রবিবার, ১৬ জুন ২০২৪, ১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

৬ গোলের থ্রিলারে জয় পায়নি কেউ

এক কথায় অবিশ্বাস্য, অকল্পনীয়! মঙ্গলবার (২৬ মার্চ) দিবাগত রাতে সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে যে নাটকীয়তা দেখা গেছে, এর রেশ রবে বহুদিন। নাটকীয়তার এই ম্যাচে কেউ কাউকে হারাতে পারেনি। ৩-৩ গোলের ড্র নিয়ে মাঠ ছেড়েছে স্পেন-ব্রাজিল।

ম্যাচের ৩৬ মিনিটে ২-০ গোলে পিছিয়ে পড়েছিল ব্রাজিল। তবে ১৪ মিনিটের ব্যবধানে সেই দুই গোল পরিশোধ করে ফেলে সেলেসাওরা। শেষদিকে পেনাল্টির কল্যাণে আবারও এগিয়ে যায় স্পেন। জয়টাও প্রায় পেয়েই গিয়েছিল স্প্যানিশরা। তবে শেষ বাঁশি বাজার আগে পেনাল্টি পায় ব্রাজিল। স্পটকিক থেকে গোল করে হার এড়ান লুকাস পাকুয়েতা।

এদিন, ম্যাচ শুরু হতে না হতেই পেনাল্টিতে গোল দিয়ে এগিয়ে যায় স্পেন। কিছুক্ষণ পর ব্যবধান দ্বিগুণ করে তারা। প্রথমার্ধেই স্পেন গোলরক্ষক উনাই সিমোনের ভুলের সুযোগে ব্যবধান কমান রদ্রিগো। এরপরও পুরো ম্যাচ জুড়ে চলে রোমাঞ্চকর লড়াই। বিরতির পর স্কোর সমান করে ব্রাজিল।

কিন্তু প্রায় শেষ মুহূর্তে পেনাল্টির মাধ্যমে আবারও আবারও এগিয়ে যায় স্পেন। অতিরিক্ত সময়ের একদম শেষ মুহূর্তে পেনাল্টির মাধ্যমে আবার সমতায় ফেরে সেলেসাওরা। ফলে বার্নাব্যুতে দুই সাবেক বিশ্ব চ্যাম্পিয়নের প্রীতি ম্যাচটি ৩-৩ গোলে ড্র হয়।

এ ম্যাচে, ঘরের মাঠে গোলমুখে শট নেওয়াতে দাপট দেখায় স্পেন। স্বাগতিকদের ১৯ শটের আটটি লক্ষ্যে আর ব্রাজিলের ১২টি শটের ছয়টি ছিল লক্ষ্যে। স্পেনের হয়ে জোড়া গোল করেন রদ্রি। আর একটি গোল আসে দানি ওলমোর পা থেকে। ব্রাজিলের হয়ে গোল করেছেন রদ্রিগো , এনড্রিক ও পাকুয়েতা।

কালের চিঠি/ ফাহিম৬ গোলের থ্রিলারে জয় পায়নি কেউ

এক কথায় অবিশ্বাস্য, অকল্পনীয়! মঙ্গলবার (২৬ মার্চ) দিবাগত রাতে সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে যে নাটকীয়তা দেখা গেছে, এর রেশ রবে বহুদিন। নাটকীয়তার এই ম্যাচে কেউ কাউকে হারাতে পারেনি। ৩-৩ গোলের ড্র নিয়ে মাঠ ছেড়েছে স্পেন-ব্রাজিল।

ম্যাচের ৩৬ মিনিটে ২-০ গোলে পিছিয়ে পড়েছিল ব্রাজিল। তবে ১৪ মিনিটের ব্যবধানে সেই দুই গোল পরিশোধ করে ফেলে সেলেসাওরা। শেষদিকে পেনাল্টির কল্যাণে আবারও এগিয়ে যায় স্পেন। জয়টাও প্রায় পেয়েই গিয়েছিল স্প্যানিশরা। তবে শেষ বাঁশি বাজার আগে পেনাল্টি পায় ব্রাজিল। স্পটকিক থেকে গোল করে হার এড়ান লুকাস পাকুয়েতা।

এদিন, ম্যাচ শুরু হতে না হতেই পেনাল্টিতে গোল দিয়ে এগিয়ে যায় স্পেন। কিছুক্ষণ পর ব্যবধান দ্বিগুণ করে তারা। প্রথমার্ধেই স্পেন গোলরক্ষক উনাই সিমোনের ভুলের সুযোগে ব্যবধান কমান রদ্রিগো। এরপরও পুরো ম্যাচ জুড়ে চলে রোমাঞ্চকর লড়াই। বিরতির পর স্কোর সমান করে ব্রাজিল।

কিন্তু প্রায় শেষ মুহূর্তে পেনাল্টির মাধ্যমে আবারও আবারও এগিয়ে যায় স্পেন। অতিরিক্ত সময়ের একদম শেষ মুহূর্তে পেনাল্টির মাধ্যমে আবার সমতায় ফেরে সেলেসাওরা। ফলে বার্নাব্যুতে দুই সাবেক বিশ্ব চ্যাম্পিয়নের প্রীতি ম্যাচটি ৩-৩ গোলে ড্র হয়।

এ ম্যাচে, ঘরের মাঠে গোলমুখে শট নেওয়াতে দাপট দেখায় স্পেন। স্বাগতিকদের ১৯ শটের আটটি লক্ষ্যে আর ব্রাজিলের ১২টি শটের ছয়টি ছিল লক্ষ্যে। স্পেনের হয়ে জোড়া গোল করেন রদ্রি। আর একটি গোল আসে দানি ওলমোর পা থেকে। ব্রাজিলের হয়ে গোল করেছেন রদ্রিগো , এনড্রিক ও পাকুয়েতা।

কালের চিঠি/ ফাহিম

Tag :

৬ গোলের থ্রিলারে জয় পায়নি কেউ

Update Time : ০৮:৫৬:১৪ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২৭ মার্চ ২০২৪

এক কথায় অবিশ্বাস্য, অকল্পনীয়! মঙ্গলবার (২৬ মার্চ) দিবাগত রাতে সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে যে নাটকীয়তা দেখা গেছে, এর রেশ রবে বহুদিন। নাটকীয়তার এই ম্যাচে কেউ কাউকে হারাতে পারেনি। ৩-৩ গোলের ড্র নিয়ে মাঠ ছেড়েছে স্পেন-ব্রাজিল।

ম্যাচের ৩৬ মিনিটে ২-০ গোলে পিছিয়ে পড়েছিল ব্রাজিল। তবে ১৪ মিনিটের ব্যবধানে সেই দুই গোল পরিশোধ করে ফেলে সেলেসাওরা। শেষদিকে পেনাল্টির কল্যাণে আবারও এগিয়ে যায় স্পেন। জয়টাও প্রায় পেয়েই গিয়েছিল স্প্যানিশরা। তবে শেষ বাঁশি বাজার আগে পেনাল্টি পায় ব্রাজিল। স্পটকিক থেকে গোল করে হার এড়ান লুকাস পাকুয়েতা।

এদিন, ম্যাচ শুরু হতে না হতেই পেনাল্টিতে গোল দিয়ে এগিয়ে যায় স্পেন। কিছুক্ষণ পর ব্যবধান দ্বিগুণ করে তারা। প্রথমার্ধেই স্পেন গোলরক্ষক উনাই সিমোনের ভুলের সুযোগে ব্যবধান কমান রদ্রিগো। এরপরও পুরো ম্যাচ জুড়ে চলে রোমাঞ্চকর লড়াই। বিরতির পর স্কোর সমান করে ব্রাজিল।

কিন্তু প্রায় শেষ মুহূর্তে পেনাল্টির মাধ্যমে আবারও আবারও এগিয়ে যায় স্পেন। অতিরিক্ত সময়ের একদম শেষ মুহূর্তে পেনাল্টির মাধ্যমে আবার সমতায় ফেরে সেলেসাওরা। ফলে বার্নাব্যুতে দুই সাবেক বিশ্ব চ্যাম্পিয়নের প্রীতি ম্যাচটি ৩-৩ গোলে ড্র হয়।

এ ম্যাচে, ঘরের মাঠে গোলমুখে শট নেওয়াতে দাপট দেখায় স্পেন। স্বাগতিকদের ১৯ শটের আটটি লক্ষ্যে আর ব্রাজিলের ১২টি শটের ছয়টি ছিল লক্ষ্যে। স্পেনের হয়ে জোড়া গোল করেন রদ্রি। আর একটি গোল আসে দানি ওলমোর পা থেকে। ব্রাজিলের হয়ে গোল করেছেন রদ্রিগো , এনড্রিক ও পাকুয়েতা।

কালের চিঠি/ ফাহিম৬ গোলের থ্রিলারে জয় পায়নি কেউ

এক কথায় অবিশ্বাস্য, অকল্পনীয়! মঙ্গলবার (২৬ মার্চ) দিবাগত রাতে সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে যে নাটকীয়তা দেখা গেছে, এর রেশ রবে বহুদিন। নাটকীয়তার এই ম্যাচে কেউ কাউকে হারাতে পারেনি। ৩-৩ গোলের ড্র নিয়ে মাঠ ছেড়েছে স্পেন-ব্রাজিল।

ম্যাচের ৩৬ মিনিটে ২-০ গোলে পিছিয়ে পড়েছিল ব্রাজিল। তবে ১৪ মিনিটের ব্যবধানে সেই দুই গোল পরিশোধ করে ফেলে সেলেসাওরা। শেষদিকে পেনাল্টির কল্যাণে আবারও এগিয়ে যায় স্পেন। জয়টাও প্রায় পেয়েই গিয়েছিল স্প্যানিশরা। তবে শেষ বাঁশি বাজার আগে পেনাল্টি পায় ব্রাজিল। স্পটকিক থেকে গোল করে হার এড়ান লুকাস পাকুয়েতা।

এদিন, ম্যাচ শুরু হতে না হতেই পেনাল্টিতে গোল দিয়ে এগিয়ে যায় স্পেন। কিছুক্ষণ পর ব্যবধান দ্বিগুণ করে তারা। প্রথমার্ধেই স্পেন গোলরক্ষক উনাই সিমোনের ভুলের সুযোগে ব্যবধান কমান রদ্রিগো। এরপরও পুরো ম্যাচ জুড়ে চলে রোমাঞ্চকর লড়াই। বিরতির পর স্কোর সমান করে ব্রাজিল।

কিন্তু প্রায় শেষ মুহূর্তে পেনাল্টির মাধ্যমে আবারও আবারও এগিয়ে যায় স্পেন। অতিরিক্ত সময়ের একদম শেষ মুহূর্তে পেনাল্টির মাধ্যমে আবার সমতায় ফেরে সেলেসাওরা। ফলে বার্নাব্যুতে দুই সাবেক বিশ্ব চ্যাম্পিয়নের প্রীতি ম্যাচটি ৩-৩ গোলে ড্র হয়।

এ ম্যাচে, ঘরের মাঠে গোলমুখে শট নেওয়াতে দাপট দেখায় স্পেন। স্বাগতিকদের ১৯ শটের আটটি লক্ষ্যে আর ব্রাজিলের ১২টি শটের ছয়টি ছিল লক্ষ্যে। স্পেনের হয়ে জোড়া গোল করেন রদ্রি। আর একটি গোল আসে দানি ওলমোর পা থেকে। ব্রাজিলের হয়ে গোল করেছেন রদ্রিগো , এনড্রিক ও পাকুয়েতা।

কালের চিঠি/ ফাহিম