রবিবার, ২১ জুলাই ২০২৪, ৬ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ডিপফেকের শিকার রণবীর, গেলেন থানায় ।

বলিউড অভিনেতা রণবীর সিং ডিপফেক ভিডিওর শিকার হয়েছেন। ভিডিওতে দেখা যায় কংগ্রেসের সমর্থনে প্রচার করতে এবং মোদির সমালোচনা করতে দেখা যায় অভিনেতাকে।

হিন্দুস্তান টাইমস জানাচ্ছে, এবার ভিডিও প্রচারকারী অ্যাকাউন্টের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করেছেন রণবীর। মামলার তদন্ত চলছে বলে নিশ্চিত করেছেন রণবীরের মুখপাত্র।

অভিনেতার এআই-জেনারেটেড ক্লিপটিতে দেখা যায় কংগ্রেসকে সমর্থন করছেন তিনি। ভিডিওতে অভিনেতাকে মোদির সমালোচনা করে বলতে শোনা যায়- দেশের জনগণের সব সমস্যা এবং বেকারত্ব উদযাপন করাই কেন্দ্রীয় সরকারের মূল উদ্দেশ্য।

ভিডিওটি ছড়িয়ে পড়ার পরে ১৯ এপ্রিল নিজের এক্স অ্যাকাউন্টে রণবীর লিখেছেন, ‘ডিপফেক থেকে নিজেদের বাঁচান বন্ধুরা’।

জানা গেছে, মূল ভিডিওটি এশিয়ান নিউজ ইন্টারন্যাশনালকে (এএনআই) দেওয়া একটি সাক্ষাৎকার ছিল। সেখানে এই অভিনেতা প্রধানমন্ত্রীর প্রশংসা করেছেন।

এর আগে আমির খানের একটি ডিপফেক ভিডিও ভাইরাল হয়। যেখানে তিনি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সমালোচনা করছেন। এ ঘটনায় আমির খান থানায় মামলাও করেছেন।

কালের চিঠি/ ফাহিম

Tag :
Popular Post

কোটা বিরোধী আন্দোলনে ঢাকায় ২ শিক্ষার্থী নিহত

ডিপফেকের শিকার রণবীর, গেলেন থানায় ।

Update Time : ০৫:৫৩:৪৮ অপরাহ্ন, সোমবার, ২২ এপ্রিল ২০২৪

বলিউড অভিনেতা রণবীর সিং ডিপফেক ভিডিওর শিকার হয়েছেন। ভিডিওতে দেখা যায় কংগ্রেসের সমর্থনে প্রচার করতে এবং মোদির সমালোচনা করতে দেখা যায় অভিনেতাকে।

হিন্দুস্তান টাইমস জানাচ্ছে, এবার ভিডিও প্রচারকারী অ্যাকাউন্টের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করেছেন রণবীর। মামলার তদন্ত চলছে বলে নিশ্চিত করেছেন রণবীরের মুখপাত্র।

অভিনেতার এআই-জেনারেটেড ক্লিপটিতে দেখা যায় কংগ্রেসকে সমর্থন করছেন তিনি। ভিডিওতে অভিনেতাকে মোদির সমালোচনা করে বলতে শোনা যায়- দেশের জনগণের সব সমস্যা এবং বেকারত্ব উদযাপন করাই কেন্দ্রীয় সরকারের মূল উদ্দেশ্য।

ভিডিওটি ছড়িয়ে পড়ার পরে ১৯ এপ্রিল নিজের এক্স অ্যাকাউন্টে রণবীর লিখেছেন, ‘ডিপফেক থেকে নিজেদের বাঁচান বন্ধুরা’।

জানা গেছে, মূল ভিডিওটি এশিয়ান নিউজ ইন্টারন্যাশনালকে (এএনআই) দেওয়া একটি সাক্ষাৎকার ছিল। সেখানে এই অভিনেতা প্রধানমন্ত্রীর প্রশংসা করেছেন।

এর আগে আমির খানের একটি ডিপফেক ভিডিও ভাইরাল হয়। যেখানে তিনি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সমালোচনা করছেন। এ ঘটনায় আমির খান থানায় মামলাও করেছেন।

কালের চিঠি/ ফাহিম