শুক্রবার, ১২ জুলাই ২০২৪, ২৮ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

রুদ্ধশ্বাস লড়াই শেষে সিটি-রিয়ালের ড্র ।

চ্যাম্পিয়ন্স লিগে বরাবরই রোমাঞ্চ ছড়ায় রিয়াল মাদ্রিদ। ঘরের মাঠ সান্তিয়াগো বার্নাব্যু হলে তো কথাই নেই। প্রতিপক্ষের জন্য এই ভেন্যু বড় কঠিন পরীক্ষাই বটে। সেই আঁচ কাল টের পেল ম্যানচেস্টার সিটি। রিয়াল মাদ্রিদের বিপক্ষে পরপর দুই দফা এগিয়ে যাওয়ার পরও শেষ পর্যন্ত ড্রয়ের ক্ষত নিয়ে মাঠ ছাড়তে হয়েছে পেপ গার্দিওলার শিষ্যদের।

গতকাল মঙ্গলবার (৯ এপ্রিল) রাতে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে কোয়ার্টার-ফাইনালের প্রথম লেগে ৩-৩ গোলে ড্র করেছে রিয়াল মাদ্রিদ ও ম্যানচেস্টার সিটি। আগামী বুধবার সিটির মাঠ ইতিহাদ স্টেডিয়ামে হবে ফিরতি লেগ।

সিটির হয়ে গোল করেছেন বের্নার্দো সিলভা, ফিল ফোডেন ও ইয়োশকো ভার্দিওলে। রিয়ালের হয়ে জালের দেখা পেয়েছেন রদ্রিগো ও ফেদেরিকো ভালভের্দে। বাকিটি তারা পেয়েছে সিটির আত্মঘাতী গোল থেকে।

এদিন ম্যাচ শুরুর প্রথম মিনিটেই ফ্রি কিক পেয়ে যায় ম্যানচেস্টার সিটি। সেই সুযোগ কাজে লাগাল সিটি। দ্বিতীয় মিনিটেই পেয়ে যায় গোল। ২৫ গজ দূর থেকে জোরাল গোল আদায় করে নেন সিলভা। কিন্তু, এই উচ্ছ্বাস টিকল না বেশিক্ষণ। নিজেরাই কাল হলো নিজেদের। ম্যাচের ১২তম মিনিটে করে বসল আত্মঘাতী গোল। প্রতিপক্ষের ডি-বক্সের বাইরে থেকে জোরাল শট নেন কামাভিঙ্গা। বল সামনে এসে সিটির ডিফেন্ডার রুবেন দিয়াসের গায়ে লেগে দিক পাল্টে চলে যায় সিটির জালে। উচ্ছ্বাসে মেতে ওঠে রিয়াল।

এই দুই মিনিট বাদেই এগিয়ে যায় রিয়াল মাদ্রিদ। ভিনিসিউসের দারুণ পাস ধরে আলতো ছোঁয়ায় বল ঠিকানায় পাঠিয়ে দলকে এগিয়ে নেন রদ্রিগো।

এরপর লড়াই ও পাল্টা লড়াই। বিরতির আগে এগিয়ে থাকে স্বাগতিক রাই। ম্যাচে ফিরতে মরিয়া থাকা শেষ পর্যন্ত গোল পেয়ে যায় ৬৬তম মিনিটে। দূর পাল্লার দারুণ শটে ঠিকানা খুঁজে নেন ফিল ফোডেন। তার একটু পরেই তৃতীয় গোল করে আবারও এগিয়ে যায় ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের দলটি। তৃতীয় গোলটি আসে ডিফেন্ডার ভার্দিওলের পা থেকে। কিন্তু সিটির এই উচ্ছ্বাসও স্থায়ী হতে দেয়নি রিয়াল। ৭৯ মিনিটে প্রতিপক্ষকে স্তব্ধ করে ফেল রিয়াল মাদ্রিদের গোল। বাঁ দিক ভিনিসিউসের ক্রস ধরে বুলেট গতির শটে স্কোরলাইন ৩-৩ করেন। ম্যাচের বাকি সময় দুদলই আর পায়নি জালের দেখা। ফলে রদ্ধশ্বাস লড়াইয়ের ম্যাচটিতে ড্র নিয়েই সন্তুষ্ট থাকতে হয়।

কালের চিঠি/ ফাহিম

Tag :
Popular Post

বালু ব্যবসায়ীর মিথ্যা মামলায় সাংবাদিক কারাগারে

রুদ্ধশ্বাস লড়াই শেষে সিটি-রিয়ালের ড্র ।

Update Time : ১০:১৮:১৩ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১০ এপ্রিল ২০২৪

চ্যাম্পিয়ন্স লিগে বরাবরই রোমাঞ্চ ছড়ায় রিয়াল মাদ্রিদ। ঘরের মাঠ সান্তিয়াগো বার্নাব্যু হলে তো কথাই নেই। প্রতিপক্ষের জন্য এই ভেন্যু বড় কঠিন পরীক্ষাই বটে। সেই আঁচ কাল টের পেল ম্যানচেস্টার সিটি। রিয়াল মাদ্রিদের বিপক্ষে পরপর দুই দফা এগিয়ে যাওয়ার পরও শেষ পর্যন্ত ড্রয়ের ক্ষত নিয়ে মাঠ ছাড়তে হয়েছে পেপ গার্দিওলার শিষ্যদের।

গতকাল মঙ্গলবার (৯ এপ্রিল) রাতে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে কোয়ার্টার-ফাইনালের প্রথম লেগে ৩-৩ গোলে ড্র করেছে রিয়াল মাদ্রিদ ও ম্যানচেস্টার সিটি। আগামী বুধবার সিটির মাঠ ইতিহাদ স্টেডিয়ামে হবে ফিরতি লেগ।

সিটির হয়ে গোল করেছেন বের্নার্দো সিলভা, ফিল ফোডেন ও ইয়োশকো ভার্দিওলে। রিয়ালের হয়ে জালের দেখা পেয়েছেন রদ্রিগো ও ফেদেরিকো ভালভের্দে। বাকিটি তারা পেয়েছে সিটির আত্মঘাতী গোল থেকে।

এদিন ম্যাচ শুরুর প্রথম মিনিটেই ফ্রি কিক পেয়ে যায় ম্যানচেস্টার সিটি। সেই সুযোগ কাজে লাগাল সিটি। দ্বিতীয় মিনিটেই পেয়ে যায় গোল। ২৫ গজ দূর থেকে জোরাল গোল আদায় করে নেন সিলভা। কিন্তু, এই উচ্ছ্বাস টিকল না বেশিক্ষণ। নিজেরাই কাল হলো নিজেদের। ম্যাচের ১২তম মিনিটে করে বসল আত্মঘাতী গোল। প্রতিপক্ষের ডি-বক্সের বাইরে থেকে জোরাল শট নেন কামাভিঙ্গা। বল সামনে এসে সিটির ডিফেন্ডার রুবেন দিয়াসের গায়ে লেগে দিক পাল্টে চলে যায় সিটির জালে। উচ্ছ্বাসে মেতে ওঠে রিয়াল।

এই দুই মিনিট বাদেই এগিয়ে যায় রিয়াল মাদ্রিদ। ভিনিসিউসের দারুণ পাস ধরে আলতো ছোঁয়ায় বল ঠিকানায় পাঠিয়ে দলকে এগিয়ে নেন রদ্রিগো।

এরপর লড়াই ও পাল্টা লড়াই। বিরতির আগে এগিয়ে থাকে স্বাগতিক রাই। ম্যাচে ফিরতে মরিয়া থাকা শেষ পর্যন্ত গোল পেয়ে যায় ৬৬তম মিনিটে। দূর পাল্লার দারুণ শটে ঠিকানা খুঁজে নেন ফিল ফোডেন। তার একটু পরেই তৃতীয় গোল করে আবারও এগিয়ে যায় ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের দলটি। তৃতীয় গোলটি আসে ডিফেন্ডার ভার্দিওলের পা থেকে। কিন্তু সিটির এই উচ্ছ্বাসও স্থায়ী হতে দেয়নি রিয়াল। ৭৯ মিনিটে প্রতিপক্ষকে স্তব্ধ করে ফেল রিয়াল মাদ্রিদের গোল। বাঁ দিক ভিনিসিউসের ক্রস ধরে বুলেট গতির শটে স্কোরলাইন ৩-৩ করেন। ম্যাচের বাকি সময় দুদলই আর পায়নি জালের দেখা। ফলে রদ্ধশ্বাস লড়াইয়ের ম্যাচটিতে ড্র নিয়েই সন্তুষ্ট থাকতে হয়।

কালের চিঠি/ ফাহিম