রবিবার, ১৬ জুন ২০২৪, ১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

তিন সেনা কর্মকর্তার মৃত্যুদণ্ডাদেশ দিয়েছে মিয়ানমার জান্তা

কয়েকশ সেনা নিয়ে বিদ্রোহীদের কাছে আত্মসমর্পণ করায় তিন ব্রিগেডিয়ার জেনারেলকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছে মিয়ানমারের জান্তা। সোমবার (২০ ফেব্রুয়ারি) দেশটির সামরিক সূত্র এ তথ্য জানিয়েছে। গত মাসে চীন সীমান্তের কাছে মিয়ানমারের বিদ্রোহী গোষ্ঠীর কাছে আত্মসমর্পণ করেন ওই তিন সেনা কর্মকর্তা। এতে কৌশলগত একটি শহর হাত ছাড়া হয়ে যায় জান্তার। খবর এএফপির।

নাম প্রকাশ না করে বার্তা সংস্থা এএফপিকে একটি সামরিক সূত্র বলেছে, লুক্কাই শহরের কমান্ডারসহ তিনজন ব্রিগেডিয়ার জেনারেলকে মৃত্যুদণ্ড দেয়া হয়েছে। আরেকটি সামরিক সূত্রও তাদের সাজা ঘোষণার বিষয়টি নিশ্চিত করেছে।

মিয়ানমারের শান প্রদেশের উত্তরে লুক্কাই শহরের অবস্থান। সেখানে কয়েক মাসের রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের পর গত জানুয়ারিতে থ্রি ব্রাদারহুড অ্যালায়েন্সের কাছে তিন ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আত্মসমর্পণ করেন। গত কয়েক দশকের মধ্যে জান্তার জন্য একে সবচেয়ে বড় ক্ষতি হিসেবে দেখা হয়।

আত্মসমর্পনের পর থেকে ওই তিন কর্মকর্তা মিয়ানমারের সামরিক বাহিনীর হেফাজতে ছিলেন। তবে কবে নাগাদ তাদের মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করা হবে সেবিষয়ে কিছুই জানানো হয়নি।

কালের চিঠি / আলিফ

Tag :

তিন সেনা কর্মকর্তার মৃত্যুদণ্ডাদেশ দিয়েছে মিয়ানমার জান্তা

Update Time : ০৫:০৯:৩২ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২০ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

কয়েকশ সেনা নিয়ে বিদ্রোহীদের কাছে আত্মসমর্পণ করায় তিন ব্রিগেডিয়ার জেনারেলকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছে মিয়ানমারের জান্তা। সোমবার (২০ ফেব্রুয়ারি) দেশটির সামরিক সূত্র এ তথ্য জানিয়েছে। গত মাসে চীন সীমান্তের কাছে মিয়ানমারের বিদ্রোহী গোষ্ঠীর কাছে আত্মসমর্পণ করেন ওই তিন সেনা কর্মকর্তা। এতে কৌশলগত একটি শহর হাত ছাড়া হয়ে যায় জান্তার। খবর এএফপির।

নাম প্রকাশ না করে বার্তা সংস্থা এএফপিকে একটি সামরিক সূত্র বলেছে, লুক্কাই শহরের কমান্ডারসহ তিনজন ব্রিগেডিয়ার জেনারেলকে মৃত্যুদণ্ড দেয়া হয়েছে। আরেকটি সামরিক সূত্রও তাদের সাজা ঘোষণার বিষয়টি নিশ্চিত করেছে।

মিয়ানমারের শান প্রদেশের উত্তরে লুক্কাই শহরের অবস্থান। সেখানে কয়েক মাসের রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের পর গত জানুয়ারিতে থ্রি ব্রাদারহুড অ্যালায়েন্সের কাছে তিন ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আত্মসমর্পণ করেন। গত কয়েক দশকের মধ্যে জান্তার জন্য একে সবচেয়ে বড় ক্ষতি হিসেবে দেখা হয়।

আত্মসমর্পনের পর থেকে ওই তিন কর্মকর্তা মিয়ানমারের সামরিক বাহিনীর হেফাজতে ছিলেন। তবে কবে নাগাদ তাদের মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করা হবে সেবিষয়ে কিছুই জানানো হয়নি।

কালের চিঠি / আলিফ