মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০২৪, ১ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

রূপান্তর’ বিতর্ক নিয়ে ভিডিও বার্তায় যা বললেন জোভান

প্রতিবছরই ঈদের নাটকে নজর কাড়েন অভিনেতা ফারহান আহমেদ জোভান। তবে এবার ঈদে তার অভিনীত নাটক ‘রূপান্তর’র কারণে নেটিজেনদের তোপের মুখে পড়েছেন তিনি। নাটকটি নিয়ে রীতিমতো সমালোচনার ঝড় উঠেছে নেটদুনিয়ায়।

এমনকি অভিনেতাকে নিয়ে বয়কটের ডাক দেওয়া হয়েছে সামাজিকমাধ্যমে। বলা যায়, বিষয়টি এখন টক অব দ্য টাউনে পরিণত হয়েছে। এবার ‘রূপান্তর’ বিতর্ক নিয়ে ভিডিও বার্তায় মুখ খুলেছেন জোভান।

শুক্রবার (১৯ এপ্রিল) নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক থেকে ‘রূপান্তর’ নিয়ে ভিডও বার্তায় আনুষ্ঠানিক বিবৃতি দেন জোভান। সেখানে অভিনেতা বলেন, আশা করি সবাই ভালো আছেন এবং নিজের পরিবার নিয়ে সুন্দর করে ঈদ কাটিয়েছেন। এই ঈদে আমার বেশ কিছু নাটক প্রকাশ পেয়েছে এবং প্রথম দিন থেকেই ভালো সাড়া পাচ্ছিলাম। ঈদটা আমারও সুন্দরভাবে কাটতে পারত, কিন্তু সেটি হয়নি। একটি অনাকাঙ্ক্ষিত বিষয়ে আপনারা যেমন কষ্ট পেয়েছেন তেমনই আমিও কিন্তু কষ্ট পাচ্ছি।

আমি একদমই ভালো নেই। আপনারা বুঝতেই পারছেন। কারণ, আমাকে আমার শুভাকাঙ্ক্ষীরা সাপোর্ট দেওয়ার চেষ্টা করছেন। হয়তো আমার মানসিক অবস্থা তারা বুঝতে পারছেন। এ কারণেই মনে হয়েছে আপনাদের কাছে কিছু কথা বলা দরকার।

জোভান বলেন, আমার অভিনীত ‘রূপান্তর’নাটক ঘিরে যে বিতর্ক তৈরি হয়েছে তা একেবারেই অপ্রত্যাশিত। এই নাটকের মাধ্যমে কারও ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত করার কোনো উদ্দেশ্য ছিল না। আমি নিজেও মুসলিম পরিবারের ছেলে। আমি ধর্মকে কতটা বিশ্বাস করি, আল্লাহকে কতটা শ্রদ্ধা করি সেটা শুধু আমিই জানি।

এই নাটকের মাধ্যমে কোনোকিছু প্রমোট বা প্রতিষ্ঠিত করার উদ্দেশ্য ছিল না। শুধু একটি চরিত্র প্লে করার চেষ্টা করেছি এবং সেটার মাধ্যমে এতগুলো মানুষকে কষ্ট দিয়েছি। সেজন্য আমি আন্তরিকভাবে দুঃখিত। আমি মনে-প্রাণে আপনাদের সবার কাছে আন্তরিকভাবে দুঃখ প্রকাশ করছি।

তিনি আরও বলেন, আমি ১১ বছর ধরে নাটক করছি। আজ আমার যে অবস্থান এর জন্য আমার একার অবদান নেই। দর্শকের ভালোবাসা ও সমর্থন ছিল বলেই এই অবস্থানে আসতে পেরেছি। আমার কাজ করার মূল উদ্দেশ্য হচ্ছে দর্শকে একটু বিনোদন দেওয়া, তাদের খুশি করা। এজন্যই এত কষ্ট করি আমি।

সবশেষে জোভান বলেন, ভবিষ্যতে চরিত্র বাছাইয়ের ক্ষেত্রে আরেকটু বেশি সচেতন থাকব আমি। যেন ভক্তরা কোনোভাবেই মনঃক্ষুণ্ন না হন। কষ্ট না পান। আমি আপনাদের কথা দিচ্ছি, আমার যে কাজগুলো আপনাদের এতদিন ভালো লেগেছে তার থেকেও ভালো কাজ উপহার দেব। শুধু একটাই অনুরোধ আমার ওপর কোনো কষ্ট রাখবেন না। আমার জন্য দোয়া করবেন এবং সবাই ভালো থাকবেন।

এর আগে নাটকটি নিয়ে গণমাধ্যমে জোভান বলেছিলেন, আমি বুঝতে পারছি না, নাটকটি নিয়ে কেন এত সমালোচনা! নাটকটির ভিউ নব্বই হাজার হয়েছিল। কিন্তু বাকি মানুষ তো দেখেনি। আমার কাছে মনে হয় তারা নাটকটি না দেখেই সমালোচনা করছে। এ নিয়ে ঘোরের মধ্যে আছি আমি। বুঝতে পারছি না, ঠিক কী হচ্ছে।

প্রসঙ্গত, ১৫ এপ্রিল সন্ধ্যা ৭টায় উন্মুক্ত করা হয় ইউটিউবে প্রকাশ করা হয় ‘রূপান্তর’। মূলত ট্রান্সজেন্ডার ইস্যু নিয়ে বানানো হয়েছে নাটকটি। হরমোনজনিত কারণে একজন মানুষের একা হয়ে যাওয়ার গল্প মেলে ধরা হয়েছে এই নাটকে। এটি নির্মাণ করেছেন রাফাত মজুমদার রিংকু। তবে সমালোচনার কারণে গত ১৬ এপ্রিল ইউটিউব থেকে সরিয়ে নেওয়া হয় নাটকটি।

কালের চিঠি/ ফাহিম

Tag :
Popular Post

বেরোবিতে কোঠা ইস্যুতে আন্দোলনকারীদের ওপর ছাত্রলীগের হামলা

রূপান্তর’ বিতর্ক নিয়ে ভিডিও বার্তায় যা বললেন জোভান

Update Time : ১১:০৫:৫৫ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪

প্রতিবছরই ঈদের নাটকে নজর কাড়েন অভিনেতা ফারহান আহমেদ জোভান। তবে এবার ঈদে তার অভিনীত নাটক ‘রূপান্তর’র কারণে নেটিজেনদের তোপের মুখে পড়েছেন তিনি। নাটকটি নিয়ে রীতিমতো সমালোচনার ঝড় উঠেছে নেটদুনিয়ায়।

এমনকি অভিনেতাকে নিয়ে বয়কটের ডাক দেওয়া হয়েছে সামাজিকমাধ্যমে। বলা যায়, বিষয়টি এখন টক অব দ্য টাউনে পরিণত হয়েছে। এবার ‘রূপান্তর’ বিতর্ক নিয়ে ভিডিও বার্তায় মুখ খুলেছেন জোভান।

শুক্রবার (১৯ এপ্রিল) নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক থেকে ‘রূপান্তর’ নিয়ে ভিডও বার্তায় আনুষ্ঠানিক বিবৃতি দেন জোভান। সেখানে অভিনেতা বলেন, আশা করি সবাই ভালো আছেন এবং নিজের পরিবার নিয়ে সুন্দর করে ঈদ কাটিয়েছেন। এই ঈদে আমার বেশ কিছু নাটক প্রকাশ পেয়েছে এবং প্রথম দিন থেকেই ভালো সাড়া পাচ্ছিলাম। ঈদটা আমারও সুন্দরভাবে কাটতে পারত, কিন্তু সেটি হয়নি। একটি অনাকাঙ্ক্ষিত বিষয়ে আপনারা যেমন কষ্ট পেয়েছেন তেমনই আমিও কিন্তু কষ্ট পাচ্ছি।

আমি একদমই ভালো নেই। আপনারা বুঝতেই পারছেন। কারণ, আমাকে আমার শুভাকাঙ্ক্ষীরা সাপোর্ট দেওয়ার চেষ্টা করছেন। হয়তো আমার মানসিক অবস্থা তারা বুঝতে পারছেন। এ কারণেই মনে হয়েছে আপনাদের কাছে কিছু কথা বলা দরকার।

জোভান বলেন, আমার অভিনীত ‘রূপান্তর’নাটক ঘিরে যে বিতর্ক তৈরি হয়েছে তা একেবারেই অপ্রত্যাশিত। এই নাটকের মাধ্যমে কারও ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত করার কোনো উদ্দেশ্য ছিল না। আমি নিজেও মুসলিম পরিবারের ছেলে। আমি ধর্মকে কতটা বিশ্বাস করি, আল্লাহকে কতটা শ্রদ্ধা করি সেটা শুধু আমিই জানি।

এই নাটকের মাধ্যমে কোনোকিছু প্রমোট বা প্রতিষ্ঠিত করার উদ্দেশ্য ছিল না। শুধু একটি চরিত্র প্লে করার চেষ্টা করেছি এবং সেটার মাধ্যমে এতগুলো মানুষকে কষ্ট দিয়েছি। সেজন্য আমি আন্তরিকভাবে দুঃখিত। আমি মনে-প্রাণে আপনাদের সবার কাছে আন্তরিকভাবে দুঃখ প্রকাশ করছি।

তিনি আরও বলেন, আমি ১১ বছর ধরে নাটক করছি। আজ আমার যে অবস্থান এর জন্য আমার একার অবদান নেই। দর্শকের ভালোবাসা ও সমর্থন ছিল বলেই এই অবস্থানে আসতে পেরেছি। আমার কাজ করার মূল উদ্দেশ্য হচ্ছে দর্শকে একটু বিনোদন দেওয়া, তাদের খুশি করা। এজন্যই এত কষ্ট করি আমি।

সবশেষে জোভান বলেন, ভবিষ্যতে চরিত্র বাছাইয়ের ক্ষেত্রে আরেকটু বেশি সচেতন থাকব আমি। যেন ভক্তরা কোনোভাবেই মনঃক্ষুণ্ন না হন। কষ্ট না পান। আমি আপনাদের কথা দিচ্ছি, আমার যে কাজগুলো আপনাদের এতদিন ভালো লেগেছে তার থেকেও ভালো কাজ উপহার দেব। শুধু একটাই অনুরোধ আমার ওপর কোনো কষ্ট রাখবেন না। আমার জন্য দোয়া করবেন এবং সবাই ভালো থাকবেন।

এর আগে নাটকটি নিয়ে গণমাধ্যমে জোভান বলেছিলেন, আমি বুঝতে পারছি না, নাটকটি নিয়ে কেন এত সমালোচনা! নাটকটির ভিউ নব্বই হাজার হয়েছিল। কিন্তু বাকি মানুষ তো দেখেনি। আমার কাছে মনে হয় তারা নাটকটি না দেখেই সমালোচনা করছে। এ নিয়ে ঘোরের মধ্যে আছি আমি। বুঝতে পারছি না, ঠিক কী হচ্ছে।

প্রসঙ্গত, ১৫ এপ্রিল সন্ধ্যা ৭টায় উন্মুক্ত করা হয় ইউটিউবে প্রকাশ করা হয় ‘রূপান্তর’। মূলত ট্রান্সজেন্ডার ইস্যু নিয়ে বানানো হয়েছে নাটকটি। হরমোনজনিত কারণে একজন মানুষের একা হয়ে যাওয়ার গল্প মেলে ধরা হয়েছে এই নাটকে। এটি নির্মাণ করেছেন রাফাত মজুমদার রিংকু। তবে সমালোচনার কারণে গত ১৬ এপ্রিল ইউটিউব থেকে সরিয়ে নেওয়া হয় নাটকটি।

কালের চিঠি/ ফাহিম