রবিবার, ১৬ জুন ২০২৪, ১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

দেশসেরা পাঁচ নারী ক্রীড়াবিদকে সংবর্ধনা ।

সাতক্ষীরা জেলা মহিলা ক্রীড়া সংস্থার সভাপতি জেসমিন জাহান বলেছেন, দেশের মর্যাদা রক্ষায় যে সন্তানেরা কাজ করে যাচ্ছেন তারা সম্পদ। এসব সম্পদকে পরিচর্যা করতে হবে আগামীতে আরও কৃতি খেলোয়াড় তৈরির জন্য। শনিবার (১৩ এপ্রিল) বিকেলে জেলা প্রশাসকের বাংলো নীহারিকার কনফারেন্স রুমে ৫ কৃতি নারী খেলোয়াড়কে সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে সভাপ্রধানের বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

সংবর্ধনা পাওয়া ক্রীড়াবিদরা হলেন-বাংলাদেশ জাতীয় মহিলা ফুটবল দলের ক্যাপ্টেন সাবিনা খাতুন, ষোলবার দ্রুততম মানবীর খেতাবপ্রাপ্ত অ্যাথলেট এবং দেশের দ্রুততম মানবী শিরিন আক্তার, অনূর্ধ্ব-১৯ জাতীয় মহিলা ফুটবল দলের ক্যাপ্টেন আফঈদা খন্দকার প্রান্তি, বক্সিংয়ে গোল্ড মেডেলপ্রাপ্ত বক্সার আফরা খন্দকার প্রাপ্তি এবং বাংলাদেশ জাতীয় মহিলা ফুটবল দলের ডিফেন্ডার মোছা. মাছুরা খাতুন।

জেসমিন জাহান বলেন, সাতক্ষীরার মেয়েরা দেশের মহিলা ক্রীড়াঙ্গনের রোল মডেল। এখানকার মেয়েদের সাফল্য বাংলাদেশকে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে সম্মান এনে দিয়েছে। দেশের সবার কাছে সাতক্ষীরার ভাবমূর্তি উজ্জ্বল করেছে।

তিনি আরও বলেন, জেলার মানুষকে যা গর্ব করার সুযোগ করে দিয়েছে। বৈষম্য নয়, নারীরা যেন ক্রীড়াক্ষেত্র থেকে শুরু করে সবজায়গাতেই সমান অধিকার পায়, সেটা নিশ্চিত করা জরুরি।
এসময় জেলা মহিলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক ফারহা দিবা খান সাথীসহ অন্যরা উপস্থিত ছিলেন।

কালের চিঠি/ ফাহিম

Tag :

দেশসেরা পাঁচ নারী ক্রীড়াবিদকে সংবর্ধনা ।

Update Time : ০৩:৪৫:১৩ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪

সাতক্ষীরা জেলা মহিলা ক্রীড়া সংস্থার সভাপতি জেসমিন জাহান বলেছেন, দেশের মর্যাদা রক্ষায় যে সন্তানেরা কাজ করে যাচ্ছেন তারা সম্পদ। এসব সম্পদকে পরিচর্যা করতে হবে আগামীতে আরও কৃতি খেলোয়াড় তৈরির জন্য। শনিবার (১৩ এপ্রিল) বিকেলে জেলা প্রশাসকের বাংলো নীহারিকার কনফারেন্স রুমে ৫ কৃতি নারী খেলোয়াড়কে সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে সভাপ্রধানের বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

সংবর্ধনা পাওয়া ক্রীড়াবিদরা হলেন-বাংলাদেশ জাতীয় মহিলা ফুটবল দলের ক্যাপ্টেন সাবিনা খাতুন, ষোলবার দ্রুততম মানবীর খেতাবপ্রাপ্ত অ্যাথলেট এবং দেশের দ্রুততম মানবী শিরিন আক্তার, অনূর্ধ্ব-১৯ জাতীয় মহিলা ফুটবল দলের ক্যাপ্টেন আফঈদা খন্দকার প্রান্তি, বক্সিংয়ে গোল্ড মেডেলপ্রাপ্ত বক্সার আফরা খন্দকার প্রাপ্তি এবং বাংলাদেশ জাতীয় মহিলা ফুটবল দলের ডিফেন্ডার মোছা. মাছুরা খাতুন।

জেসমিন জাহান বলেন, সাতক্ষীরার মেয়েরা দেশের মহিলা ক্রীড়াঙ্গনের রোল মডেল। এখানকার মেয়েদের সাফল্য বাংলাদেশকে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে সম্মান এনে দিয়েছে। দেশের সবার কাছে সাতক্ষীরার ভাবমূর্তি উজ্জ্বল করেছে।

তিনি আরও বলেন, জেলার মানুষকে যা গর্ব করার সুযোগ করে দিয়েছে। বৈষম্য নয়, নারীরা যেন ক্রীড়াক্ষেত্র থেকে শুরু করে সবজায়গাতেই সমান অধিকার পায়, সেটা নিশ্চিত করা জরুরি।
এসময় জেলা মহিলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক ফারহা দিবা খান সাথীসহ অন্যরা উপস্থিত ছিলেন।

কালের চিঠি/ ফাহিম