রবিবার, ১৬ জুন ২০২৪, ১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

রংপুর রাইডার্সকে হারিয়ে আসরে টানা তিন জয়ে খুলনার

 

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) দশম আসরে দারুণ শুরু পয়েছে খুলনা টাইগার্স। ঢাকা পর্বে টানা দুই জয়ের পর সিলেটে দাসুন শানাকা ও মোহাম্মদ নওয়াজের অলরাউন্ডারিং পারফরম্যান্সে রংপুর রাইডার্সকে ২৮ রানে হারিয়ে টানা তিন জয় তুলে নিয়েছে খুলনা।

খুলনার দেওয়া ১৬১ রানের লক্ষমাত্রা সামনে রেখে ওপেনিংয়ে নামেন বাবর আজম ও রনি তালুকদার। চ্যালেঞ্জিং লক্ষে খেলতে নেমে দলীয় ৬ রানেই বাবর আজমের উইকেট হারায় রংপুর। শুরুর চাপ কাটিয়ে উঠতে উঠতে পারেনি রংপুরের ব্যাটাররা। নাহিদুল ইসলাম, নাসুম আহমেদ, মোহাম্মদ নওয়াজদের অসাধারণ বোলিংয়ে পাওয়ার প্লে তে মাত্র ২১ রান সংগ্রহ করে রংপুর।

 

সেখান থেকে নওয়াজের দারুণ বোলিং এবং দাসুন শানাকার কারিশমায় দলীয় ৭৫ রানেই ৬ উইকেট হারায় রংপুর। সেখান থেকে দলীয় ৮০ রানের মাথায় ব্যক্তিগত ২ রানে সাকিব আল হাসান আউট হলে ম্যাচ থেকে ছিটকে যায় রংপুর। এক প্রান্ত আগলে রেখে দারুণ ব্যাটিংয়ে মোহাম্মদ নবি অর্ধ-শতক তুলে নিলেও ১৩২ রানেই শেষ হয় রংপুরের ইনিংস। ২৮ রানের জয়ের ম্যাচে একাই ৪ উইকেট শিকার করেন শানাকা। দুইটি উইকেট শিকার করেন নওয়াজ।

 

কালের চিঠি/ ফাহিম

Tag :

রংপুর রাইডার্সকে হারিয়ে আসরে টানা তিন জয়ে খুলনার

Update Time : ০২:১০:৫৭ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৬ জানুয়ারী ২০২৪

 

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) দশম আসরে দারুণ শুরু পয়েছে খুলনা টাইগার্স। ঢাকা পর্বে টানা দুই জয়ের পর সিলেটে দাসুন শানাকা ও মোহাম্মদ নওয়াজের অলরাউন্ডারিং পারফরম্যান্সে রংপুর রাইডার্সকে ২৮ রানে হারিয়ে টানা তিন জয় তুলে নিয়েছে খুলনা।

খুলনার দেওয়া ১৬১ রানের লক্ষমাত্রা সামনে রেখে ওপেনিংয়ে নামেন বাবর আজম ও রনি তালুকদার। চ্যালেঞ্জিং লক্ষে খেলতে নেমে দলীয় ৬ রানেই বাবর আজমের উইকেট হারায় রংপুর। শুরুর চাপ কাটিয়ে উঠতে উঠতে পারেনি রংপুরের ব্যাটাররা। নাহিদুল ইসলাম, নাসুম আহমেদ, মোহাম্মদ নওয়াজদের অসাধারণ বোলিংয়ে পাওয়ার প্লে তে মাত্র ২১ রান সংগ্রহ করে রংপুর।

 

সেখান থেকে নওয়াজের দারুণ বোলিং এবং দাসুন শানাকার কারিশমায় দলীয় ৭৫ রানেই ৬ উইকেট হারায় রংপুর। সেখান থেকে দলীয় ৮০ রানের মাথায় ব্যক্তিগত ২ রানে সাকিব আল হাসান আউট হলে ম্যাচ থেকে ছিটকে যায় রংপুর। এক প্রান্ত আগলে রেখে দারুণ ব্যাটিংয়ে মোহাম্মদ নবি অর্ধ-শতক তুলে নিলেও ১৩২ রানেই শেষ হয় রংপুরের ইনিংস। ২৮ রানের জয়ের ম্যাচে একাই ৪ উইকেট শিকার করেন শানাকা। দুইটি উইকেট শিকার করেন নওয়াজ।

 

কালের চিঠি/ ফাহিম