রবিবার, ১৬ জুন ২০২৪, ১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

শরিফুল-তাসকিনের গতিতে আবাহনীর বিশাল জয় ।

ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে আরও একবার গতির ঝলক দেখালেন আবাহনী লিমিটেডের বোলাররা। শরিফুল ইসলাম ও তাসকিন আহমেদরা মিলে ধসিয়ে দিলেন শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাবকে। দুই তারকার গতিতে ভর করে শেখ জামালকে স্রেফ উড়িয়ে দিল শিরোপার দৌড়ে থাকা আবাহনী লিমিটেড।

আজ বৃহস্পতিবার প্রিমিয়ার লিগে শেখ জামালকে ১০ উইকেটের বড় ব্যবধানে হারিয়েছে আবাহনী। বর্তমান চ্যাম্পিয়ন আবাহনীর সঙ্গে রানার্সআপ শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাবের লড়াইকে নিয়ে উত্তাপ ছিল অনেক। কথার লড়াইয়ে আঁচও ছিল যথেষ্ট। কিন্তু মাঠে সেই আঁচ দেখা গেল না একটুও। বরং দাপটে জয়ে শিরোপার পথে এগিয়ে গেল আবাহনী। এই নিয়ে ১১ ম্যাচের সবকটি জিতে পূর্ণ ২২ পয়েন্ট নিয়ে সুপার লিগ শুরু করবে আবাহনী। শেখ জামালের পয়েন্ট ১৬।

মিরপুর শেরে বাংলা স্টেডিয়ামে এদিন আগে ব্যাট করতে নামা শেখ জামালকে মাত্র ৮৮ রানে থামিয়ে দেয় আবাহনী। যেখানে বল হাতে বড় ভূমিকা রাখেন শরিফুল। সাত ওভার বোলিং করে মাত্র ৩৪ রান দিয়ে তিনি তুলে নেন ৪টি উইকেট। সঙ্গে দারুণ করেন তাসকিন আহমেদ-তানভীর ইসলামরাও। তাসকিন মাত্র ১৬ রান দিয়ে নেন দুই উইকেট। তানভীর ছিলেন আরও কিপটে। তিনি দুই উইকেট নিতে দেন মাত্র ৭ রান।

ছোট লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে আবাহনীর সময় লেগেছে স্রেফ ১০.২ ওভার। ওপেনিং জুটিতে মোহাম্মদ নাঈম শেখের হাফসেঞ্চুরি ও এনামুলক হক বিজয়ের দৃঢ়তায় সহজেই ম্যাচ নিজেদের করে নেয় আবাহনী। ব্যাট হাতে ৫৩ রান করেন নাঈম শেখ। তার সঙ্গে ৩৭ রানে অপরাজিত ছিলেন এনামুল।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাব: ২২.৪ ওভারে ৮৮ (সাইফ ১৬, সৈকত ২৩, রবিউল ৪, ফজলে মাহমুদ ১, সোহান ০, তাইবুর ১৪, ইয়াসির ১৭, জিয়াউর ২, ইয়াসিন ১, মেহেদি ০*, শফিকুল ০; শফিকুল ৭-১-৩৫-৪, তাসকিন ৫-১-১৬-২, তানজিম ৪-০-২২-১, তানভির ৪.৪-০-৭-২, মোসাদ্দেক ২-০-৫-১)।

আবাহনী লিমিটেড: ১০.২ ওভারে ৯১/০ (এনামুল ৩৭*, নাঈম ৫৩*; শফিকুল ৩-০-১৮-০, ইয়াসিন ৩-০-২৩-০, মেহেদি ৩-০-৩৪-০, রবিউল ১-০-৯-০, ফজলে মাহমুদ ০.২-০-৬-০)।

ফল: আবাহনী লিমিটেড ১০ উইকেটে জয়ী।

কালের চিঠি/ ফাহিম

Tag :

শরিফুল-তাসকিনের গতিতে আবাহনীর বিশাল জয় ।

Update Time : ০৫:৪৩:৪১ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪

ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে আরও একবার গতির ঝলক দেখালেন আবাহনী লিমিটেডের বোলাররা। শরিফুল ইসলাম ও তাসকিন আহমেদরা মিলে ধসিয়ে দিলেন শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাবকে। দুই তারকার গতিতে ভর করে শেখ জামালকে স্রেফ উড়িয়ে দিল শিরোপার দৌড়ে থাকা আবাহনী লিমিটেড।

আজ বৃহস্পতিবার প্রিমিয়ার লিগে শেখ জামালকে ১০ উইকেটের বড় ব্যবধানে হারিয়েছে আবাহনী। বর্তমান চ্যাম্পিয়ন আবাহনীর সঙ্গে রানার্সআপ শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাবের লড়াইকে নিয়ে উত্তাপ ছিল অনেক। কথার লড়াইয়ে আঁচও ছিল যথেষ্ট। কিন্তু মাঠে সেই আঁচ দেখা গেল না একটুও। বরং দাপটে জয়ে শিরোপার পথে এগিয়ে গেল আবাহনী। এই নিয়ে ১১ ম্যাচের সবকটি জিতে পূর্ণ ২২ পয়েন্ট নিয়ে সুপার লিগ শুরু করবে আবাহনী। শেখ জামালের পয়েন্ট ১৬।

মিরপুর শেরে বাংলা স্টেডিয়ামে এদিন আগে ব্যাট করতে নামা শেখ জামালকে মাত্র ৮৮ রানে থামিয়ে দেয় আবাহনী। যেখানে বল হাতে বড় ভূমিকা রাখেন শরিফুল। সাত ওভার বোলিং করে মাত্র ৩৪ রান দিয়ে তিনি তুলে নেন ৪টি উইকেট। সঙ্গে দারুণ করেন তাসকিন আহমেদ-তানভীর ইসলামরাও। তাসকিন মাত্র ১৬ রান দিয়ে নেন দুই উইকেট। তানভীর ছিলেন আরও কিপটে। তিনি দুই উইকেট নিতে দেন মাত্র ৭ রান।

ছোট লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে আবাহনীর সময় লেগেছে স্রেফ ১০.২ ওভার। ওপেনিং জুটিতে মোহাম্মদ নাঈম শেখের হাফসেঞ্চুরি ও এনামুলক হক বিজয়ের দৃঢ়তায় সহজেই ম্যাচ নিজেদের করে নেয় আবাহনী। ব্যাট হাতে ৫৩ রান করেন নাঈম শেখ। তার সঙ্গে ৩৭ রানে অপরাজিত ছিলেন এনামুল।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাব: ২২.৪ ওভারে ৮৮ (সাইফ ১৬, সৈকত ২৩, রবিউল ৪, ফজলে মাহমুদ ১, সোহান ০, তাইবুর ১৪, ইয়াসির ১৭, জিয়াউর ২, ইয়াসিন ১, মেহেদি ০*, শফিকুল ০; শফিকুল ৭-১-৩৫-৪, তাসকিন ৫-১-১৬-২, তানজিম ৪-০-২২-১, তানভির ৪.৪-০-৭-২, মোসাদ্দেক ২-০-৫-১)।

আবাহনী লিমিটেড: ১০.২ ওভারে ৯১/০ (এনামুল ৩৭*, নাঈম ৫৩*; শফিকুল ৩-০-১৮-০, ইয়াসিন ৩-০-২৩-০, মেহেদি ৩-০-৩৪-০, রবিউল ১-০-৯-০, ফজলে মাহমুদ ০.২-০-৬-০)।

ফল: আবাহনী লিমিটেড ১০ উইকেটে জয়ী।

কালের চিঠি/ ফাহিম