রবিবার, ২৬ মে ২০২৪, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

গাজীপুরে ককটেল ফাটিয়ে স্বর্ণালংকার ও টাকা লুটের চেষ্টা

গাজীপুর: জেলার কালিয়াকৈর উপজেলার সফিপুর পশ্চিমপাড়া এলাকায় ককটেল ফাটিয়ে স্বর্ণ ব্যবসায়ী ও তার ছেলেকে কুপিয়ে স্বর্ণালংকার এবং নগদ টাকা লুট করার চেষ্টা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২৮ মার্চ) রাত সাড়ে ৯টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

এ সময় দুর্বৃত্তদের ধারালো অস্ত্রের আঘাতে স্বর্ণ ব্যবসায়ী মো. মানিক মিয়া (৪৮) ও তার ছেলে সৌরভ হোসেন (১৯) গুরুতর জখম হয়েছেন।
প্রত্যক্ষদর্শী ও ভুক্তভোগীর স্বজনরা জানান, কালিয়াকৈর উপজেলার সফিপুর বাজারে সিটি মার্কেটের নিচ তলায় দীর্ঘ দিন ধরে স্বর্ণের ব্যবসা করে আসছেন মানিক মিয়া।

প্রতিদিন রাতে তিনি দোকান বন্ধ করার সময় দোকানে থাকা স্বর্ণালংকার ও নগদ টাকা নিজ বাড়িতে নিয়ে যান। বৃহস্পতিবার রাতে দোকানের স্বর্ণালংকার ও নগদ টাকা নিয়ে বাড়ির কাছে পৌঁছালে একদল দুর্বৃত্ত ওই ব্যবসায়ী ও তার ছেলের ওপর হামলা চালায়।

এ সময় ব্যবসায়ী মানিক মিয়ার হাতে থাকা ব্যাগ লুট করার চেষ্টা করেন তারা। এক পর্যায়ে তাকে ও তার ছেলেকে এলোপাথাড়ি কুপিয়ে জখম করা হয়।

পরে চিৎকার শুনে আশপাশের লোকজন এগিয়ে এলে দুর্বৃত্তরা দুইটি ককটেল বিস্ফোরণ ঘটিয়ে এলাকায় আতঙ্ক সৃষ্টি করে। ওইসময় মানিক মিয়া স্বর্ণালংকারের ব্যাগটি নিয়ে দৌড়ে তার বাড়িতে ঢুকে পড়েন। পরে লুট করতে ব্যর্থ হয়ে দুর্বৃত্তরা পালিয়ে যায়। আহতদের সাভারের এনাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। খবর পেয়ে কালিয়াকৈর থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে একটি অবিস্ফোরিত ককটেল উদ্ধার করে।

কালিয়াকৈর থানাধীন মৌচাক পুলিশ ফাঁড়ির উপ-পরিদর্শক (এসআই) মোহাম্মদ সাইফুল আলম জানান, ব্যবসায়ীর ওপরে হামলা চালালেও দুর্বৃত্তরা স্বর্ণালংকার লুট করতে পারেনি। দুর্বৃত্তদের গ্রেপ্তারে পুলিশ অভিযান চালাচ্ছে।

কালের চিঠি/ ফাহিম

Tag :

গাজীপুরে ককটেল ফাটিয়ে স্বর্ণালংকার ও টাকা লুটের চেষ্টা

Update Time : ০৪:২০:১৭ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২৯ মার্চ ২০২৪

গাজীপুর: জেলার কালিয়াকৈর উপজেলার সফিপুর পশ্চিমপাড়া এলাকায় ককটেল ফাটিয়ে স্বর্ণ ব্যবসায়ী ও তার ছেলেকে কুপিয়ে স্বর্ণালংকার এবং নগদ টাকা লুট করার চেষ্টা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২৮ মার্চ) রাত সাড়ে ৯টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

এ সময় দুর্বৃত্তদের ধারালো অস্ত্রের আঘাতে স্বর্ণ ব্যবসায়ী মো. মানিক মিয়া (৪৮) ও তার ছেলে সৌরভ হোসেন (১৯) গুরুতর জখম হয়েছেন।
প্রত্যক্ষদর্শী ও ভুক্তভোগীর স্বজনরা জানান, কালিয়াকৈর উপজেলার সফিপুর বাজারে সিটি মার্কেটের নিচ তলায় দীর্ঘ দিন ধরে স্বর্ণের ব্যবসা করে আসছেন মানিক মিয়া।

প্রতিদিন রাতে তিনি দোকান বন্ধ করার সময় দোকানে থাকা স্বর্ণালংকার ও নগদ টাকা নিজ বাড়িতে নিয়ে যান। বৃহস্পতিবার রাতে দোকানের স্বর্ণালংকার ও নগদ টাকা নিয়ে বাড়ির কাছে পৌঁছালে একদল দুর্বৃত্ত ওই ব্যবসায়ী ও তার ছেলের ওপর হামলা চালায়।

এ সময় ব্যবসায়ী মানিক মিয়ার হাতে থাকা ব্যাগ লুট করার চেষ্টা করেন তারা। এক পর্যায়ে তাকে ও তার ছেলেকে এলোপাথাড়ি কুপিয়ে জখম করা হয়।

পরে চিৎকার শুনে আশপাশের লোকজন এগিয়ে এলে দুর্বৃত্তরা দুইটি ককটেল বিস্ফোরণ ঘটিয়ে এলাকায় আতঙ্ক সৃষ্টি করে। ওইসময় মানিক মিয়া স্বর্ণালংকারের ব্যাগটি নিয়ে দৌড়ে তার বাড়িতে ঢুকে পড়েন। পরে লুট করতে ব্যর্থ হয়ে দুর্বৃত্তরা পালিয়ে যায়। আহতদের সাভারের এনাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। খবর পেয়ে কালিয়াকৈর থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে একটি অবিস্ফোরিত ককটেল উদ্ধার করে।

কালিয়াকৈর থানাধীন মৌচাক পুলিশ ফাঁড়ির উপ-পরিদর্শক (এসআই) মোহাম্মদ সাইফুল আলম জানান, ব্যবসায়ীর ওপরে হামলা চালালেও দুর্বৃত্তরা স্বর্ণালংকার লুট করতে পারেনি। দুর্বৃত্তদের গ্রেপ্তারে পুলিশ অভিযান চালাচ্ছে।

কালের চিঠি/ ফাহিম