মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪, ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

টেকনাফে ইয়াবা ও ইজিবাইকসহ মাদক কারবারি গ্রেপ্তার

কক্সবাজারের টেকনাফ উপজেলায় অভিযান চালিয়ে এক লাখ ১০ হাজার ইয়াবাসহ নুরুল ইসলাম নুরু নামে এক ইজিবাইক চালককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

বুধবার (২১ ফেব্রুয়ারি) সকালে টেকনাফ-শাহপরীর দ্বীপ সড়কের সংযোগস্থল থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

বুধবার বিকেলে টেকনাফ মডেল থানায় সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান কক্সবাজারের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (উখিয়া সার্কেল) মোহাম্মদ রাসেল।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার বলেন, এ ঘটনায় ইয়াবা পাচারকাজে ব্যবহৃত ইজিবাইকটি জব্দ করা হয়েছে। গ্রেপ্তার নুরুল ইসলাম নুরু (৩৫) উপজেলার সদর ইউনিয়নের শিলবুনিয়া পাড়ার মোহাম্মদ ইউনুছের ছেলে।

তিনি আরও বলেন, ‘সকালে সদর ইউনিয়নের শিলবুনিয়া পাড়া সংলগ্ন টেকনাফ-শাহপরীর দ্বীপ সড়ক দিয়ে মাদক পাচারের সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালায় পুলিশ। এ সময় সন্দেহজনক এক ব্যক্তি ইজিবাইক চালিয়ে পালানোর চেষ্টা করে। পুলিশ গাড়িটিকে ধাওয়া করলে টেকনাফ-শাহপরীর দ্বীপ সড়কের সংযোগস্থলে গিয়ে ফসলি জমিতে নামিয়ে পালানোর চেষ্টা করে চালক। পরে তাকে আটক করা হয়। সেইসঙ্গে চালকের আসনের সামনে বিশেষ কৌশলে লুকিয়ে রাখা এক লাখ ১০ হাজার ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। ওই ইজিবাইক চালক সংঘবদ্ধ মাদক পাচারকারী চক্রের সদস্য।

তার বিরুদ্ধে মাদক নিয়ন্ত্রণ আইনে টেকনাফ থানায় মামলা হয়েছে। পাশাপাশি পাচারকাজে ব্যবহৃত ইজিবাইক জব্দ করা হয়েছে।’

কালের চিঠি/শর্মিলী

Tag :

টেকনাফে ইয়াবা ও ইজিবাইকসহ মাদক কারবারি গ্রেপ্তার

Update Time : ০২:৪৫:৩১ অপরাহ্ন, বুধবার, ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

কক্সবাজারের টেকনাফ উপজেলায় অভিযান চালিয়ে এক লাখ ১০ হাজার ইয়াবাসহ নুরুল ইসলাম নুরু নামে এক ইজিবাইক চালককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

বুধবার (২১ ফেব্রুয়ারি) সকালে টেকনাফ-শাহপরীর দ্বীপ সড়কের সংযোগস্থল থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

বুধবার বিকেলে টেকনাফ মডেল থানায় সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান কক্সবাজারের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (উখিয়া সার্কেল) মোহাম্মদ রাসেল।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার বলেন, এ ঘটনায় ইয়াবা পাচারকাজে ব্যবহৃত ইজিবাইকটি জব্দ করা হয়েছে। গ্রেপ্তার নুরুল ইসলাম নুরু (৩৫) উপজেলার সদর ইউনিয়নের শিলবুনিয়া পাড়ার মোহাম্মদ ইউনুছের ছেলে।

তিনি আরও বলেন, ‘সকালে সদর ইউনিয়নের শিলবুনিয়া পাড়া সংলগ্ন টেকনাফ-শাহপরীর দ্বীপ সড়ক দিয়ে মাদক পাচারের সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালায় পুলিশ। এ সময় সন্দেহজনক এক ব্যক্তি ইজিবাইক চালিয়ে পালানোর চেষ্টা করে। পুলিশ গাড়িটিকে ধাওয়া করলে টেকনাফ-শাহপরীর দ্বীপ সড়কের সংযোগস্থলে গিয়ে ফসলি জমিতে নামিয়ে পালানোর চেষ্টা করে চালক। পরে তাকে আটক করা হয়। সেইসঙ্গে চালকের আসনের সামনে বিশেষ কৌশলে লুকিয়ে রাখা এক লাখ ১০ হাজার ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। ওই ইজিবাইক চালক সংঘবদ্ধ মাদক পাচারকারী চক্রের সদস্য।

তার বিরুদ্ধে মাদক নিয়ন্ত্রণ আইনে টেকনাফ থানায় মামলা হয়েছে। পাশাপাশি পাচারকাজে ব্যবহৃত ইজিবাইক জব্দ করা হয়েছে।’

কালের চিঠি/শর্মিলী