রবিবার, ২৬ মে ২০২৪, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মেসির অলিম্পিক খেলার পথে যেসব বাধা ।

চলতি বছর প্যারিসে অনুষ্ঠিত হবে অলিম্পিক গেমস। আর্জেন্টিনা ফুটবল দল ইতোমধ্যে জায়গা করে নিয়েছে অলিম্পিকের মূল পর্বে। আকাশী-নীলরা অলিম্পিকে জায়গা করে নেওয়ার আগেই শোনা যাচ্ছিল, এবারের আসরে খেলবেন লিওনেল মেসি। আর্জেন্টিনা অনূর্ধ্ব-২৩ দলের কোচ হাভিয়ের মাশ্চেরানোর ইচ্ছা এবং মেসির আগ্রহে বেশ চাউর হয়, ক্ষুদে জাদুকর খেলবেন অলিম্পিকে।

যুব দলের কোচ মাশ্চেরানো জানান, মেসি খেলতে পারেন তবে অনেক বাধা আছে। ক্রীড়াভিত্তিক সংবাদমাধ্যম ইএসপিএন জানিয়েছে এমনটিই। মাশ্চেরানোর মতে, ‘মেসিকে আমরা চাইলেও সেসময় তাকে পাওয়া নিয়ে শঙ্কা আছে আছে। তার শারীরিক অবস্থা, ক্লাবের ব্যস্ততা সব মিলিয়ে তাকে পাওয়া যায় কি না সেটিই বড় ব্যাপার। সব বাধা পার করতে পারলে তার জন্য আমাদের দরজা সবসময় খোলা।’

অলিম্পিকে মূলত দেশগুলো তাদের অনূর্ধ্ব-২৩ ফুটবল দলকে পাঠায়। নিয়ম অনুযায়ী, স্কোয়াডে ২৩ বছরের বেশি তিনজন খেলোয়াড় রাখা যায়। যে কারণে, মেসি-ডি মারিয়ার সুযোগ আছে অংশ নেওয়ার। মেসির পাশাপাশি অ্যাঞ্জেল ডি মারিয়াও জানিয়েছেন অলিম্পিক খেলার ইচ্ছা।

বিশ্বকাপজয়ী দুই তারকা প্যারিস অলিম্পিকে খেলুক, এই ইচ্ছার কথা সবার আগে প্রকাশ করেছিলেন আর্জেন্টিনা অনূর্ধ্ব-২৩ দলের কোচ হাভিয়ের মাশ্চেরানো। যিনি দীর্ঘসময় মেসি-ডি মারিয়াদের সতীর্থ ছিলেন। খেলেছিলেন ২০০৮ বেইজিং অলিম্পিকেও।

কালের চিঠি/ ফাহিম

Tag :

শ্রেণিকক্ষে যৌন হয়রানির অভিযোগ, ২ শিক্ষককে বরখাস্তের দাবিতে বিদ্যালয়ে তালা

মেসির অলিম্পিক খেলার পথে যেসব বাধা ।

Update Time : ০৬:৩৮:০৪ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৭ মার্চ ২০২৪

চলতি বছর প্যারিসে অনুষ্ঠিত হবে অলিম্পিক গেমস। আর্জেন্টিনা ফুটবল দল ইতোমধ্যে জায়গা করে নিয়েছে অলিম্পিকের মূল পর্বে। আকাশী-নীলরা অলিম্পিকে জায়গা করে নেওয়ার আগেই শোনা যাচ্ছিল, এবারের আসরে খেলবেন লিওনেল মেসি। আর্জেন্টিনা অনূর্ধ্ব-২৩ দলের কোচ হাভিয়ের মাশ্চেরানোর ইচ্ছা এবং মেসির আগ্রহে বেশ চাউর হয়, ক্ষুদে জাদুকর খেলবেন অলিম্পিকে।

যুব দলের কোচ মাশ্চেরানো জানান, মেসি খেলতে পারেন তবে অনেক বাধা আছে। ক্রীড়াভিত্তিক সংবাদমাধ্যম ইএসপিএন জানিয়েছে এমনটিই। মাশ্চেরানোর মতে, ‘মেসিকে আমরা চাইলেও সেসময় তাকে পাওয়া নিয়ে শঙ্কা আছে আছে। তার শারীরিক অবস্থা, ক্লাবের ব্যস্ততা সব মিলিয়ে তাকে পাওয়া যায় কি না সেটিই বড় ব্যাপার। সব বাধা পার করতে পারলে তার জন্য আমাদের দরজা সবসময় খোলা।’

অলিম্পিকে মূলত দেশগুলো তাদের অনূর্ধ্ব-২৩ ফুটবল দলকে পাঠায়। নিয়ম অনুযায়ী, স্কোয়াডে ২৩ বছরের বেশি তিনজন খেলোয়াড় রাখা যায়। যে কারণে, মেসি-ডি মারিয়ার সুযোগ আছে অংশ নেওয়ার। মেসির পাশাপাশি অ্যাঞ্জেল ডি মারিয়াও জানিয়েছেন অলিম্পিক খেলার ইচ্ছা।

বিশ্বকাপজয়ী দুই তারকা প্যারিস অলিম্পিকে খেলুক, এই ইচ্ছার কথা সবার আগে প্রকাশ করেছিলেন আর্জেন্টিনা অনূর্ধ্ব-২৩ দলের কোচ হাভিয়ের মাশ্চেরানো। যিনি দীর্ঘসময় মেসি-ডি মারিয়াদের সতীর্থ ছিলেন। খেলেছিলেন ২০০৮ বেইজিং অলিম্পিকেও।

কালের চিঠি/ ফাহিম