শুক্রবার, ১২ জুলাই ২০২৪, ২৮ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সোহানের ফিফটিতে দুর্দান্ত জয় শেখ জামালের ।

ঈদের ছুটি শেষে আবারও শুরু হয়েছে শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাবের জয়রথ। ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের (ডিপিএল) দশম রাউন্ডের খেলা শুরুর প্রথম দিনে পারটেক্স স্পোর্টিং ক্লাবকে ৫ উইকেটে হারিয়েছে শেখ জামাল। দুর্দান্ত ফিফটি হাঁকিয়ে দলকে জয় উপহার দিয়েছেন অধিনায়ক নুরুল হাসান সোহান।

সোমবার (১৫ এপ্রিল) নারায়ণগঞ্জের খান সাহেব ওসমান আলী স্টেডিয়ামে টস জিতে ব্যাট করতে নেমে ১০ বল বাকি থাকতেই ২০৫ রানে অলআউট হয়ে যায় পারটেক্স। জবাবে ব্যাট করতে নেমে ৪ ওভার বাকি থাকতেই ৫ উইকেটের জয় পায় শেখ জামাল।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে ৬১ বলে ৪১ রানের ইনিংস খেলে দলকে মোটামুটি একটি অবস্থানে নিয়ে যান সৈকত আলি। বাকি কাজটি করেন অধিনায়ক সোহান ও ৭ নম্বরে ব্যাট করতে নামা তাইবুর রহমান। ষষ্ঠ উইকেটে ১০৫ রানের দারুণ জুটি করেন তারা।

৭৫ বলে ৭৬ রানের অপরাজিত ইনিংস খেলেন সোহান। তার ইনিংসে ছিল ৮ বাউন্ডারি আর ২ ছক্কার মার। ৬৩ বলে ৩৯ রান করে বিজয়ী বেশে মাঠ ছাড়েন তাইবুর।

এর আগে পারটেক্সের হয়ে সর্বোচ্চ ৩৯ বলে ৩৫ রান করেন আহরার আমিন। ৪৯ বলে ৩২ রানের ইনিংস খেলেন উইকেটরক্ষক ব্যাটার জাহিদুজ্জামান খান। এছাড়া তানভীর হায়দার ৩০ ও আজমির আহমেদ ২৫ রান করেন।

বাকিরা উইকেট মিছিল শুরু করলে ১০ বল বাকি থাকতেই ২০৫ রানে অলআউট হয়ে যায় পারটেক্স।

এই ম্যাচে শেখ জামালের একাদশে ছিলেন না টাইগার অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। সব কিছু ঠিক থাকলে পরের ম্যাচে দেখা যেতে পারে দেশসেরা এই ক্রিকেটারকে।

কালের চিঠি/ ফাহিম

Tag :
Popular Post

বালু ব্যবসায়ীর মিথ্যা মামলায় সাংবাদিক কারাগারে

সোহানের ফিফটিতে দুর্দান্ত জয় শেখ জামালের ।

Update Time : ০১:৩৩:৫০ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪

ঈদের ছুটি শেষে আবারও শুরু হয়েছে শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাবের জয়রথ। ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের (ডিপিএল) দশম রাউন্ডের খেলা শুরুর প্রথম দিনে পারটেক্স স্পোর্টিং ক্লাবকে ৫ উইকেটে হারিয়েছে শেখ জামাল। দুর্দান্ত ফিফটি হাঁকিয়ে দলকে জয় উপহার দিয়েছেন অধিনায়ক নুরুল হাসান সোহান।

সোমবার (১৫ এপ্রিল) নারায়ণগঞ্জের খান সাহেব ওসমান আলী স্টেডিয়ামে টস জিতে ব্যাট করতে নেমে ১০ বল বাকি থাকতেই ২০৫ রানে অলআউট হয়ে যায় পারটেক্স। জবাবে ব্যাট করতে নেমে ৪ ওভার বাকি থাকতেই ৫ উইকেটের জয় পায় শেখ জামাল।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে ৬১ বলে ৪১ রানের ইনিংস খেলে দলকে মোটামুটি একটি অবস্থানে নিয়ে যান সৈকত আলি। বাকি কাজটি করেন অধিনায়ক সোহান ও ৭ নম্বরে ব্যাট করতে নামা তাইবুর রহমান। ষষ্ঠ উইকেটে ১০৫ রানের দারুণ জুটি করেন তারা।

৭৫ বলে ৭৬ রানের অপরাজিত ইনিংস খেলেন সোহান। তার ইনিংসে ছিল ৮ বাউন্ডারি আর ২ ছক্কার মার। ৬৩ বলে ৩৯ রান করে বিজয়ী বেশে মাঠ ছাড়েন তাইবুর।

এর আগে পারটেক্সের হয়ে সর্বোচ্চ ৩৯ বলে ৩৫ রান করেন আহরার আমিন। ৪৯ বলে ৩২ রানের ইনিংস খেলেন উইকেটরক্ষক ব্যাটার জাহিদুজ্জামান খান। এছাড়া তানভীর হায়দার ৩০ ও আজমির আহমেদ ২৫ রান করেন।

বাকিরা উইকেট মিছিল শুরু করলে ১০ বল বাকি থাকতেই ২০৫ রানে অলআউট হয়ে যায় পারটেক্স।

এই ম্যাচে শেখ জামালের একাদশে ছিলেন না টাইগার অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। সব কিছু ঠিক থাকলে পরের ম্যাচে দেখা যেতে পারে দেশসেরা এই ক্রিকেটারকে।

কালের চিঠি/ ফাহিম