রবিবার, ২৬ মে ২০২৪, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

স্যান্ডি সাহার বিরুদ্ধে ঢাকার আদলতে মামলা

 

কলকাতার ইউটিউবার স্যান্ডি সাহার বিরুদ্ধে ঢাকার আদালতে মামলা হয়েছে। সোমবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) ঢাকার সাইবার ট্রাইব্যুনালের বিচারক এ, এম জুলফিকার হায়াতের আদালতে মামলা করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী মহিউদ্দিন রনি।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে মানহানিকর বক্তব্য প্রচার ও হত্যার হুমকির অভিযোগে মামলাটি করা হয়। এর আগে গত ডিসেম্বর মাসে ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত করা হচ্ছে মর্মে অভিযোগ এনে স্যান্ডি সাহার বিরুদ্ধে শাহবাগ থানায় জিডি করেন মহিউদ্দিন।

সে সময় এ বিষয়ে মহিউদ্দিন গণমাধ্যমকে বলেন, আমি ফেসবুক স্ক্রল করছিলাম। এক পর্যায়ে দেখতে পাই প্রতি ১০ টি পোস্টের ৮ টি পোস্ট স্যান্ডি সাহা ও বিডি ইমরান নামে একজনকে ঘিরে। বিভিন্ন কন্টেন্ট ক্রিয়েটররা ক্রিয়েট করছে। সেসব কন্টেন্টে দেখতে পাই দুজন পুরুষের সম্পর্ক নিয়ে একটি ব্যাপার, ওটা নিয়ে কন্টেন্ট ক্রিয়েটররা আলোচনা করছে নানা ধরণের পোস্ট বানাচ্ছে। যেসব কন্টেন্টে খুবই ইমোশনাল মিউজিক ব্যবহার করা হয়েছে। কেউ বা লাইভে গালাগালি করছে, খুবই অশালীন ভাষায়। আমি চাই না এসব পোস্ট যেন আমার হোমপেইজে আসে।

তিনি বলেন, এখন সামনে গুরুত্বপূর্ণ ইভেন্ট। সামনে নির্বাচন। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের এই সময় নির্বাচন নিয়ে আলাপ করার কথা। নির্বাচন হবে কি হবে না এসব নিয়ে আলাপ করার কথা। আমরা দেখছি যে আমরা না চাইতেও ওইসব পোস্ট আসছে। পরে দেখলাম যে তারা সেসব প্রমোট করছে। অশ্লীল বাক্য ব্যবহার করছে।

ধর্মীয় অনুভূতিতে এসব আঘাত হানছে অভিযোগ করে মহিউদ্দিন বলেন, এসব বিকৃত যৌনাচার। আমি একজন মুসলিম। আমাদের মুসলিম, এসব কন্টেন্ট, আমাদের ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত হানার চেষ্টা করছে। এসব যেন না করে কন্টেন্ট ক্রিয়েট করার সময় যেন সতর্ক থাকে।

কালের চিঠি / আলিফ

Tag :

স্যান্ডি সাহার বিরুদ্ধে ঢাকার আদলতে মামলা

Update Time : ১০:০৮:৫২ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

 

কলকাতার ইউটিউবার স্যান্ডি সাহার বিরুদ্ধে ঢাকার আদালতে মামলা হয়েছে। সোমবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) ঢাকার সাইবার ট্রাইব্যুনালের বিচারক এ, এম জুলফিকার হায়াতের আদালতে মামলা করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী মহিউদ্দিন রনি।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে মানহানিকর বক্তব্য প্রচার ও হত্যার হুমকির অভিযোগে মামলাটি করা হয়। এর আগে গত ডিসেম্বর মাসে ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত করা হচ্ছে মর্মে অভিযোগ এনে স্যান্ডি সাহার বিরুদ্ধে শাহবাগ থানায় জিডি করেন মহিউদ্দিন।

সে সময় এ বিষয়ে মহিউদ্দিন গণমাধ্যমকে বলেন, আমি ফেসবুক স্ক্রল করছিলাম। এক পর্যায়ে দেখতে পাই প্রতি ১০ টি পোস্টের ৮ টি পোস্ট স্যান্ডি সাহা ও বিডি ইমরান নামে একজনকে ঘিরে। বিভিন্ন কন্টেন্ট ক্রিয়েটররা ক্রিয়েট করছে। সেসব কন্টেন্টে দেখতে পাই দুজন পুরুষের সম্পর্ক নিয়ে একটি ব্যাপার, ওটা নিয়ে কন্টেন্ট ক্রিয়েটররা আলোচনা করছে নানা ধরণের পোস্ট বানাচ্ছে। যেসব কন্টেন্টে খুবই ইমোশনাল মিউজিক ব্যবহার করা হয়েছে। কেউ বা লাইভে গালাগালি করছে, খুবই অশালীন ভাষায়। আমি চাই না এসব পোস্ট যেন আমার হোমপেইজে আসে।

তিনি বলেন, এখন সামনে গুরুত্বপূর্ণ ইভেন্ট। সামনে নির্বাচন। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের এই সময় নির্বাচন নিয়ে আলাপ করার কথা। নির্বাচন হবে কি হবে না এসব নিয়ে আলাপ করার কথা। আমরা দেখছি যে আমরা না চাইতেও ওইসব পোস্ট আসছে। পরে দেখলাম যে তারা সেসব প্রমোট করছে। অশ্লীল বাক্য ব্যবহার করছে।

ধর্মীয় অনুভূতিতে এসব আঘাত হানছে অভিযোগ করে মহিউদ্দিন বলেন, এসব বিকৃত যৌনাচার। আমি একজন মুসলিম। আমাদের মুসলিম, এসব কন্টেন্ট, আমাদের ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত হানার চেষ্টা করছে। এসব যেন না করে কন্টেন্ট ক্রিয়েট করার সময় যেন সতর্ক থাকে।

কালের চিঠি / আলিফ