বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ১২ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

গাইবান্ধায় পুলিশের রেকারের  ধাক্কায় ১ জন নিহত ও ৪ জন আহত

গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ পৌর শহরের চারমাথা মোড়ে পুলিশের রেকার গাড়ীর ধাক্কায় একজন রিকশা চালক নিহত ও চারজন আহত হয়েছে।

বুধবার (৬ মার্চ) সকাল সাড়ে ১০টার দিকে রাস্তা পারাপারের সময় এ দুর্ঘটনা ঘটে। উক্ত ঘটনায় বিক্ষুব্ধ শ্রমিক ও জনসাধারণ মিলে চারমাথা মোড়ে পুলিশের ট্রাফিক বক্স ভাংচুর, টায়ার জ্বালিয়ে অগ্নিসংযোগ ও রাস্তা অবরোধ করে। এসময় রংপুর-ঢাকা ও দিনাজপুর-ঢাকা মহাসড়কে দেড় ঘন্টা যানবাহন চলাচল বন্ধ থাকে।

নিহত রিকশা চালকের পরিচয় এখনো পাওয়া যায়নি। তবে আহত একজন রিকশা চালকের নাম আসাদুল বলে জানা গেছে। আহতদের নিকটবর্তী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। একজনের অবস্থা বেশ আশংকাজনক।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, পুলিশের বেপরোয়া গতিতে গাড়ী চালানোর ফলে এ দূর্ঘটনা হয়েছে।

খবর পেয়ে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল লতিফ প্রধান,উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রাসেল মিয়া, থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শামসুল আলম শাহ, রিকশা শ্রমিক নেতা পৌরসভার প্যানেল মেয়র কাউন্সিলর শাহীন আকন্দ কাউন্সিলর রিমন তালুকদার সহ বিভিন্ন নেতৃবৃন্দ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি শান্ত করার চেষ্টা করে। পরে গাইবান্ধা-৪ গোবিন্দগঞ্জ আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব আবুল কালাম আজাদ এমপির ঢাকা থেকে মোবাইলে কথা হলে তার আশ্বাসে জনতা অবরোধ তুলে নেয়।

 

Tag :

গাইবান্ধায় পুলিশের রেকারের  ধাক্কায় ১ জন নিহত ও ৪ জন আহত

Update Time : ০৮:২২:৪৬ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ৬ মার্চ ২০২৪

গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ পৌর শহরের চারমাথা মোড়ে পুলিশের রেকার গাড়ীর ধাক্কায় একজন রিকশা চালক নিহত ও চারজন আহত হয়েছে।

বুধবার (৬ মার্চ) সকাল সাড়ে ১০টার দিকে রাস্তা পারাপারের সময় এ দুর্ঘটনা ঘটে। উক্ত ঘটনায় বিক্ষুব্ধ শ্রমিক ও জনসাধারণ মিলে চারমাথা মোড়ে পুলিশের ট্রাফিক বক্স ভাংচুর, টায়ার জ্বালিয়ে অগ্নিসংযোগ ও রাস্তা অবরোধ করে। এসময় রংপুর-ঢাকা ও দিনাজপুর-ঢাকা মহাসড়কে দেড় ঘন্টা যানবাহন চলাচল বন্ধ থাকে।

নিহত রিকশা চালকের পরিচয় এখনো পাওয়া যায়নি। তবে আহত একজন রিকশা চালকের নাম আসাদুল বলে জানা গেছে। আহতদের নিকটবর্তী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। একজনের অবস্থা বেশ আশংকাজনক।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, পুলিশের বেপরোয়া গতিতে গাড়ী চালানোর ফলে এ দূর্ঘটনা হয়েছে।

খবর পেয়ে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল লতিফ প্রধান,উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রাসেল মিয়া, থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শামসুল আলম শাহ, রিকশা শ্রমিক নেতা পৌরসভার প্যানেল মেয়র কাউন্সিলর শাহীন আকন্দ কাউন্সিলর রিমন তালুকদার সহ বিভিন্ন নেতৃবৃন্দ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি শান্ত করার চেষ্টা করে। পরে গাইবান্ধা-৪ গোবিন্দগঞ্জ আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব আবুল কালাম আজাদ এমপির ঢাকা থেকে মোবাইলে কথা হলে তার আশ্বাসে জনতা অবরোধ তুলে নেয়।