শুক্রবার, ১২ জুলাই ২০২৪, ২৮ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সিলেট টেস্ট: চায়ের দেশে চাপে টাইগাররা

সিলেট টেস্টের তৃতীয় দিনের খেলা শেষ। দিনশেষে স্কোরবোর্ড বলছে, বাংলাদেশের হাতে আছে দুদিন এবং রান প্রয়োজন ৪৬৪। সেইসাথে উইকেট আছে ৫টা। খেলার এই যখন অবস্থা, তখন ম্যাচ জেতা নাকি সাগরিকার ফ্লাইট ধরা, কোনটা বেশি ভাবছে বাংলাদেশ দল?

ধনাঞ্জয়া ও কামিন্দুর দুইশো রানের জুটিতে তৃতীয় দিন নিজেদের করে নিয়েছে শ্রীলঙ্কা। তবে দ্বিতীয় ইনিংসে লঙ্কানদের ৫জন ব্যাটার যেতে পারেননি দুই অঙ্কের রানে। তাহলে এত রান আসলো কোথা থেকে? প্রথম ইনিংসের মতো দ্বিতীয় ইনিংসেও ধনাঞ্জয়া ও কামিন্দুর সেঞ্চুরি সেইসাথে আগের ইনিংসের ৯২ রানের লিড। নিরাপদ রান পাবার পরেও অলআউট হবার আগ পর্যন্ত ব্যাট ছাড়েনি সফরকারীরা। হয়ত সিলেট টেস্ট চতুর্থ দিনে গড়াচ্ছে শ্রীলঙ্কার সেই ব্যাট আঁকড়ে থাকার জন্যেই। কারন বাংলাদেশের ইনিংসের গল্প তো ‘তাসের ঘর’।

৫১১ রানের টার্গেট। ড্রেসিংরুম থেকে বের হবার সময় জাকির-জয় হয়ত ধনাঞ্জয়া-কামিন্দু হবার আশা নিয়েই ক্রিজে এসেছিলেন। কিন্তু সিলেটের বিকেল আর টাইগারদের হয়নি। বরং প্রত্যাশার চেয়েও খারাপ হয়েছে। দলীয় ১৭ রানে ২ উইকেট নেই। ইতোমধ্যে সাজঘরে জয় ও নাজমুল হোসেন শান্ত। দলীয় ৩৭ রানে একে একে তৃতীয়, চতুর্থ ও পঞ্চম উইকেটের পতন হলে পুরোপুরি ব্যাকফুটে চলে যায় বাংলাদেশ। শেষ বিকেলে কেবল আক্ষেপই বাড়িয়েছেন জাকির-শাহাদাত-লিটন।

শ্রীলঙ্কার পক্ষে ৩টি উইকেট নেন ফার্নেন্ডো।

কালের চিঠি / আলিফ

Tag :

বালু ব্যবসায়ীর মিথ্যা মামলায় সাংবাদিক কারাগারে

সিলেট টেস্ট: চায়ের দেশে চাপে টাইগাররা

Update Time : ০৩:০৭:২৩ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৪ মার্চ ২০২৪

সিলেট টেস্টের তৃতীয় দিনের খেলা শেষ। দিনশেষে স্কোরবোর্ড বলছে, বাংলাদেশের হাতে আছে দুদিন এবং রান প্রয়োজন ৪৬৪। সেইসাথে উইকেট আছে ৫টা। খেলার এই যখন অবস্থা, তখন ম্যাচ জেতা নাকি সাগরিকার ফ্লাইট ধরা, কোনটা বেশি ভাবছে বাংলাদেশ দল?

ধনাঞ্জয়া ও কামিন্দুর দুইশো রানের জুটিতে তৃতীয় দিন নিজেদের করে নিয়েছে শ্রীলঙ্কা। তবে দ্বিতীয় ইনিংসে লঙ্কানদের ৫জন ব্যাটার যেতে পারেননি দুই অঙ্কের রানে। তাহলে এত রান আসলো কোথা থেকে? প্রথম ইনিংসের মতো দ্বিতীয় ইনিংসেও ধনাঞ্জয়া ও কামিন্দুর সেঞ্চুরি সেইসাথে আগের ইনিংসের ৯২ রানের লিড। নিরাপদ রান পাবার পরেও অলআউট হবার আগ পর্যন্ত ব্যাট ছাড়েনি সফরকারীরা। হয়ত সিলেট টেস্ট চতুর্থ দিনে গড়াচ্ছে শ্রীলঙ্কার সেই ব্যাট আঁকড়ে থাকার জন্যেই। কারন বাংলাদেশের ইনিংসের গল্প তো ‘তাসের ঘর’।

৫১১ রানের টার্গেট। ড্রেসিংরুম থেকে বের হবার সময় জাকির-জয় হয়ত ধনাঞ্জয়া-কামিন্দু হবার আশা নিয়েই ক্রিজে এসেছিলেন। কিন্তু সিলেটের বিকেল আর টাইগারদের হয়নি। বরং প্রত্যাশার চেয়েও খারাপ হয়েছে। দলীয় ১৭ রানে ২ উইকেট নেই। ইতোমধ্যে সাজঘরে জয় ও নাজমুল হোসেন শান্ত। দলীয় ৩৭ রানে একে একে তৃতীয়, চতুর্থ ও পঞ্চম উইকেটের পতন হলে পুরোপুরি ব্যাকফুটে চলে যায় বাংলাদেশ। শেষ বিকেলে কেবল আক্ষেপই বাড়িয়েছেন জাকির-শাহাদাত-লিটন।

শ্রীলঙ্কার পক্ষে ৩টি উইকেট নেন ফার্নেন্ডো।

কালের চিঠি / আলিফ