মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪, ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

অবসর নিয়ে মুখ খুললেন মেসি

কাতার বিশ্বকাপের পর অনেকেই শেষ দেখে ফেলেছিল। ভেবেছিল, ক্যারিয়ারের সব অর্জন পেয়ে যাওয়া লিওনেল মেসি হয়ত এবার জুতা জুড়া তুলে রাখবেন। কিন্তু না, সবাইকে অবাক করে ২০২৬ সালের বিশ্বকাপেও খেলার ঘোষণা দেন আর্জেন্টাইন তারকা।

তবুও তার অবসরের প্রসঙ্গ থেমে নেই। এবার সেই অবসর নিয়ে মুখ খুললেন বিশ্বজয়ী তারকা। জানালেন, কখন থামতে হবে সেটা তার জানা আছে।

মেসি জানিয়েছেন, অবসর নেওয়ার ক্ষেত্রে বয়স কোনো বিষয় হবে না। যখন মনে হবে তিনি আর দলের সাফল্যে অবদান রাখতে পারছেন না, তখনই বিদায় বলে দেবেন।

আর্জেন্টাইন অধিনায়ক বলেছেন, ‘আমি অবসর নেওয়ার সময়টা সম্পর্কে জানি। যখন থেকে আমি বুঝতে পারবো যে পারফর্ম করতে পারছি না, খেলাটা উপভোগ করছি না, সতীর্থদের সহযোগিতা করতে পারছি না, দলে অবদান রাখতে পারছি না। সেটাই অবসর নেওয়ার সময় হবে।’

এর পর মেসি যোগ করেন, ‘আমি খুবই আত্ম-সমালোচক। আমি জানি কখন আমি ভালো, কখন আমি মন্দ, কখন আমি ভালো খেলি এবং কখন বাজে খেলি। এবং যখন আমার মনে হবে এখনই আমার থামা উচিত। অবসর নেওয়া উচিত। তখনই নিয়ে নিব। সে সময় অবশ্যই আমার বয়স কতো সে সম্পর্কে ভাববো না। যদি আমি উপভোগ করি, তাহলে আমি প্রতিদ্বন্দ্বিতামূলক খেলা চালিয়ে যেতে চেষ্টা করবো। কারণ, ফুটবল এমনই একটা জিনিস যেটা আমি পছন্দ করি এবং জানি কিভাবে খেলতে হয়।’

তবে, ২০২২ সালের বিশ্বকাপে যদি শিরোপা ছোঁয়া না হতো তাহলে তখন অবসর নিয়ে নিতেন বলেও জানান মেসি, ‘যদি কাতার বিশ্বকাপে সবকিছু আমাদের প্রত্যাশামতো না হতো, তাহলে তখনই আমি জাতীয় দল থেকে সরে দাঁড়াতাম।’

কালের চিঠি/ ফাহিম

Tag :

অবসর নিয়ে মুখ খুললেন মেসি

Update Time : ০৯:২২:৩৮ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৮ মার্চ ২০২৪

কাতার বিশ্বকাপের পর অনেকেই শেষ দেখে ফেলেছিল। ভেবেছিল, ক্যারিয়ারের সব অর্জন পেয়ে যাওয়া লিওনেল মেসি হয়ত এবার জুতা জুড়া তুলে রাখবেন। কিন্তু না, সবাইকে অবাক করে ২০২৬ সালের বিশ্বকাপেও খেলার ঘোষণা দেন আর্জেন্টাইন তারকা।

তবুও তার অবসরের প্রসঙ্গ থেমে নেই। এবার সেই অবসর নিয়ে মুখ খুললেন বিশ্বজয়ী তারকা। জানালেন, কখন থামতে হবে সেটা তার জানা আছে।

মেসি জানিয়েছেন, অবসর নেওয়ার ক্ষেত্রে বয়স কোনো বিষয় হবে না। যখন মনে হবে তিনি আর দলের সাফল্যে অবদান রাখতে পারছেন না, তখনই বিদায় বলে দেবেন।

আর্জেন্টাইন অধিনায়ক বলেছেন, ‘আমি অবসর নেওয়ার সময়টা সম্পর্কে জানি। যখন থেকে আমি বুঝতে পারবো যে পারফর্ম করতে পারছি না, খেলাটা উপভোগ করছি না, সতীর্থদের সহযোগিতা করতে পারছি না, দলে অবদান রাখতে পারছি না। সেটাই অবসর নেওয়ার সময় হবে।’

এর পর মেসি যোগ করেন, ‘আমি খুবই আত্ম-সমালোচক। আমি জানি কখন আমি ভালো, কখন আমি মন্দ, কখন আমি ভালো খেলি এবং কখন বাজে খেলি। এবং যখন আমার মনে হবে এখনই আমার থামা উচিত। অবসর নেওয়া উচিত। তখনই নিয়ে নিব। সে সময় অবশ্যই আমার বয়স কতো সে সম্পর্কে ভাববো না। যদি আমি উপভোগ করি, তাহলে আমি প্রতিদ্বন্দ্বিতামূলক খেলা চালিয়ে যেতে চেষ্টা করবো। কারণ, ফুটবল এমনই একটা জিনিস যেটা আমি পছন্দ করি এবং জানি কিভাবে খেলতে হয়।’

তবে, ২০২২ সালের বিশ্বকাপে যদি শিরোপা ছোঁয়া না হতো তাহলে তখন অবসর নিয়ে নিতেন বলেও জানান মেসি, ‘যদি কাতার বিশ্বকাপে সবকিছু আমাদের প্রত্যাশামতো না হতো, তাহলে তখনই আমি জাতীয় দল থেকে সরে দাঁড়াতাম।’

কালের চিঠি/ ফাহিম