রবিবার, ২৬ মে ২০২৪, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সীমান্তের উত্তেজনা নিয়ে সরকারের বক্তব্য স্পষ্ট করা দরকার : জিএম কাদের

 

 

মিয়ানমারের জান্তা এবং বিদ্রোহী আরাকান আর্মির যুদ্ধ এবং তাদের বাংলাদেশের অভ্যন্তরে প্রবেশের কারণে ঘুমধুম সীমান্তে জনগণের মধ্যে যে উদ্বেগ তৈরি হয়েছে সে বিষয়ে কী করছে সরকার, সেটি জনগনের কাছে পরিষ্কার করা দরকার বলে মন্তব্য করেছেন বিরোধী দলীয় নেতা ও জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান গোলাম মোহাম্মদ কাদের এমপি।

 

শনিবার (১০ ফেব্রুয়ারি) সন্ধা ৭ টায় রংপুর মহানগরীর সেন্ট্রাল রোডস্থ দলীয় কার্যালয়ে জেলা জাতীয় পার্টির যৌথসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন। এসময় কো-চেয়ারম্যান মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা, ভাইস চেয়ারম্যান এসএম ইয়াসির, সাংগঠনিক সম্পাদক হাজি আব্দুর রাজ্জাক, সাংস্কৃতিক সম্পাদক লেবু, যুগ্ম সাংগঠনিক সম্পাদক শাফিউল ইসলাম, নির্বাহী সদস্য নুরে আলম যাদু, লোকমান হোসেন, জাহিদুল ইসলাম, হাসানুজ্জামান নাজিমসহ কেন্দ্রীয় ও স্থানীয় নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

 

 

জিএম কাদের বলেন, যেহেতু তারা (মিয়ানমারের জান্তা ও আরাকান আর্মি) এখন আমাদের মধ্যে ফিজিক্যালি ঢুকে পড়ছে, সেকারণে সরকারের একটা সিদ্ধান্তের প্রশ্ন আছে। যে এটা কি করা উচিত। ওরা যদি সৈন্য সামন্ত নিয়ে নিয়ে আমাদের সিমান্তে ঢুকে পড়তে চায়, তাহলে তার জন্য আামাদের প্রস্তুতি নিতে হবে। যেটাই হোক, আমরা যেটা মনে করি সরকারের এ বিষয়ে সুস্পস্টভাবে দেশবাসির কাছে বক্তব্য দেয়া উচিৎ। যে কি হতে যাচ্ছে, এবং তারা কি করতে চাচ্ছেন। আমরা এ বিষয়ে সবাই উদ্বিগ্ন। কারণ আমাদের ওখানকার সরকারি বাহিনী আশ্রয় নিচ্ছেন। আমাদের সীমান্তের মানুষ নানাভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। গোলা এসে পড়ছে। কয়েকজন মারা গেছেন। এটাকে আমি বাংলাদেশের জন্য নতুন সমস্যার সূচনা বলে আমি মনে করি।

 

জিএম কাদের বলেন, দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রনে সরকার ব্যর্থ। এ পর্যন্ত সরকার যে কয়েকটা পদক্ষেপ নিয়েছে দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণে, একটিও কার্যকর হয়নি।

 

এর আগে তিনি দিনভর বিভিন্ন এলাকা পরিদর্শন এবং জনগন ও নেতাকর্মীদের সঙ্গে কথা বলেন।

 

কালের চিঠি / আশিকুর।

Tag :

সীমান্তের উত্তেজনা নিয়ে সরকারের বক্তব্য স্পষ্ট করা দরকার : জিএম কাদের

Update Time : ০২:৩২:৩১ অপরাহ্ন, শনিবার, ১০ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

 

 

মিয়ানমারের জান্তা এবং বিদ্রোহী আরাকান আর্মির যুদ্ধ এবং তাদের বাংলাদেশের অভ্যন্তরে প্রবেশের কারণে ঘুমধুম সীমান্তে জনগণের মধ্যে যে উদ্বেগ তৈরি হয়েছে সে বিষয়ে কী করছে সরকার, সেটি জনগনের কাছে পরিষ্কার করা দরকার বলে মন্তব্য করেছেন বিরোধী দলীয় নেতা ও জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান গোলাম মোহাম্মদ কাদের এমপি।

 

শনিবার (১০ ফেব্রুয়ারি) সন্ধা ৭ টায় রংপুর মহানগরীর সেন্ট্রাল রোডস্থ দলীয় কার্যালয়ে জেলা জাতীয় পার্টির যৌথসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন। এসময় কো-চেয়ারম্যান মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা, ভাইস চেয়ারম্যান এসএম ইয়াসির, সাংগঠনিক সম্পাদক হাজি আব্দুর রাজ্জাক, সাংস্কৃতিক সম্পাদক লেবু, যুগ্ম সাংগঠনিক সম্পাদক শাফিউল ইসলাম, নির্বাহী সদস্য নুরে আলম যাদু, লোকমান হোসেন, জাহিদুল ইসলাম, হাসানুজ্জামান নাজিমসহ কেন্দ্রীয় ও স্থানীয় নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

 

 

জিএম কাদের বলেন, যেহেতু তারা (মিয়ানমারের জান্তা ও আরাকান আর্মি) এখন আমাদের মধ্যে ফিজিক্যালি ঢুকে পড়ছে, সেকারণে সরকারের একটা সিদ্ধান্তের প্রশ্ন আছে। যে এটা কি করা উচিত। ওরা যদি সৈন্য সামন্ত নিয়ে নিয়ে আমাদের সিমান্তে ঢুকে পড়তে চায়, তাহলে তার জন্য আামাদের প্রস্তুতি নিতে হবে। যেটাই হোক, আমরা যেটা মনে করি সরকারের এ বিষয়ে সুস্পস্টভাবে দেশবাসির কাছে বক্তব্য দেয়া উচিৎ। যে কি হতে যাচ্ছে, এবং তারা কি করতে চাচ্ছেন। আমরা এ বিষয়ে সবাই উদ্বিগ্ন। কারণ আমাদের ওখানকার সরকারি বাহিনী আশ্রয় নিচ্ছেন। আমাদের সীমান্তের মানুষ নানাভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। গোলা এসে পড়ছে। কয়েকজন মারা গেছেন। এটাকে আমি বাংলাদেশের জন্য নতুন সমস্যার সূচনা বলে আমি মনে করি।

 

জিএম কাদের বলেন, দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রনে সরকার ব্যর্থ। এ পর্যন্ত সরকার যে কয়েকটা পদক্ষেপ নিয়েছে দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণে, একটিও কার্যকর হয়নি।

 

এর আগে তিনি দিনভর বিভিন্ন এলাকা পরিদর্শন এবং জনগন ও নেতাকর্মীদের সঙ্গে কথা বলেন।

 

কালের চিঠি / আশিকুর।