রবিবার, ১৬ জুন ২০২৪, ১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সম্মান না পাওয়ায় জাতীয় দলে কাজ করতে চান না সুজন

গতবছর ভারতে অনুষ্ঠিত ওয়ানডে বিশ্বকাপে বাংলাদেশ দলের টিম ডিরেক্টরের দায়িত্বে ছিলেন খালেদ মাহমুদ সুজন। তবে ওই দায়িত্বে বেশ অস্বস্তিতে ছিলেন বিসিবি এই পরিচালক। তার সিদ্ধান্ত নেয়ার কোনো ক্ষমতা ছিল না এমন অভিযোগও ছিল। এমনকি বিশ্বকাপে তার দায়িত্ব কী, সেটিও তিনি জানতেন না বলে গণমাধ্যমেও মন্তব্য করেছিলেন সুজন।

এবার সুজন দাবি করলেন, গত বিশ্বকাপে তিনি প্রাপ্য সম্মান পাননি। তাকে অসম্মানিত করা হয়েছে। তাই সম্মান ধরে রাখতে জাতীয় দলের আর কোনো দায়িত্ব নেবেন না। রোববার (৭ এপ্রিল) মিরপুরের শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে সাংবাদিকদের এ কথা বলেন সাবেক এই টাইগার পেসার।

সুজন বলেন, আমি মনে হয় বাংলাদেশ ক্রিকেটের আর সমাধান নই। বাংলাদেশের আরও বড় সমাধান আছে। বাংলাদেশ জাতীয় দলের কোন দায়িত্বে আর আগ্রহ নেই। গত বিশ্বকাপে যা করেছি, ওটা আমার ক্রিকেট ক্যারিয়ারের সঙ্গে যায় না। হয়তো বা আমি অতবড় কোচ না, অতকিছু জানিও না ক্রিকেট নিয়ে। তারপরও মনে করি আমার সম্মান আছে, গত বিশ্বকাপে আমি সেই সম্মানটা পাইনি। আমি অসম্মানিত হয়েছে। আমি আর এই কাজ করতেও চাই না।

সুজন আর এসব পদে যেতে চান না জানিয়ে বলেন, আমি খুশি আমার জীবন নিয়ে। আমি আবাহনীর কাজ করি, বিপিএলে কাজ করি, রাজশাহীতে ক্রিকেট একাডেমিতে কাজ করি। দেশের ক্রিকেটের উন্নতির জন্য জন্য যদি কোনো সাহায্য করতে হয় করবো। তবে জাতীয় দলের ওই অ্যাসাইনমেন্টগুলো আমার জন্য ঠিক না, আমি ডিজার্ভ করি না।

বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনকে অনুরোধ জানিয়ে আরও বলেন, আমি এখন আর ২৮-২৯ বছরের বালক না, আমার সম্মানটা এখন আমাকেই রাখতে হবে। পাপন ভাইকে আগের মতোই সম্মান করি। তবে বিনয়ের সঙ্গে অনুরোধ করি, যেন আমাকে আর এ বিষয়ে কোনো কাজ করতে না বলেন।

কালের চিঠি / আলিফ

Tag :

সম্মান না পাওয়ায় জাতীয় দলে কাজ করতে চান না সুজন

Update Time : ০১:০৮:৩৭ অপরাহ্ন, রবিবার, ৭ এপ্রিল ২০২৪

গতবছর ভারতে অনুষ্ঠিত ওয়ানডে বিশ্বকাপে বাংলাদেশ দলের টিম ডিরেক্টরের দায়িত্বে ছিলেন খালেদ মাহমুদ সুজন। তবে ওই দায়িত্বে বেশ অস্বস্তিতে ছিলেন বিসিবি এই পরিচালক। তার সিদ্ধান্ত নেয়ার কোনো ক্ষমতা ছিল না এমন অভিযোগও ছিল। এমনকি বিশ্বকাপে তার দায়িত্ব কী, সেটিও তিনি জানতেন না বলে গণমাধ্যমেও মন্তব্য করেছিলেন সুজন।

এবার সুজন দাবি করলেন, গত বিশ্বকাপে তিনি প্রাপ্য সম্মান পাননি। তাকে অসম্মানিত করা হয়েছে। তাই সম্মান ধরে রাখতে জাতীয় দলের আর কোনো দায়িত্ব নেবেন না। রোববার (৭ এপ্রিল) মিরপুরের শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে সাংবাদিকদের এ কথা বলেন সাবেক এই টাইগার পেসার।

সুজন বলেন, আমি মনে হয় বাংলাদেশ ক্রিকেটের আর সমাধান নই। বাংলাদেশের আরও বড় সমাধান আছে। বাংলাদেশ জাতীয় দলের কোন দায়িত্বে আর আগ্রহ নেই। গত বিশ্বকাপে যা করেছি, ওটা আমার ক্রিকেট ক্যারিয়ারের সঙ্গে যায় না। হয়তো বা আমি অতবড় কোচ না, অতকিছু জানিও না ক্রিকেট নিয়ে। তারপরও মনে করি আমার সম্মান আছে, গত বিশ্বকাপে আমি সেই সম্মানটা পাইনি। আমি অসম্মানিত হয়েছে। আমি আর এই কাজ করতেও চাই না।

সুজন আর এসব পদে যেতে চান না জানিয়ে বলেন, আমি খুশি আমার জীবন নিয়ে। আমি আবাহনীর কাজ করি, বিপিএলে কাজ করি, রাজশাহীতে ক্রিকেট একাডেমিতে কাজ করি। দেশের ক্রিকেটের উন্নতির জন্য জন্য যদি কোনো সাহায্য করতে হয় করবো। তবে জাতীয় দলের ওই অ্যাসাইনমেন্টগুলো আমার জন্য ঠিক না, আমি ডিজার্ভ করি না।

বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনকে অনুরোধ জানিয়ে আরও বলেন, আমি এখন আর ২৮-২৯ বছরের বালক না, আমার সম্মানটা এখন আমাকেই রাখতে হবে। পাপন ভাইকে আগের মতোই সম্মান করি। তবে বিনয়ের সঙ্গে অনুরোধ করি, যেন আমাকে আর এ বিষয়ে কোনো কাজ করতে না বলেন।

কালের চিঠি / আলিফ