রবিবার, ২৬ মে ২০২৪, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

পঞ্চগড়ে শিশু সন্তানকে বাজারে তুললেন নারী, আড়াই হাজার টাকায় বিক্রিও করলেন

পঞ্চগড়ে একমাস বয়সী কন্যা সন্তানকে বিক্রির জন্য বাজারের তোলার ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনার পর এলাকায় চাঞ্চল্য তৈরি হয়েছে। সোমবার (২৫ মার্চ) বিকেলে পঞ্চগড় শহরের মেডিসিন রোড এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনার বেশ কয়েকটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে। এ নিয়ে মানুষদের মধ্যে মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা গেছে।

জানা গেছে, সন্তানকে বাজারে তোলা ওই নারী মানসিক ভারসাম্যহীন। তার পরিচয় শনাক্ত হয়নি। স্থানীয়রা বলছেন, ওই নারীর বাড়ি জেলার আটোয়ারী উপজেলায়। মানসিক ভারসাম্যহীন হওয়ায় জেলার বিভিন্ন হাট-বাজারে ঘুরে বেড়াতেন তিনি।

ছড়িয়ে পড়া ভিডিওতে দেখা যায়, একজন নারী তার কোলে থাকা ছোট একটি কন্যা শিশুকে ২৫শ টাকার বিনিময়ে বিক্রি করছে। দর- কষাকষির মাঝে ওই শিশুকে ক্রয় করছেন এক বৃদ্ধ ব্যক্তি। একপর্যায়ে টাকা দিয়ে শিশুটিকে কোলেও নেন ওই বৃদ্ধ।

স্থানীয়রা জানান, মানসিক ভারসাম্যহীন ওই নারী বাজারে নিজ সন্তানকে বিক্রির জন্য দাম হাকায়। এরপর শহরের ট্রাক টার্মিনাল এলাকার বৃদ্ধ ইসমাইল হোসেন শিশুটিকে আড়াই হাজার টাকার বিনিময়ে কিনে নেন। আবার বিক্রির বেশ কিছু সময় পর শিশুটিকে ফেরত নেয় ওই নারী।

এ বিষয়ে ইসমাইল হোসেনের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, বাজারে দেখি, ওই মেয়ে তার সন্তানকে বিক্রি করবে বলতেছে। আমার এক ভাগনির সন্তান নেই। পরে ভাগনির জন্য বাচ্চাটি দুই হাজার টাকায় ক্রয় করি। এর মাঝে সে আরও টাকা চাইলে আবার ৫শ টাকা দিয়ে বাচ্চাটিকে নিজের কোলে নেই। এরপর বাড়ি ফেরার পথে সে দৌড়ে এসে টাকা ফেরত দিয়ে বাচ্চাটিকে নিয়ে নেয়।

এ বিষয়ে পঞ্চগড় সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জাকির হোসেন বলেন, বিষয়টি তারা অবগত নন। জানার পর তিনি বিষয়টি দেখতে সমাজসেবা অফিসারকে অবগত করেছেন তিনি।

কালের চিঠি / আলিফ

Tag :

পঞ্চগড়ে শিশু সন্তানকে বাজারে তুললেন নারী, আড়াই হাজার টাকায় বিক্রিও করলেন

Update Time : ০৩:৪৫:২১ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৬ মার্চ ২০২৪

পঞ্চগড়ে একমাস বয়সী কন্যা সন্তানকে বিক্রির জন্য বাজারের তোলার ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনার পর এলাকায় চাঞ্চল্য তৈরি হয়েছে। সোমবার (২৫ মার্চ) বিকেলে পঞ্চগড় শহরের মেডিসিন রোড এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনার বেশ কয়েকটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে। এ নিয়ে মানুষদের মধ্যে মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা গেছে।

জানা গেছে, সন্তানকে বাজারে তোলা ওই নারী মানসিক ভারসাম্যহীন। তার পরিচয় শনাক্ত হয়নি। স্থানীয়রা বলছেন, ওই নারীর বাড়ি জেলার আটোয়ারী উপজেলায়। মানসিক ভারসাম্যহীন হওয়ায় জেলার বিভিন্ন হাট-বাজারে ঘুরে বেড়াতেন তিনি।

ছড়িয়ে পড়া ভিডিওতে দেখা যায়, একজন নারী তার কোলে থাকা ছোট একটি কন্যা শিশুকে ২৫শ টাকার বিনিময়ে বিক্রি করছে। দর- কষাকষির মাঝে ওই শিশুকে ক্রয় করছেন এক বৃদ্ধ ব্যক্তি। একপর্যায়ে টাকা দিয়ে শিশুটিকে কোলেও নেন ওই বৃদ্ধ।

স্থানীয়রা জানান, মানসিক ভারসাম্যহীন ওই নারী বাজারে নিজ সন্তানকে বিক্রির জন্য দাম হাকায়। এরপর শহরের ট্রাক টার্মিনাল এলাকার বৃদ্ধ ইসমাইল হোসেন শিশুটিকে আড়াই হাজার টাকার বিনিময়ে কিনে নেন। আবার বিক্রির বেশ কিছু সময় পর শিশুটিকে ফেরত নেয় ওই নারী।

এ বিষয়ে ইসমাইল হোসেনের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, বাজারে দেখি, ওই মেয়ে তার সন্তানকে বিক্রি করবে বলতেছে। আমার এক ভাগনির সন্তান নেই। পরে ভাগনির জন্য বাচ্চাটি দুই হাজার টাকায় ক্রয় করি। এর মাঝে সে আরও টাকা চাইলে আবার ৫শ টাকা দিয়ে বাচ্চাটিকে নিজের কোলে নেই। এরপর বাড়ি ফেরার পথে সে দৌড়ে এসে টাকা ফেরত দিয়ে বাচ্চাটিকে নিয়ে নেয়।

এ বিষয়ে পঞ্চগড় সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জাকির হোসেন বলেন, বিষয়টি তারা অবগত নন। জানার পর তিনি বিষয়টি দেখতে সমাজসেবা অফিসারকে অবগত করেছেন তিনি।

কালের চিঠি / আলিফ