সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪, ৩ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সীমান্তে অপ্রাণঘাতী অস্ত্র ব্যবহারের বিষয়ে ভারতের সাথে আলোচনা হয়েছে : পররাষ্ট্রমন্ত্রী

সীমান্ত হত্যা বন্ধে অপ্রাণঘাতী অস্ত্র ব্যবহারের বিষয়ে ভারতের সাথে আলোচনা হয়েছে বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। বলেন, ভারতের নিরাপত্তা উপদেষ্টা ও দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সাথে নিরাপত্তা সহযোগিতা নিয়েও আলোচনা হয়েছে। সীমান্ত হত্যা বন্ধের বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা করেছেন তিনি।

সোমবার (১২ ফেব্রুয়ারি) দিল্লি সফর নিয়ে এক ব্রিফিংয়ে এ তথ্য জানান পররাষ্ট্রমন্ত্রী। তিনি জানান, মিয়ানমারের নিরাপত্তা বাহিনীর যেসব সদস্য বাংলাদেশে অনুপ্রবেশ করেছে সবাইকে ফেরত পাঠানোর প্রক্রিয়া অব্যাহত আছে।

মন্ত্রী বলেন, মিয়ানমারের অভ্যন্তরীণ সঙ্কটের কারণে আঞ্চলিক অস্থিরতা তৈরি হয়েছে। এ সঙ্কট মোকাবেলায় এবং রোহিঙ্গাদের নিজ দেশে ফেরত পাঠাতে দিল্লির সহযোগিতা চাওয়া হয়েছে। ভারতের আগামী নির্বাচনের পর তিস্তা পানি বণ্টন ইস্যুতে দেশটির সাথে বাংলাদেশের আলোচনা হবে বলেও জানান তিনি।

এ সময় পররাষ্ট্রমন্ত্রী হাছান মাহমুদ জানান, ৬টি ভোগ্যপণ্যের জন্য বিশেষ কোটা নির্ধারণের বিষয়ে ভারতের সাথে আলোচনা করেছেন তিনি। যাতে এসব পণ্য যখন প্রয়োজন পড়বে তখনই বাংলাদেশ পায়। এছাড়া, ৫০ হাজার মেট্রিক টন পেঁয়াজ এবং একলাখ মেট্রিক টন চিনি আমদানির বিষয়ে দুইদেশ আলোচনা করেছে বলেও নিশ্চিত করেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

কালের চিঠি / আলিফ

Tag :

সীমান্তে অপ্রাণঘাতী অস্ত্র ব্যবহারের বিষয়ে ভারতের সাথে আলোচনা হয়েছে : পররাষ্ট্রমন্ত্রী

Update Time : ০৯:১২:৪১ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

সীমান্ত হত্যা বন্ধে অপ্রাণঘাতী অস্ত্র ব্যবহারের বিষয়ে ভারতের সাথে আলোচনা হয়েছে বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। বলেন, ভারতের নিরাপত্তা উপদেষ্টা ও দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সাথে নিরাপত্তা সহযোগিতা নিয়েও আলোচনা হয়েছে। সীমান্ত হত্যা বন্ধের বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা করেছেন তিনি।

সোমবার (১২ ফেব্রুয়ারি) দিল্লি সফর নিয়ে এক ব্রিফিংয়ে এ তথ্য জানান পররাষ্ট্রমন্ত্রী। তিনি জানান, মিয়ানমারের নিরাপত্তা বাহিনীর যেসব সদস্য বাংলাদেশে অনুপ্রবেশ করেছে সবাইকে ফেরত পাঠানোর প্রক্রিয়া অব্যাহত আছে।

মন্ত্রী বলেন, মিয়ানমারের অভ্যন্তরীণ সঙ্কটের কারণে আঞ্চলিক অস্থিরতা তৈরি হয়েছে। এ সঙ্কট মোকাবেলায় এবং রোহিঙ্গাদের নিজ দেশে ফেরত পাঠাতে দিল্লির সহযোগিতা চাওয়া হয়েছে। ভারতের আগামী নির্বাচনের পর তিস্তা পানি বণ্টন ইস্যুতে দেশটির সাথে বাংলাদেশের আলোচনা হবে বলেও জানান তিনি।

এ সময় পররাষ্ট্রমন্ত্রী হাছান মাহমুদ জানান, ৬টি ভোগ্যপণ্যের জন্য বিশেষ কোটা নির্ধারণের বিষয়ে ভারতের সাথে আলোচনা করেছেন তিনি। যাতে এসব পণ্য যখন প্রয়োজন পড়বে তখনই বাংলাদেশ পায়। এছাড়া, ৫০ হাজার মেট্রিক টন পেঁয়াজ এবং একলাখ মেট্রিক টন চিনি আমদানির বিষয়ে দুইদেশ আলোচনা করেছে বলেও নিশ্চিত করেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

কালের চিঠি / আলিফ