রবিবার, ২১ জুলাই ২০২৪, ৬ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

আত্মরক্ষার্থে মিয়ানমারের সীমান্তরক্ষীরা বাংলাদেশে ঢুকেছে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

 

যুদ্ধের জন্য নয়, মিয়ানমারের সীমান্তরক্ষীরা আত্মরক্ষার্থে বাংলাদেশে ঢুকেছে। এমন তথ্য জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল।

 

তিনি বলেন, তারা অস্ত্র হাতে ঢুকেছিল। তারা আত্মরক্ষার্থে এখানে ঢুকেছে। এটি হতেই পারে। মুক্তিযুদ্ধের সময় আমরা যখন ভারতে ঢুকে পড়েছিলাম, মনে আছে না? আমরা একজন না, কোটি মানুষ গিয়েছিলাম। সেভাবে মিয়ানমারের সীমান্ত পুলিশ আত্মরক্ষার্থে বাংলাদেশে ঢুকেছে, যুদ্ধের জন্য নয়।

 

 

রোববার (৪ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে সচিবালয়ে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এ কথা জানান।

 

আপনি বলেছেন, কাউকে অনুপ্রবেশ করতে দেওয়া হবে না। যদি এভাবে আত্মরক্ষার্থে তারা ঢুকে থাকে, তাহলে ঢুকতে দেবেন কি না, সাংবাদিকরা জানতে চাইলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, সীমান্তের কাছে বর্ডার পুলিশ যারা, তারা আত্মরক্ষার্থে কেউ বাংলাদেশে ঢুকে থাকলে আমাদের করণীয় কিছু থাকে না। তাদের আবার ফেরত দিতে হবে। আমরা তাদের আটক রেখেছি, তাদের ফেরত পাঠাব।

 

রোহিঙ্গাদের আর প্রবেশ করতে দেওয়া হবে কি না- জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমাদের সিদ্ধান্ত একটিই, সীমান্তে এখন যুদ্ধ চলছে, এখানে কারও আসা উচিত হবে না। রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠী যদি মনে করে, তাদের ওখানে যুদ্ধ হচ্ছে, তারা অন্য কোথাও যাবে, এ মুহূর্তে আর কাউকে আমরা ঢুকতে দেব না।

 

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, মানবাধিকারের প্রশ্ন এখন আসবে না, কারণ যুদ্ধ চলছে। গোলাগুলি চলছে। এখানে কারও আসা উচিত হবে না। যে-ই আসবে, তাকে আবদ্ধ করে মিয়ানমারে পাঠিয়ে দেব।

 

কালের চিঠি / আশিকুর।

Tag :
Popular Post

কোটা বিরোধী আন্দোলনে ঢাকায় ২ শিক্ষার্থী নিহত

আত্মরক্ষার্থে মিয়ানমারের সীমান্তরক্ষীরা বাংলাদেশে ঢুকেছে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

Update Time : ০২:৪৫:২১ অপরাহ্ন, রবিবার, ৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

 

যুদ্ধের জন্য নয়, মিয়ানমারের সীমান্তরক্ষীরা আত্মরক্ষার্থে বাংলাদেশে ঢুকেছে। এমন তথ্য জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল।

 

তিনি বলেন, তারা অস্ত্র হাতে ঢুকেছিল। তারা আত্মরক্ষার্থে এখানে ঢুকেছে। এটি হতেই পারে। মুক্তিযুদ্ধের সময় আমরা যখন ভারতে ঢুকে পড়েছিলাম, মনে আছে না? আমরা একজন না, কোটি মানুষ গিয়েছিলাম। সেভাবে মিয়ানমারের সীমান্ত পুলিশ আত্মরক্ষার্থে বাংলাদেশে ঢুকেছে, যুদ্ধের জন্য নয়।

 

 

রোববার (৪ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে সচিবালয়ে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এ কথা জানান।

 

আপনি বলেছেন, কাউকে অনুপ্রবেশ করতে দেওয়া হবে না। যদি এভাবে আত্মরক্ষার্থে তারা ঢুকে থাকে, তাহলে ঢুকতে দেবেন কি না, সাংবাদিকরা জানতে চাইলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, সীমান্তের কাছে বর্ডার পুলিশ যারা, তারা আত্মরক্ষার্থে কেউ বাংলাদেশে ঢুকে থাকলে আমাদের করণীয় কিছু থাকে না। তাদের আবার ফেরত দিতে হবে। আমরা তাদের আটক রেখেছি, তাদের ফেরত পাঠাব।

 

রোহিঙ্গাদের আর প্রবেশ করতে দেওয়া হবে কি না- জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমাদের সিদ্ধান্ত একটিই, সীমান্তে এখন যুদ্ধ চলছে, এখানে কারও আসা উচিত হবে না। রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠী যদি মনে করে, তাদের ওখানে যুদ্ধ হচ্ছে, তারা অন্য কোথাও যাবে, এ মুহূর্তে আর কাউকে আমরা ঢুকতে দেব না।

 

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, মানবাধিকারের প্রশ্ন এখন আসবে না, কারণ যুদ্ধ চলছে। গোলাগুলি চলছে। এখানে কারও আসা উচিত হবে না। যে-ই আসবে, তাকে আবদ্ধ করে মিয়ানমারে পাঠিয়ে দেব।

 

কালের চিঠি / আশিকুর।