রবিবার, ২১ জুলাই ২০২৪, ৬ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

কর্মস্থলে না থাকায় চিকিৎসককে বরখাস্ত করলেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী

 

কর্মস্থলে সঠিক সময়ে উপস্থিত না হওয়ায় সিলেটের জৈন্তাপুর উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা রেন্টু পুরকায়স্থকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। এমনকি আরও যারা সঠিক সময়ে কর্মস্থলে উপস্থিত ছিলেন না তাদের বিষয়েও তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডা. সামন্ত লাল সেন।

বুধাবার (৬ মার্চ) সকালে জৈন্তাপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স পরিদর্শনকালে স্বাস্থ্যমন্ত্রী এই নির্দেশ দেন।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বুধবার দু’দিনের সফরে সিলেট পৌঁছান। এদিন সকালে তিনি সিলেটের জৈন্তাপুর ও বিশ্বনাথ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স পরিদর্শন করেন।

দুটি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স পরিদর্শন প্রসঙ্গে সামন্ত লাল সেন বলেন, বিশ্বনাথ ও জৈন্তাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স পরিদর্শন করেছি। জৈন্তাপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের অবস্থা খুব ভালো মনে হয়নি। ওখানে অনেক কিছু করা দরাকার। অনেক জনবলও নেই। হাসপাতালটি অনেক পুরোনো, অনেক ভবনের কাজ করা দরকার। চিকিৎসকদের উপস্থিতি নিয়েও সন্তুষ্ট নই। একটি কড়া নির্দেশ দিয়ে এসেছি। একজন পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তাকে পাওয়া যায়নি। তাকে সঙ্গে সঙ্গে ‘সাময়িক বরখাস্ত’ করা হয়েছে। বিশ্বনাথ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সকে ভালো হাসপাতাল মনে হয়েছে।

এসময় তিনি উপজেলা পর্যায়ে তথা প্রান্তিক জনপদে স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিতের তাগিদ দিয়ে বলেন, গ্রামীণ এলাকায় স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করতে পারলে শহরের মেডিকেল কলেজ হাসপাতালগুলোতে রোগীরা ভিড় করবে না।

তিনি আরও বলেন, মেডিকেল কলেজগুলো শুধু সেবা নয়, শিক্ষা নেওয়ার জায়গা। এখানে গবেষণা করতে হবে। আমাদের সেই পরিবেশ তৈরি করে দিতে হবে।

এদিন বিকেলে সিলেট সার্কিট হাউজে বিভাগীয় পরিচালক (স্বাস্থ্য), সিভিল সার্জন এবং উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তাদের সাথে মতবিনিময় করেন।

কালের চিঠি / আলিফ

Tag :
Popular Post

কোটা বিরোধী আন্দোলনে ঢাকায় ২ শিক্ষার্থী নিহত

কর্মস্থলে না থাকায় চিকিৎসককে বরখাস্ত করলেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী

Update Time : ০১:১৯:৫৬ অপরাহ্ন, বুধবার, ৬ মার্চ ২০২৪

 

কর্মস্থলে সঠিক সময়ে উপস্থিত না হওয়ায় সিলেটের জৈন্তাপুর উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা রেন্টু পুরকায়স্থকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। এমনকি আরও যারা সঠিক সময়ে কর্মস্থলে উপস্থিত ছিলেন না তাদের বিষয়েও তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডা. সামন্ত লাল সেন।

বুধাবার (৬ মার্চ) সকালে জৈন্তাপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স পরিদর্শনকালে স্বাস্থ্যমন্ত্রী এই নির্দেশ দেন।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বুধবার দু’দিনের সফরে সিলেট পৌঁছান। এদিন সকালে তিনি সিলেটের জৈন্তাপুর ও বিশ্বনাথ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স পরিদর্শন করেন।

দুটি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স পরিদর্শন প্রসঙ্গে সামন্ত লাল সেন বলেন, বিশ্বনাথ ও জৈন্তাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স পরিদর্শন করেছি। জৈন্তাপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের অবস্থা খুব ভালো মনে হয়নি। ওখানে অনেক কিছু করা দরাকার। অনেক জনবলও নেই। হাসপাতালটি অনেক পুরোনো, অনেক ভবনের কাজ করা দরকার। চিকিৎসকদের উপস্থিতি নিয়েও সন্তুষ্ট নই। একটি কড়া নির্দেশ দিয়ে এসেছি। একজন পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তাকে পাওয়া যায়নি। তাকে সঙ্গে সঙ্গে ‘সাময়িক বরখাস্ত’ করা হয়েছে। বিশ্বনাথ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সকে ভালো হাসপাতাল মনে হয়েছে।

এসময় তিনি উপজেলা পর্যায়ে তথা প্রান্তিক জনপদে স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিতের তাগিদ দিয়ে বলেন, গ্রামীণ এলাকায় স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করতে পারলে শহরের মেডিকেল কলেজ হাসপাতালগুলোতে রোগীরা ভিড় করবে না।

তিনি আরও বলেন, মেডিকেল কলেজগুলো শুধু সেবা নয়, শিক্ষা নেওয়ার জায়গা। এখানে গবেষণা করতে হবে। আমাদের সেই পরিবেশ তৈরি করে দিতে হবে।

এদিন বিকেলে সিলেট সার্কিট হাউজে বিভাগীয় পরিচালক (স্বাস্থ্য), সিভিল সার্জন এবং উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তাদের সাথে মতবিনিময় করেন।

কালের চিঠি / আলিফ