রবিবার, ২৬ মে ২০২৪, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

পুলিশ জনগণের বন্ধু এটি প্রতিষ্ঠা করা দরকার: প্রধানমন্ত্রী

যারা আগুন সন্ত্রাস করে তারা বারবার পুলিশের উপর আক্রমণ করেছে। পুলিশ সদস্যরা জীবনের বিনিময়ে এসব সন্ত্রাস থেকে দেশের মানুষকে রক্ষা করেছে—এমনটিই বলেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। মঙ্গলবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) রাজারবাগ পুলিশ লাইন্সে পুলিশ সপ্তাহের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, বিএনপি-জামায়াত রাজারবাগ পুলিশ লাইন্সে ঢুকে ধ্বংসাত্মক হামলা চালিয়েছে। তবে এক্ষেত্রে অত্যন্ত ধৈর্য দেখিয়ে তাদের মোকাবেলা করেছে পুলিশ। তিনি বলেন, দেশের মানুষ যখনই কোনো বিপদে পড়ে সকলের আগে পুলিশের কাছে আশ্রয় খোঁজে। কাজেই পুলিশ জনগণের বন্ধু, এটি সবসময় চলেই আসছে। পুলিশ জনগণের বন্ধু এটি প্রতিষ্ঠা করা একান্ত দরকার।

সরকারপ্রধান জানান, দেশের প্রতি জেলায় সাইবার অপরাধ দমনে পূর্ণাঙ্গ পুলিশ ইউনিট গঠন করা হবে। একইসাথে জেলা পর্যায়ে ডিএনএ ল্যাব স্থাপন করা হবে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আজকের বাংলাদেশ এক বদলে যাওয়া বাংলাদেশ। এই দেশে কেউ ভূমিহীন থাকবে না। সকলের জীবনমান উন্নয়নে সরকার প্রতিশ্রুতিবদ্ধ বলেও জানান প্রধানমন্ত্রী।

এর আগে, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পুলিশ সপ্তাহ-২০২৪ উদ্বোধন করেন। প্রধানমন্ত্রী খোলা জিপে চড়ে বাংলাদেশ পুলিশের কুচকাওয়াজ পরিদর্শন এবং সালাম গ্রহণ করেন। অনুষ্ঠানে সাহসী কাজের স্বীকৃতিস্বরূপ ৩৫ পুলিশ সদস্যকে বাংলাদেশ পুলিশ মেডেল (বিপিএম-বীরত্ব) এবং ৬০ জনকে রাষ্ট্রপতি পুলিশ পদক (পিপিএম-বীরত্ব) প্রদান করেন প্রধানমন্ত্রী। এছাড়া ৯৫ জন পুলিশ সদস্য বিপিএম সেবা পদক এবং ২১০ জন পিপিএম সেবা পদক পেয়েছেন।

কালের চিঠি / আলিফ

Tag :

পুলিশ জনগণের বন্ধু এটি প্রতিষ্ঠা করা দরকার: প্রধানমন্ত্রী

Update Time : ০৮:০১:০১ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

যারা আগুন সন্ত্রাস করে তারা বারবার পুলিশের উপর আক্রমণ করেছে। পুলিশ সদস্যরা জীবনের বিনিময়ে এসব সন্ত্রাস থেকে দেশের মানুষকে রক্ষা করেছে—এমনটিই বলেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। মঙ্গলবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) রাজারবাগ পুলিশ লাইন্সে পুলিশ সপ্তাহের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, বিএনপি-জামায়াত রাজারবাগ পুলিশ লাইন্সে ঢুকে ধ্বংসাত্মক হামলা চালিয়েছে। তবে এক্ষেত্রে অত্যন্ত ধৈর্য দেখিয়ে তাদের মোকাবেলা করেছে পুলিশ। তিনি বলেন, দেশের মানুষ যখনই কোনো বিপদে পড়ে সকলের আগে পুলিশের কাছে আশ্রয় খোঁজে। কাজেই পুলিশ জনগণের বন্ধু, এটি সবসময় চলেই আসছে। পুলিশ জনগণের বন্ধু এটি প্রতিষ্ঠা করা একান্ত দরকার।

সরকারপ্রধান জানান, দেশের প্রতি জেলায় সাইবার অপরাধ দমনে পূর্ণাঙ্গ পুলিশ ইউনিট গঠন করা হবে। একইসাথে জেলা পর্যায়ে ডিএনএ ল্যাব স্থাপন করা হবে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আজকের বাংলাদেশ এক বদলে যাওয়া বাংলাদেশ। এই দেশে কেউ ভূমিহীন থাকবে না। সকলের জীবনমান উন্নয়নে সরকার প্রতিশ্রুতিবদ্ধ বলেও জানান প্রধানমন্ত্রী।

এর আগে, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পুলিশ সপ্তাহ-২০২৪ উদ্বোধন করেন। প্রধানমন্ত্রী খোলা জিপে চড়ে বাংলাদেশ পুলিশের কুচকাওয়াজ পরিদর্শন এবং সালাম গ্রহণ করেন। অনুষ্ঠানে সাহসী কাজের স্বীকৃতিস্বরূপ ৩৫ পুলিশ সদস্যকে বাংলাদেশ পুলিশ মেডেল (বিপিএম-বীরত্ব) এবং ৬০ জনকে রাষ্ট্রপতি পুলিশ পদক (পিপিএম-বীরত্ব) প্রদান করেন প্রধানমন্ত্রী। এছাড়া ৯৫ জন পুলিশ সদস্য বিপিএম সেবা পদক এবং ২১০ জন পিপিএম সেবা পদক পেয়েছেন।

কালের চিঠি / আলিফ