মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪, ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

পদ্মা সেতুতে ৫ দিনে সাড়ে ১৪ কোটি টাকার বেশি টোল আদায়

এবার ঈদের ছুটিতে গত ৯ থেকে ১৩ এপ্রিল পর্যন্ত ৫ দিনে ৪৬ হাজার ৫৫৩ টি যানবাহন পারাপার হয়েছে পদ্মা সেতু দুই প্রান্তে এতে সেতুর মাওয়া এবং জাজিরা প্রান্তে টোল আদায় করা হয়েছে ১৪ কোটি ৬০ লাখ ৫২ হাজার ৭০০ টাকা।

বাংলাদেশ সেতু কর্তৃপক্ষ সূত্রে জানা গেছে, মাওয়া প্রান্ত দিয়ে ৯ এপ্রিল ৩০ হাজার ৩৩০টি, ১০ এপ্রিল ১৭ হাজার ৫০৫ টি, ১১ এপ্রিল ১১ হাজার ১৯৪ টি, ১২ এপ্রিল ১৫ হাজার ৮৮৩ টি এবং ১৩ এপ্রিল ১২ হাজার ৮৯৬ টি যানবাহন পদ্মা সেতু পার হয়েছে। এতে মাওয়া প্রান্ত থেকে এ পাঁচ দিনে টোল আদায় হয়েছে ৭ কোটি ৮৭ লাখ ১৮ হাজার ৫৫০ টাকা।

অন্যদিকে জাজিরা প্রান্ত দিয়ে ৫ দিনে যথাক্রমে ৯ এপ্রিল ১৪ হাজার ৮৭৪ টি, ১০ এপ্রিল ৮ হাজার ৫১০ টি, ১১ এপ্রিল ৭ হাজার ৪৬৫ টি, ১২ এপ্রিল ১২ হাজার ১০০ টি এবং ১৩ এপ্রিল ১৫ হাজার ৫৯৬ টি যানবাহন পদ্মাসেতু পার হয়েছে। এতে জাজিরা প্রান্তে টোল আদায় হয়েছে মোট ৬ কোটি ৭৭ লাখ ৩৪ হাজার ১৫০ টাকা।

পদ্মা সেতু কর্তৃপক্ষের অতিরিক্ত পরিচালক আমিরুল হায়দার চৌধুরী এসব তথ্য নিশ্চিত করে জানান, এবার ঈদযাত্রায় ৯ তারিখ থেকে ১৩ তারিখ পর্যন্ত ৫ দিনে ১৪ কোটি টাকার উপরে টোল আদায় হয়েছে সেতুর দুই প্রান্তের টোল প্লাজার ১৪ টি বুথে।

তিনি আরও বলেন,৫দিনে ১ লাখ ৪৬ হাজার ৫৫৩টি যানবাহন পারাপার হয়েছে সেতুতে, এতে এই পাঁচ দিনে সেতুর মাওয়া ও জাজিরা প্রান্তে টোল আদায় হয়েছে ১৪ কোটি ৬০ লাখ ৫২ হাজার ৭০০ টাকা।

তবে গত বছরের তুলনায় যানবাহন ও টোল আদায়ের পরিমাণ কম হলেও এবার ঈদের আগে সর্বোচ্চ ৪ কোটি ৮৯ লাখ ৯৪ হাজার ৭০০ টাকা টোল আদায়ের রেকর্ড হয়।

তবে সেতু কর্তৃপক্ষ জানায়,২০২২ সালের ২৫ জুন পদ্মা সেতু উদ্বোধনের পরদিন ২৬ জুন যানবাহন পারাপারের জন্য সেতুটি খুলে দেওয়া হয়। সেদিন পদ্মা সেতু দিয়ে ৫১ হাজার ৩১৬ যানবাহন পাড়ি দেয়। এ পর্যন্ত পদ্মা সেতু দিয়ে এটিই সর্বোচ্চ যানবাহন পারাপারের রেকর্ড।

তবে,এবারের ঈদের ছুটিতে পারাপার হওয়া যানবাহন সংখ্যার দিক দিয়ে দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে। পদ্মা সেতু চালু হওয়ার পর থেকে এক মিনিটের জন্য সেতুতে যান পারাপার বন্ধ হয়নি।

ফলে নির্বিঘ্নে পদ্মা সেতু হয়ে দেশের দক্ষিণ – পশ্চিমাঞ্চলের ২১ জেলার মানুষ যাতায়াত করতে পারছে। অন্যদিকে এবার ঈদে ঘরমুখো মানুষের নতুন মাত্রা যোগ হয়েছে ঈদ যাত্রায় ট্রেনে করে প্রমত্তা পদ্মা পাড়ি দেয়ার।

সেতু বিভাগের তথ্য অনুযায়ী,এবার ঈদে পদ্মা সেতু দিয়ে যানবাহন পারাপার গত বছরের তুলনায় কমেছে। সেই সঙ্গে কমেছে টোল আদায়ের পরিমাণও। গত ঈদুল ফিতরের সময় ২০ এপ্রিল থেকে ২৪ এপ্রিল পর্যন্ত ১ লাখ ৬৩ হাজার ৭৭৮টি যানবাহন পারাপার হয়। এতে টোল আদায় ১৪ কোটি ৬১ লাখ ৬৬ হাজার ৫৫০ টাকা। এ বছরের হিসাবে যানবাহন কমেছে ১৭ হাজার ২২৫টি। টোলের পরিমাণও কমেছে গত বছরের তুলনায় ১ লাখ ১৩ হাজার ৮৫০ টাকা।

এদিকে পদ্মা সেতু দিয়ে এই পর্যন্ত সর্বমোট টোল আদায় হয়েছে ১৪ শ’ ৬৬ কোটি ১৬ লাখ ০৩ হাজার টাকা। আর সর্বমোট যানবাহন পারাপার হয়েছে ১ কোটি ৯ লাখ ৯১ হাজার ৯৩৭ টি।

উল্লেখ্য: ২০২২ সালের ২৫ জুন বহুল কাঙ্ক্ষিত বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় স্থাপনা পদ্মা সেতুর উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ৩০ হাজার ১৯৩ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত ৬ দশমিক ১৫ কিলোমিটার দীর্ঘ পদ্মা বহুমুখী সেতু উদ্বোধনের পর থেকে দক্ষিণ ও পশ্চিমাঞ্চলের ২১ জেলা ও দেশের সার্বিক অর্থনৈতিক উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখে চলেছে।

কালের চিঠি / আশিকুর।

Tag :

পদ্মা সেতুতে ৫ দিনে সাড়ে ১৪ কোটি টাকার বেশি টোল আদায়

Update Time : ০১:৩৭:১১ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪

এবার ঈদের ছুটিতে গত ৯ থেকে ১৩ এপ্রিল পর্যন্ত ৫ দিনে ৪৬ হাজার ৫৫৩ টি যানবাহন পারাপার হয়েছে পদ্মা সেতু দুই প্রান্তে এতে সেতুর মাওয়া এবং জাজিরা প্রান্তে টোল আদায় করা হয়েছে ১৪ কোটি ৬০ লাখ ৫২ হাজার ৭০০ টাকা।

বাংলাদেশ সেতু কর্তৃপক্ষ সূত্রে জানা গেছে, মাওয়া প্রান্ত দিয়ে ৯ এপ্রিল ৩০ হাজার ৩৩০টি, ১০ এপ্রিল ১৭ হাজার ৫০৫ টি, ১১ এপ্রিল ১১ হাজার ১৯৪ টি, ১২ এপ্রিল ১৫ হাজার ৮৮৩ টি এবং ১৩ এপ্রিল ১২ হাজার ৮৯৬ টি যানবাহন পদ্মা সেতু পার হয়েছে। এতে মাওয়া প্রান্ত থেকে এ পাঁচ দিনে টোল আদায় হয়েছে ৭ কোটি ৮৭ লাখ ১৮ হাজার ৫৫০ টাকা।

অন্যদিকে জাজিরা প্রান্ত দিয়ে ৫ দিনে যথাক্রমে ৯ এপ্রিল ১৪ হাজার ৮৭৪ টি, ১০ এপ্রিল ৮ হাজার ৫১০ টি, ১১ এপ্রিল ৭ হাজার ৪৬৫ টি, ১২ এপ্রিল ১২ হাজার ১০০ টি এবং ১৩ এপ্রিল ১৫ হাজার ৫৯৬ টি যানবাহন পদ্মাসেতু পার হয়েছে। এতে জাজিরা প্রান্তে টোল আদায় হয়েছে মোট ৬ কোটি ৭৭ লাখ ৩৪ হাজার ১৫০ টাকা।

পদ্মা সেতু কর্তৃপক্ষের অতিরিক্ত পরিচালক আমিরুল হায়দার চৌধুরী এসব তথ্য নিশ্চিত করে জানান, এবার ঈদযাত্রায় ৯ তারিখ থেকে ১৩ তারিখ পর্যন্ত ৫ দিনে ১৪ কোটি টাকার উপরে টোল আদায় হয়েছে সেতুর দুই প্রান্তের টোল প্লাজার ১৪ টি বুথে।

তিনি আরও বলেন,৫দিনে ১ লাখ ৪৬ হাজার ৫৫৩টি যানবাহন পারাপার হয়েছে সেতুতে, এতে এই পাঁচ দিনে সেতুর মাওয়া ও জাজিরা প্রান্তে টোল আদায় হয়েছে ১৪ কোটি ৬০ লাখ ৫২ হাজার ৭০০ টাকা।

তবে গত বছরের তুলনায় যানবাহন ও টোল আদায়ের পরিমাণ কম হলেও এবার ঈদের আগে সর্বোচ্চ ৪ কোটি ৮৯ লাখ ৯৪ হাজার ৭০০ টাকা টোল আদায়ের রেকর্ড হয়।

তবে সেতু কর্তৃপক্ষ জানায়,২০২২ সালের ২৫ জুন পদ্মা সেতু উদ্বোধনের পরদিন ২৬ জুন যানবাহন পারাপারের জন্য সেতুটি খুলে দেওয়া হয়। সেদিন পদ্মা সেতু দিয়ে ৫১ হাজার ৩১৬ যানবাহন পাড়ি দেয়। এ পর্যন্ত পদ্মা সেতু দিয়ে এটিই সর্বোচ্চ যানবাহন পারাপারের রেকর্ড।

তবে,এবারের ঈদের ছুটিতে পারাপার হওয়া যানবাহন সংখ্যার দিক দিয়ে দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে। পদ্মা সেতু চালু হওয়ার পর থেকে এক মিনিটের জন্য সেতুতে যান পারাপার বন্ধ হয়নি।

ফলে নির্বিঘ্নে পদ্মা সেতু হয়ে দেশের দক্ষিণ – পশ্চিমাঞ্চলের ২১ জেলার মানুষ যাতায়াত করতে পারছে। অন্যদিকে এবার ঈদে ঘরমুখো মানুষের নতুন মাত্রা যোগ হয়েছে ঈদ যাত্রায় ট্রেনে করে প্রমত্তা পদ্মা পাড়ি দেয়ার।

সেতু বিভাগের তথ্য অনুযায়ী,এবার ঈদে পদ্মা সেতু দিয়ে যানবাহন পারাপার গত বছরের তুলনায় কমেছে। সেই সঙ্গে কমেছে টোল আদায়ের পরিমাণও। গত ঈদুল ফিতরের সময় ২০ এপ্রিল থেকে ২৪ এপ্রিল পর্যন্ত ১ লাখ ৬৩ হাজার ৭৭৮টি যানবাহন পারাপার হয়। এতে টোল আদায় ১৪ কোটি ৬১ লাখ ৬৬ হাজার ৫৫০ টাকা। এ বছরের হিসাবে যানবাহন কমেছে ১৭ হাজার ২২৫টি। টোলের পরিমাণও কমেছে গত বছরের তুলনায় ১ লাখ ১৩ হাজার ৮৫০ টাকা।

এদিকে পদ্মা সেতু দিয়ে এই পর্যন্ত সর্বমোট টোল আদায় হয়েছে ১৪ শ’ ৬৬ কোটি ১৬ লাখ ০৩ হাজার টাকা। আর সর্বমোট যানবাহন পারাপার হয়েছে ১ কোটি ৯ লাখ ৯১ হাজার ৯৩৭ টি।

উল্লেখ্য: ২০২২ সালের ২৫ জুন বহুল কাঙ্ক্ষিত বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় স্থাপনা পদ্মা সেতুর উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ৩০ হাজার ১৯৩ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত ৬ দশমিক ১৫ কিলোমিটার দীর্ঘ পদ্মা বহুমুখী সেতু উদ্বোধনের পর থেকে দক্ষিণ ও পশ্চিমাঞ্চলের ২১ জেলা ও দেশের সার্বিক অর্থনৈতিক উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখে চলেছে।

কালের চিঠি / আশিকুর।