মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০২৪, ১ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

গাজীপুরে গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণে ৩৫ জন দগ্ধ

গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার তেলিরচালা এলাকার একটি বাসায় গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণে নারী ও শিশুসহ অন্তত ৩৫ জন দগ্ধ হয়েছেন। বুধবার (১৩ মার্চ) ইফতারের আগ মুহূর্তে সন্ধ্যা পৌনে ৬টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। দগ্ধদের উদ্ধার করে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শীদের সূত্রে জানা যায়, বাড়িটি স্থানীয় কয়েকটি কারখানার শ্রমিকদের কাছে ভাড়া দেয়া হয়েছিল। বুধবার সন্ধ্যা পৌনে ৬টার দিকে নতুন গ্যাস সিলিন্ডারের সংযোগ দেয়ার সময় হঠাৎ আগুন ধরে যায়। এ সময় সিলিন্ডারটি রাস্তায় ছুড়ে ফেলে দেয়া হয়। এতে রাস্তায় থাকা লোকজনও দগ্ধ হয়। দগ্ধদের মধ্যে একই পরিবারের ৫ জন রয়েছেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটের আবাসিক সার্জন ডা. তরিকুল ইসলাম বলেন, হাসপাতালের জরুরি বিভাগে আহতদের চিকিৎসা চলছে। তবে তাদের কার শরীরের কত শতাংশ দগ্ধ হয়েছে, সেটি এখনও নির্ধারণ করা হয়নি। এ বিষয়ে পরে বিস্তারিত জানানো হবে।

এদিকে কোনাবাড়ী ফায়ার সার্ভিসের টিম লিডার মো. আশরাফ জানান, গ্যাস সিলিন্ডার থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়। এ বিষয়ে তথ্য সংগ্রহ করা হচ্ছে। পরবর্তীতে বিস্তারিত জানানো হবে।

কালের চিঠি / আলিফ

Tag :
Popular Post

বেরোবিতে কোঠা ইস্যুতে আন্দোলনকারীদের ওপর ছাত্রলীগের হামলা

গাজীপুরে গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণে ৩৫ জন দগ্ধ

Update Time : ০৪:১৪:১২ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৩ মার্চ ২০২৪

গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার তেলিরচালা এলাকার একটি বাসায় গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণে নারী ও শিশুসহ অন্তত ৩৫ জন দগ্ধ হয়েছেন। বুধবার (১৩ মার্চ) ইফতারের আগ মুহূর্তে সন্ধ্যা পৌনে ৬টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। দগ্ধদের উদ্ধার করে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শীদের সূত্রে জানা যায়, বাড়িটি স্থানীয় কয়েকটি কারখানার শ্রমিকদের কাছে ভাড়া দেয়া হয়েছিল। বুধবার সন্ধ্যা পৌনে ৬টার দিকে নতুন গ্যাস সিলিন্ডারের সংযোগ দেয়ার সময় হঠাৎ আগুন ধরে যায়। এ সময় সিলিন্ডারটি রাস্তায় ছুড়ে ফেলে দেয়া হয়। এতে রাস্তায় থাকা লোকজনও দগ্ধ হয়। দগ্ধদের মধ্যে একই পরিবারের ৫ জন রয়েছেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটের আবাসিক সার্জন ডা. তরিকুল ইসলাম বলেন, হাসপাতালের জরুরি বিভাগে আহতদের চিকিৎসা চলছে। তবে তাদের কার শরীরের কত শতাংশ দগ্ধ হয়েছে, সেটি এখনও নির্ধারণ করা হয়নি। এ বিষয়ে পরে বিস্তারিত জানানো হবে।

এদিকে কোনাবাড়ী ফায়ার সার্ভিসের টিম লিডার মো. আশরাফ জানান, গ্যাস সিলিন্ডার থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়। এ বিষয়ে তথ্য সংগ্রহ করা হচ্ছে। পরবর্তীতে বিস্তারিত জানানো হবে।

কালের চিঠি / আলিফ