রবিবার, ২১ জুলাই ২০২৪, ৬ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

এল ক্লাসিকোতে গোললাইন বিতর্ক, জবাব দিলেন আনচেলত্তি ।

রিয়াল মাদ্রিদের দুই দফায় পিছিয়ে পড়ে কামব্যাক, বার্সেলোনার চিরায়ত টিকিটাকা ফুটবল, সবমিলিয়ে জাভি-আনচেলত্তি আমলের শেষ ক্লাসিকোটা ছিল মনে রাখার মতোই। যদিও ম্যাচ ছাপিয়ে আলোচনায় গোললাইন বিতর্ক। যা নিয়ে মুখ খুললেন রিয়াল মাদ্রিদের কোচ কার্লো আনচেলত্তি।

 

দীর্ঘ ৮৮ বছর পর একই মৌসুমে রিয়ালের কাছে তিনটি এল ক্লাসিকোতে হারল বার্সা। এল ক্লাসিকোয় ম্যাচের ২৮তম মিনিটে এগিয়ে যেতে পারত বার্সেলোনা। রাফিনিয়ার কর্নার থেকে লামিনে ইয়ামালের ফ্লিক চলে যায় রিয়ালের গোললাইনে। সেখান থেকে রিয়ালের গোলকিপার আন্দ্রে লুনিন কোনোমতে বলটি বাইরে পাঠান।

যদিও বার্সেলোনার খেলোয়াড়েরা দাবি করেন, এটা গোললাইন অতিক্রম করেছে। কিন্তু রেফারি গোল না দিয়ে বার্সার পক্ষে কর্নারের সিদ্ধান্ত দেন। ঘটনার পর থেকেই সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে সমালোচনার ঝড় ওঠে। লা লিগায় গোললাইন প্রযুক্তি না থাকার সমালোচনা করেন ফুটবল সংশ্লিষ্টরাও।

ম্যাচের পর রিয়াল মাদ্রিদ কোচ কার্লো আনচেলত্তি বার্সার গোলের দাবিটি পুরোপুরি উড়িয়ে দেন। তিনি জানান, ‘এটা মোটেও গোল ছিল না। কারণ বল লাইন অতিক্রম করেনি। তবে আমাদের পেনাল্টিটি ছিল পরিষ্কার।’

অন্যদিকে, বার্সা কোচ জাভি অবিচারের শিকার হয়েছেন বলে তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়াতে জানান। এই বিষয়ে তার ভাষ্য, ‘গোললাইন প্রযুক্তি না থাকাটা অস্বস্তিকর। আমরা যদি এটিকে বিশ্বসেরা লিগে পরিণত করতে চাই, তাহলে এটা লাগবেই। সবাই দেখেছে, কী হয়েছে। আমি আর কী বলব? লিগ কর্তৃপক্ষ আমাকে শাস্তি দিতে পারে। কিন্তু ছবি তো আছে। আজ মনে হচ্ছে আমরা পুরোপুরি অবিচারের শিকার হয়েছি। আমি ম্যাচের আগে বলেছিলাম, আশা করি রেফারিং নিয়ে ভাবতে হবে না এবং তিনি সঠিক সিদ্ধান্তই দেবেন। কিন্তু দিন শেষে কোনোটাই ঘটেনি।’

এই জয়ে লা লিগায় বার্সেলোনার চেয়ে ১১ পয়েন্টের ব্যবধানে এগিয়ে গেল রিয়াল। ৩২ ম্যাচে ২৫ জয় আর ৬ ড্র’তে রিয়ালের পয়েন্ট ৮১। সমান ম্যাচে ২১ জয় ৭ ড্র’তে ৭০ পয়েন্ট নিয়ে দুইয়ে বার্সেলোনা। ৬৮ পয়েন্ট নিয়ে তিনে আছে জিরোনা আর ৬১ পয়েন্ট নিয়ে চারে অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ। এতেই ৩৬তম লা লিগা শিরোপার আরও কাছে পৌঁছে গেছে রিয়াল মাদ্রিদ।

কালের চিঠি/ ফাহিম

Tag :
Popular Post

কোটা বিরোধী আন্দোলনে ঢাকায় ২ শিক্ষার্থী নিহত

এল ক্লাসিকোতে গোললাইন বিতর্ক, জবাব দিলেন আনচেলত্তি ।

Update Time : ০৬:০১:২৬ অপরাহ্ন, সোমবার, ২২ এপ্রিল ২০২৪

রিয়াল মাদ্রিদের দুই দফায় পিছিয়ে পড়ে কামব্যাক, বার্সেলোনার চিরায়ত টিকিটাকা ফুটবল, সবমিলিয়ে জাভি-আনচেলত্তি আমলের শেষ ক্লাসিকোটা ছিল মনে রাখার মতোই। যদিও ম্যাচ ছাপিয়ে আলোচনায় গোললাইন বিতর্ক। যা নিয়ে মুখ খুললেন রিয়াল মাদ্রিদের কোচ কার্লো আনচেলত্তি।

 

দীর্ঘ ৮৮ বছর পর একই মৌসুমে রিয়ালের কাছে তিনটি এল ক্লাসিকোতে হারল বার্সা। এল ক্লাসিকোয় ম্যাচের ২৮তম মিনিটে এগিয়ে যেতে পারত বার্সেলোনা। রাফিনিয়ার কর্নার থেকে লামিনে ইয়ামালের ফ্লিক চলে যায় রিয়ালের গোললাইনে। সেখান থেকে রিয়ালের গোলকিপার আন্দ্রে লুনিন কোনোমতে বলটি বাইরে পাঠান।

যদিও বার্সেলোনার খেলোয়াড়েরা দাবি করেন, এটা গোললাইন অতিক্রম করেছে। কিন্তু রেফারি গোল না দিয়ে বার্সার পক্ষে কর্নারের সিদ্ধান্ত দেন। ঘটনার পর থেকেই সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে সমালোচনার ঝড় ওঠে। লা লিগায় গোললাইন প্রযুক্তি না থাকার সমালোচনা করেন ফুটবল সংশ্লিষ্টরাও।

ম্যাচের পর রিয়াল মাদ্রিদ কোচ কার্লো আনচেলত্তি বার্সার গোলের দাবিটি পুরোপুরি উড়িয়ে দেন। তিনি জানান, ‘এটা মোটেও গোল ছিল না। কারণ বল লাইন অতিক্রম করেনি। তবে আমাদের পেনাল্টিটি ছিল পরিষ্কার।’

অন্যদিকে, বার্সা কোচ জাভি অবিচারের শিকার হয়েছেন বলে তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়াতে জানান। এই বিষয়ে তার ভাষ্য, ‘গোললাইন প্রযুক্তি না থাকাটা অস্বস্তিকর। আমরা যদি এটিকে বিশ্বসেরা লিগে পরিণত করতে চাই, তাহলে এটা লাগবেই। সবাই দেখেছে, কী হয়েছে। আমি আর কী বলব? লিগ কর্তৃপক্ষ আমাকে শাস্তি দিতে পারে। কিন্তু ছবি তো আছে। আজ মনে হচ্ছে আমরা পুরোপুরি অবিচারের শিকার হয়েছি। আমি ম্যাচের আগে বলেছিলাম, আশা করি রেফারিং নিয়ে ভাবতে হবে না এবং তিনি সঠিক সিদ্ধান্তই দেবেন। কিন্তু দিন শেষে কোনোটাই ঘটেনি।’

এই জয়ে লা লিগায় বার্সেলোনার চেয়ে ১১ পয়েন্টের ব্যবধানে এগিয়ে গেল রিয়াল। ৩২ ম্যাচে ২৫ জয় আর ৬ ড্র’তে রিয়ালের পয়েন্ট ৮১। সমান ম্যাচে ২১ জয় ৭ ড্র’তে ৭০ পয়েন্ট নিয়ে দুইয়ে বার্সেলোনা। ৬৮ পয়েন্ট নিয়ে তিনে আছে জিরোনা আর ৬১ পয়েন্ট নিয়ে চারে অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ। এতেই ৩৬তম লা লিগা শিরোপার আরও কাছে পৌঁছে গেছে রিয়াল মাদ্রিদ।

কালের চিঠি/ ফাহিম