বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ১২ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

চবিসাসের বার্ষিক স্মারক আঙিনার মোড়ক উন্মোচন

 

ফুয়াদ মন্ডল,চবি প্রতিনিধি

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতির (চবিসাস) ২০২৩ – কার্যনির্বাহী কমিটির বার্ষিক স্মারক ‘আঙিনা’ এর মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

মঙ্গলবার (৫ মার্চ) বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের কার্যালয়ে সকাল ১১টায় মোড়ক উন্মোচন করেন চবি উপাচার্য অধ্যাপক ড. শিরীণ আখতার।

চবিসাসের সাধারণ সম্পাদক ইমাম ইমুর সঞ্চালনায় ও সভাপতি মাহবুব এ রহমানের সভাপতিত্বে আঙিনার মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানের পরিচালনা করা হয়।

এসময় উপস্থিত ছিলেন পদার্থবিদ্যা বিভাগের অধ্যাপক শ্যামল রঞ্জন চক্রবর্তী, ইঞ্জিনিয়ারিং অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. রাশেদ মোস্তফা ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার কে এম নূর আহমদ, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক নবাব আব্দুর রহিম

প্রচার, প্রকাশনা ও দপ্তর সম্পাদক মোহাম্মদ আজহার, অর্থ, ক্রীড়া ও সংস্কৃতি সম্পাদক রোকনুজ্জামান, কার্যনির্বাহী সদস্য তামিম আহমেদ শরিফ।

আঙিনা’র সম্পাদক এবং চবি সাংবাদিক সমিতির প্রচার, প্রকাশনা ও দফতর সম্পাদক মোহাম্মদ আজহার বলেন, অল্প সময়ে আমরা ম্যাগাজিনটি প্রকাশ করেছি। চবিসাসের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদকের দায়িত্বে থাকায় প্রথমবারের মতো সম্পাদনা করার অভিজ্ঞতা হয়েছে আমার। বছরব্যাপী চবিসাসের কার্যক্রমের খণ্ডচিত্র, চবিসাসের বর্তমান ও সাবেক নেতৃবৃন্দ, বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, গবেষক ও প্রবীণ সাংবাদিকদের লেখা যুক্ত করা হয়েছে ম্যাগাজিনে। খুব সুন্দর একটি প্রচ্ছদ করেছেন লুৎফুর রহমান তোফায়েল। সবমিলিয়ে অল্প সময়ের মধ্যে সবার সহযোগিতায় আশাকরি দারুণ একটি ম্যাগাজিন উপহার দিতে পেরেছি আমরা।

চবিসাসের সাধারণ সম্পাদক ইমাম ইমু বলেন, সমিতির কার্যনির্বাহী কমিটি-২০২৩ এর বার্ষিক স্মারক প্রকাশের সিদ্ধান্ত হয় একদম অল্প সময়ে। কমিটির শেষ সময়ে নানা ব্যস্ততা আর কাজের চাপের মধ্যে ম্যাগাজিনটা করা খুবই কষ্টসাধ্য কাজ ছিল। এক্ষেত্রে সমিতির সভাপতি মাহবুব এ রহমান, প্রচার, প্রকাশনা ও দপ্তর সম্পাদক মোহাম্মদ আজহার ও অর্থ সম্পাদক রোকনুজ্জামানসহ সকলের ঐকান্তিক সহযোগিতায় ম্যাগাজিনটি সম্পন্ন হয়।

চবিসাসের সভাপতি মাহবুব এ রহমান বলেন, সমিতির সদস্যদের রায়ে দায়িত্ব নিয়েছিলাম। দায়িত্ব পালন শেষে বিদায় নিচ্ছি। সব সময় প্রচেষ্টা ছিল সমিতির অতীত ঐতিহ্য বজায় রেখে সামনের দিকে এগুবার। এরই অংশ হিসেবে এই ‘আঙিনা’র প্রকাশ। আমরা খুব একটা সময় পাইনি। দৃঢ় মনোবল আর কার্যনির্বাহী পর্ষদের একাগ্রতায় এমন কাজের বাস্তবায়ন সম্ভব হয়েছে। চাইবো আমাদের পরবর্তী প্রজন্মও এই ধারাবাহিকতা জারি রাখবে। দ্যুতি ছড়াক আমাদের চবিসাস প্রজন্ম থেকে প্রজন্মে

অধ্যাপক ড. শিরীণ আখতার বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় নিয়ে অনেক বেশি নেগেটিভ সংবাদ ছাপানো হয়েছে। এমনকি আমাকে দুর্নীতিবাজ বানানোর অপচেষ্টাও চালানো হয়েছে। তাদের লক্ষ্য ছিলো প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টিগোচর হবে এবং আমাকে সরিয়ে দেবেন। কিন্তু আল্লাহ যাকে সম্মান দেয় মানুষ তার কিছুই করতে পারেনা।
তোমাদেরকে বলবো সাংবাদিকতা কর তবে হলুদ সাংবাদিকতা করিওনা। যার কারণে বিশ্ববিদ্যালয়ের সম্মান ক্ষুন্ন হয়।

উল্লেখ্য, বার্ষিক স্মারক ২০২৩ আঙিনার সার্বিক তত্ত্বাবধানে ছিলেন মাহবুব এ রহমান ও ইমাম ইমু। সম্পাদনা করেন মোহাম্মদ আজহার। সম্পাদনায় সহযোগী ছিলেন রুমান হাফিজ,নবাব আব্দুর রহিম, রোকনুজ্জামান ও তামিম আহমেদ শরীফ। প্রচ্ছদে ছিলেন লুৎফর রহমান তোফায়েল এবং প্রচ্ছদের আলোকচিত্রে ছিলেন শাহরিয়াজ মোহাম্মদ।

Tag :

চবিসাসের বার্ষিক স্মারক আঙিনার মোড়ক উন্মোচন

Update Time : ১২:২৯:২৪ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৫ মার্চ ২০২৪

 

ফুয়াদ মন্ডল,চবি প্রতিনিধি

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতির (চবিসাস) ২০২৩ – কার্যনির্বাহী কমিটির বার্ষিক স্মারক ‘আঙিনা’ এর মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

মঙ্গলবার (৫ মার্চ) বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের কার্যালয়ে সকাল ১১টায় মোড়ক উন্মোচন করেন চবি উপাচার্য অধ্যাপক ড. শিরীণ আখতার।

চবিসাসের সাধারণ সম্পাদক ইমাম ইমুর সঞ্চালনায় ও সভাপতি মাহবুব এ রহমানের সভাপতিত্বে আঙিনার মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানের পরিচালনা করা হয়।

এসময় উপস্থিত ছিলেন পদার্থবিদ্যা বিভাগের অধ্যাপক শ্যামল রঞ্জন চক্রবর্তী, ইঞ্জিনিয়ারিং অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. রাশেদ মোস্তফা ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার কে এম নূর আহমদ, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক নবাব আব্দুর রহিম

প্রচার, প্রকাশনা ও দপ্তর সম্পাদক মোহাম্মদ আজহার, অর্থ, ক্রীড়া ও সংস্কৃতি সম্পাদক রোকনুজ্জামান, কার্যনির্বাহী সদস্য তামিম আহমেদ শরিফ।

আঙিনা’র সম্পাদক এবং চবি সাংবাদিক সমিতির প্রচার, প্রকাশনা ও দফতর সম্পাদক মোহাম্মদ আজহার বলেন, অল্প সময়ে আমরা ম্যাগাজিনটি প্রকাশ করেছি। চবিসাসের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদকের দায়িত্বে থাকায় প্রথমবারের মতো সম্পাদনা করার অভিজ্ঞতা হয়েছে আমার। বছরব্যাপী চবিসাসের কার্যক্রমের খণ্ডচিত্র, চবিসাসের বর্তমান ও সাবেক নেতৃবৃন্দ, বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, গবেষক ও প্রবীণ সাংবাদিকদের লেখা যুক্ত করা হয়েছে ম্যাগাজিনে। খুব সুন্দর একটি প্রচ্ছদ করেছেন লুৎফুর রহমান তোফায়েল। সবমিলিয়ে অল্প সময়ের মধ্যে সবার সহযোগিতায় আশাকরি দারুণ একটি ম্যাগাজিন উপহার দিতে পেরেছি আমরা।

চবিসাসের সাধারণ সম্পাদক ইমাম ইমু বলেন, সমিতির কার্যনির্বাহী কমিটি-২০২৩ এর বার্ষিক স্মারক প্রকাশের সিদ্ধান্ত হয় একদম অল্প সময়ে। কমিটির শেষ সময়ে নানা ব্যস্ততা আর কাজের চাপের মধ্যে ম্যাগাজিনটা করা খুবই কষ্টসাধ্য কাজ ছিল। এক্ষেত্রে সমিতির সভাপতি মাহবুব এ রহমান, প্রচার, প্রকাশনা ও দপ্তর সম্পাদক মোহাম্মদ আজহার ও অর্থ সম্পাদক রোকনুজ্জামানসহ সকলের ঐকান্তিক সহযোগিতায় ম্যাগাজিনটি সম্পন্ন হয়।

চবিসাসের সভাপতি মাহবুব এ রহমান বলেন, সমিতির সদস্যদের রায়ে দায়িত্ব নিয়েছিলাম। দায়িত্ব পালন শেষে বিদায় নিচ্ছি। সব সময় প্রচেষ্টা ছিল সমিতির অতীত ঐতিহ্য বজায় রেখে সামনের দিকে এগুবার। এরই অংশ হিসেবে এই ‘আঙিনা’র প্রকাশ। আমরা খুব একটা সময় পাইনি। দৃঢ় মনোবল আর কার্যনির্বাহী পর্ষদের একাগ্রতায় এমন কাজের বাস্তবায়ন সম্ভব হয়েছে। চাইবো আমাদের পরবর্তী প্রজন্মও এই ধারাবাহিকতা জারি রাখবে। দ্যুতি ছড়াক আমাদের চবিসাস প্রজন্ম থেকে প্রজন্মে

অধ্যাপক ড. শিরীণ আখতার বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় নিয়ে অনেক বেশি নেগেটিভ সংবাদ ছাপানো হয়েছে। এমনকি আমাকে দুর্নীতিবাজ বানানোর অপচেষ্টাও চালানো হয়েছে। তাদের লক্ষ্য ছিলো প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টিগোচর হবে এবং আমাকে সরিয়ে দেবেন। কিন্তু আল্লাহ যাকে সম্মান দেয় মানুষ তার কিছুই করতে পারেনা।
তোমাদেরকে বলবো সাংবাদিকতা কর তবে হলুদ সাংবাদিকতা করিওনা। যার কারণে বিশ্ববিদ্যালয়ের সম্মান ক্ষুন্ন হয়।

উল্লেখ্য, বার্ষিক স্মারক ২০২৩ আঙিনার সার্বিক তত্ত্বাবধানে ছিলেন মাহবুব এ রহমান ও ইমাম ইমু। সম্পাদনা করেন মোহাম্মদ আজহার। সম্পাদনায় সহযোগী ছিলেন রুমান হাফিজ,নবাব আব্দুর রহিম, রোকনুজ্জামান ও তামিম আহমেদ শরীফ। প্রচ্ছদে ছিলেন লুৎফর রহমান তোফায়েল এবং প্রচ্ছদের আলোকচিত্রে ছিলেন শাহরিয়াজ মোহাম্মদ।