রবিবার, ২১ জুলাই ২০২৪, ৬ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বিএনপি কবে ঘুরে দাঁড়াবে : ওবায়দুল কাদের

বিএনপি ঘুরে দাঁড়াবে কবে- দলটির নেতাদের প্রতি এমন প্রশ্ন রেখেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর সাহেব কারাগার থেকে বের হয়ে একই সাজানো নাটকের পুনরাবৃত্তি শুরু করেছেন। এখন তারা নাকি আবার ঘুরে দাঁড়বেন। তো প্রশ্ন হচ্ছে, কোথা থেকে কোথায় ঘুরে দাঁড়িয়েছিলেন, আবার কোথা থেকে কোথায় ঘুরবেন? সেটা আমাদের জানা নেই।

আজ শনিবার রাজধানীর ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, তাদের (বিএনপি) ঘুরে দাঁড়ানোর বক্তব্য আগেও শুনেছি। কিন্তু কোন বছর ঘুড়ে দাঁড়াবেন? এ বছর, নাকি আগামী বছর? এই ডিসেম্বরে নাকি আগামী অক্টোবরে? কবে আবার ঘুরে দাঁড়াবেন? আসলে এসব কথা বিএনপি নেতারা বার বার বলে জনগণের কাছে নিজেদেরই খাটো করছেন।

বিএনপির চেয়ে বড় উগ্রবাদী দল আর নেই মন্তব্য করে তিনি বলেন, ৭৫- এ বঙ্গবন্ধুকে হত্যার মূলহোতা জিয়াউর রহমান। ২১ আগস্ট পরিকল্পিতভাবে হামলা করে বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যার চেষ্টা করেছিল বিএনপি। অথচ যাদের হাতে রক্তের দাগ, তারা হত্যার রাজনীতির জন্য আওয়ামী লীগকে দোষারোপ করে। ওই হামলার ঘটনায় তারা জজ মিয়া নাটক সাজিয়েছিল।

দেশে আন্দোলন করার মতো অবজেকটিভ কনডিশন নেই জানিয়ে তিনি বলেন, বিএনপির হাতে কোনো ইস্যু নেই। তারা দায়ে পড়ে ইস্যু খুঁজে বেড়ান। … বিএনপি মনে করেছিল, নির্বাচন প্রতিহত করতে পারবে। কিন্তু তাদের সেই স্বপ্ন দুঃস্বপ্নে পরিণত হয়েছে। তারা বলেছিল, নির্বাচনের পর আমরা সরকার গঠন করতে পারবো না। তারা আরও বলেছিলেন, সরকার গঠন করতে পারলেও কয়েক দিনের বেশি টিকবে না। তাদের এসব বক্তব্যের বাস্তবতা কতটুকু? আসলে হতাশা থেকে বিএনপি নেতারা এখন অনেক কিছুই বলছেন

কালের চিঠি / আশিকুর।

Tag :
Popular Post

কোটা বিরোধী আন্দোলনে ঢাকায় ২ শিক্ষার্থী নিহত

বিএনপি কবে ঘুরে দাঁড়াবে : ওবায়দুল কাদের

Update Time : ০৯:৩১:১৯ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

বিএনপি ঘুরে দাঁড়াবে কবে- দলটির নেতাদের প্রতি এমন প্রশ্ন রেখেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর সাহেব কারাগার থেকে বের হয়ে একই সাজানো নাটকের পুনরাবৃত্তি শুরু করেছেন। এখন তারা নাকি আবার ঘুরে দাঁড়বেন। তো প্রশ্ন হচ্ছে, কোথা থেকে কোথায় ঘুরে দাঁড়িয়েছিলেন, আবার কোথা থেকে কোথায় ঘুরবেন? সেটা আমাদের জানা নেই।

আজ শনিবার রাজধানীর ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, তাদের (বিএনপি) ঘুরে দাঁড়ানোর বক্তব্য আগেও শুনেছি। কিন্তু কোন বছর ঘুড়ে দাঁড়াবেন? এ বছর, নাকি আগামী বছর? এই ডিসেম্বরে নাকি আগামী অক্টোবরে? কবে আবার ঘুরে দাঁড়াবেন? আসলে এসব কথা বিএনপি নেতারা বার বার বলে জনগণের কাছে নিজেদেরই খাটো করছেন।

বিএনপির চেয়ে বড় উগ্রবাদী দল আর নেই মন্তব্য করে তিনি বলেন, ৭৫- এ বঙ্গবন্ধুকে হত্যার মূলহোতা জিয়াউর রহমান। ২১ আগস্ট পরিকল্পিতভাবে হামলা করে বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যার চেষ্টা করেছিল বিএনপি। অথচ যাদের হাতে রক্তের দাগ, তারা হত্যার রাজনীতির জন্য আওয়ামী লীগকে দোষারোপ করে। ওই হামলার ঘটনায় তারা জজ মিয়া নাটক সাজিয়েছিল।

দেশে আন্দোলন করার মতো অবজেকটিভ কনডিশন নেই জানিয়ে তিনি বলেন, বিএনপির হাতে কোনো ইস্যু নেই। তারা দায়ে পড়ে ইস্যু খুঁজে বেড়ান। … বিএনপি মনে করেছিল, নির্বাচন প্রতিহত করতে পারবে। কিন্তু তাদের সেই স্বপ্ন দুঃস্বপ্নে পরিণত হয়েছে। তারা বলেছিল, নির্বাচনের পর আমরা সরকার গঠন করতে পারবো না। তারা আরও বলেছিলেন, সরকার গঠন করতে পারলেও কয়েক দিনের বেশি টিকবে না। তাদের এসব বক্তব্যের বাস্তবতা কতটুকু? আসলে হতাশা থেকে বিএনপি নেতারা এখন অনেক কিছুই বলছেন

কালের চিঠি / আশিকুর।