মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪, ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ছাতকে সংঘর্ষের আশঙ্কায় ভোর থেকে মধ্যরাত পর্যন্ত ১৪৪ ধারা জারি

সুনামগঞ্জের ছাতক উপজেলার জাউয়া বাজারের ইজারাকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের সংঘর্ষের আশঙ্কায় শনিবার ভোর ৬টা থেকে রাত ১২টা পর্যন্ত ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে। শুক্রবার (১৯ এপ্রিল) রাতে সংঘর্ষ এড়াতে ফৌজদারি কার্যধারার এক আদেশে ১৪৪ ধারা জারি করেন ছাতক উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট গোলাম মুস্তাফা মুন্না।

গোলাম মুস্তাফা মুন্না স্বাক্ষরিত ওই আদেশে বলা হয়, ছাতক উপজেলার ‘জাউয়া বাজার’ ইজারাকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের মধ্যে চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে। এতে আইন শৃঙ্খলার মারাত্মক অবনতিসহ রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের সম্ভাবনা রয়েছে। তাই ওই এলাকার নিরাপত্তার স্বার্থে এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নিজস্ব ক্ষমতাবলে ১৪৪ ধারা জারি করা হয়।

আদেশে আরও উল্লেখ করা হয়, এই সময় ওই এলাকায় সকল প্রকার আগ্নেয়াস্ত্র বহন ও প্রদর্শন, লাঠি বা দেশীয় কোন অস্ত্র বহন বা প্রদর্শন, যে কোন ধরনের মাইকিং বা শব্দযন্ত্র ব্যবহার, ০৫ (পাঁচ) বা তার অধিক সংখ্যক ব্যক্তির একত্র চলাফেরা, সভা সমাবেশ, মিছিল নিষিদ্ধ থাকবে।

 

কালের চিঠি / আলিফ

Tag :

ছাতকে সংঘর্ষের আশঙ্কায় ভোর থেকে মধ্যরাত পর্যন্ত ১৪৪ ধারা জারি

Update Time : ০৫:০৯:৫৩ অপরাহ্ন, শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪

সুনামগঞ্জের ছাতক উপজেলার জাউয়া বাজারের ইজারাকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের সংঘর্ষের আশঙ্কায় শনিবার ভোর ৬টা থেকে রাত ১২টা পর্যন্ত ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে। শুক্রবার (১৯ এপ্রিল) রাতে সংঘর্ষ এড়াতে ফৌজদারি কার্যধারার এক আদেশে ১৪৪ ধারা জারি করেন ছাতক উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট গোলাম মুস্তাফা মুন্না।

গোলাম মুস্তাফা মুন্না স্বাক্ষরিত ওই আদেশে বলা হয়, ছাতক উপজেলার ‘জাউয়া বাজার’ ইজারাকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের মধ্যে চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে। এতে আইন শৃঙ্খলার মারাত্মক অবনতিসহ রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের সম্ভাবনা রয়েছে। তাই ওই এলাকার নিরাপত্তার স্বার্থে এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নিজস্ব ক্ষমতাবলে ১৪৪ ধারা জারি করা হয়।

আদেশে আরও উল্লেখ করা হয়, এই সময় ওই এলাকায় সকল প্রকার আগ্নেয়াস্ত্র বহন ও প্রদর্শন, লাঠি বা দেশীয় কোন অস্ত্র বহন বা প্রদর্শন, যে কোন ধরনের মাইকিং বা শব্দযন্ত্র ব্যবহার, ০৫ (পাঁচ) বা তার অধিক সংখ্যক ব্যক্তির একত্র চলাফেরা, সভা সমাবেশ, মিছিল নিষিদ্ধ থাকবে।

 

কালের চিঠি / আলিফ