রবিবার, ১৬ জুন ২০২৪, ১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

পাওনা ৮০০ টাকা চাওয়ায় বন্ধুর গুলিতে বন্ধু খুন

পাওনা ৮০০ টাকা চাওয়ায় কক্সবাজারের টেকনাফে বন্ধুর গুলিতে বন্ধু খুনের ঘটনা ঘটেছে। শুক্রবার (২৯ মার্চ) রাত ৯টার দিকে সদর ইউনিয়নের নাজিরপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।।

নিহত বন্ধুর নাম মো. জোবায়ের (২৫)। নাজিরপাড়া গ্রামের মৃত আব্দুল খালেকের ছেলে এবং ওই এলাকাতেই তার একটি দোকান ছিল। তাকে গুলি করেছেন তারই বন্ধু নাজিবুল্লাহ।

স্থানীয়রা জানায়, জুবায়েরের দোকান থেকে বাকিতে কেনাকাটা করতেন বন্ধু নাজিবুল্লাহ। সেই সুবাদে তার কাছে ৮০০ টাকা পেতেন জুবায়ের। সেই টাকা চাওয়াকে কেন্দ্র করে দুজনের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। এর জেরে গতকাল সন্ধ্যায় নাজিবুল্লাহ ও তার ভাইসহ কয়েকজন মিলে জুবায়েরের বাড়িতে গিয়ে গুলি করলে তার মাথায় গুলি লাগে।

এরপর স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে টেকনাফ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে কক্সবাজার পাঠান। চিকিৎসা চলাকালে রাত সাড়ে ১১টার দিকে সেখানে তার মৃত্যু হয়।

বিষয়টি নিশ্চিত করে টেকনাফ মডেল থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মুহাম্মদ ওসমান গনি বলেন, এ ঘটনায় এখনও কেউ অভিযোগ করেনি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

কালের চিঠি / আলিফ

Tag :

পাওনা ৮০০ টাকা চাওয়ায় বন্ধুর গুলিতে বন্ধু খুন

Update Time : ০৪:০৯:৪০ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ৩০ মার্চ ২০২৪

পাওনা ৮০০ টাকা চাওয়ায় কক্সবাজারের টেকনাফে বন্ধুর গুলিতে বন্ধু খুনের ঘটনা ঘটেছে। শুক্রবার (২৯ মার্চ) রাত ৯টার দিকে সদর ইউনিয়নের নাজিরপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।।

নিহত বন্ধুর নাম মো. জোবায়ের (২৫)। নাজিরপাড়া গ্রামের মৃত আব্দুল খালেকের ছেলে এবং ওই এলাকাতেই তার একটি দোকান ছিল। তাকে গুলি করেছেন তারই বন্ধু নাজিবুল্লাহ।

স্থানীয়রা জানায়, জুবায়েরের দোকান থেকে বাকিতে কেনাকাটা করতেন বন্ধু নাজিবুল্লাহ। সেই সুবাদে তার কাছে ৮০০ টাকা পেতেন জুবায়ের। সেই টাকা চাওয়াকে কেন্দ্র করে দুজনের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। এর জেরে গতকাল সন্ধ্যায় নাজিবুল্লাহ ও তার ভাইসহ কয়েকজন মিলে জুবায়েরের বাড়িতে গিয়ে গুলি করলে তার মাথায় গুলি লাগে।

এরপর স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে টেকনাফ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে কক্সবাজার পাঠান। চিকিৎসা চলাকালে রাত সাড়ে ১১টার দিকে সেখানে তার মৃত্যু হয়।

বিষয়টি নিশ্চিত করে টেকনাফ মডেল থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মুহাম্মদ ওসমান গনি বলেন, এ ঘটনায় এখনও কেউ অভিযোগ করেনি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

কালের চিঠি / আলিফ