজ অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি কে চাংলিয়াং, গোপালগঞ্জের জেলা প্রশাসক কাজী মাহবুবুল আলম, গোপালগঞ্জের পুলিশ সুপার আল বেলী আফিফা, গোপালগঞ্জের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মোঃ গোলাম কবির, টুঙ্গিপাড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ মঈনুল হক, টুঙ্গিপাড়া থানার ওসি খন্দকার আমিনুর রহমান চীন দূতাবাসের পদস্থ কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

কালের চিঠি / আশিকুর