মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০২৪, ১ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সংবাদ সম্মেলন করে জাতীয় পার্টির ৬৬৮ নেতাকর্মীর পদত্যাগ

 

জাতীয় পার্টির বর্তমান চেয়ারম্যান জি এম কাদের ও মহাসচিব মুজিবুল হক চুন্নুর স্বেচ্ছাচারিতার প্রতিবাদে গণপদত্যাগ করেছেন দলটির বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীরা।

 

বৃহস্পতিবার (২৫ জানুয়ারি) প্রেস ক্লাবের অডিটোরিয়ামে গণপদত্যাগ উপলক্ষ্যে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব জানান দলত্যাগী নেতাকর্মীরা।

 

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় পার্টির ভাইস চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর আলম, সাবেক প্রেসিডিয়াম সদস্য সুনীল শুভ রায়, ঢাকা মহানগর উত্তরের আহ্বা‌য়ক ও সাবেক প্রেসিডিয়াম সদস্য শফিকুল ইসলাম সেন্টুসহ অন্যান্যরা।

 

বক্তব্যে প্রেসিডিয়াম সদস্য শফিকুল ইসলাম সেন্টু বলেন, জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান ও মহাসচিব একটি ফাঁদের মধ্যে পড়ে গেছেন। তার আশেপাশে এখন যারা আছেন, তারা হলো ঘুঘুর ফাঁদ, এই ফাঁদ থেকে তিনি (জিএম কাদের) বেরুতে পারবেন না। এই ফাঁদের সুতা মহাসচিবের হাতে, আর সে সুতায় ঘুরছেন জি এম কাদের।

 

তিনি বলেন, এই দলটাকে ধ্বংস করে ফেলা হয়েছে। আমরা জি এম কাদেরকে বহুবার বলেছি, আপনি এসব বেড়াজাল থেকে বেরিয়ে আসেন। তিনি বলেছেন, আমি পারি না। তিনি সারা দেশের কোনো খোঁজ খবর রাখেন না, সকালে অফিসে এসে রাতে বেরিয়ে যান। একটা কর্মসূচি, সমাবেশ, মহাসমাবেশ কোনোকিছুই তিনি করেন নাই। আমরা দলের মহাসচিবের পদত্যাগ চাই। তারা যোগ্য না, তারা সরে দাঁড়াক। এই দল হচ্ছে এরশাদের, আমরা তার পতাকাতলে আছি। আমরা জিএম কাদের নেতৃত্বে আর দল করব না। হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের আদর্শ নিয়েই আমরা সামনে আগাব।

 

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, এখন পর্যন্ত ৯টি থানার ৬৬৮ জন গণপদত্যাগ করেছেন। থানাগুলো হলো- রূপনগর, বাড্ডা, দারুস সালাম, মোহাম্মদপুর, আদাবর, হাতিরঝিল, মিরপুর, পল্লবী ও শেরেবাংলা নগর।

Tag :
Popular Post

বেরোবিতে কোঠা ইস্যুতে আন্দোলনকারীদের ওপর ছাত্রলীগের হামলা

সংবাদ সম্মেলন করে জাতীয় পার্টির ৬৬৮ নেতাকর্মীর পদত্যাগ

Update Time : ০৬:০৫:৩০ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৫ জানুয়ারী ২০২৪

 

জাতীয় পার্টির বর্তমান চেয়ারম্যান জি এম কাদের ও মহাসচিব মুজিবুল হক চুন্নুর স্বেচ্ছাচারিতার প্রতিবাদে গণপদত্যাগ করেছেন দলটির বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীরা।

 

বৃহস্পতিবার (২৫ জানুয়ারি) প্রেস ক্লাবের অডিটোরিয়ামে গণপদত্যাগ উপলক্ষ্যে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব জানান দলত্যাগী নেতাকর্মীরা।

 

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় পার্টির ভাইস চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর আলম, সাবেক প্রেসিডিয়াম সদস্য সুনীল শুভ রায়, ঢাকা মহানগর উত্তরের আহ্বা‌য়ক ও সাবেক প্রেসিডিয়াম সদস্য শফিকুল ইসলাম সেন্টুসহ অন্যান্যরা।

 

বক্তব্যে প্রেসিডিয়াম সদস্য শফিকুল ইসলাম সেন্টু বলেন, জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান ও মহাসচিব একটি ফাঁদের মধ্যে পড়ে গেছেন। তার আশেপাশে এখন যারা আছেন, তারা হলো ঘুঘুর ফাঁদ, এই ফাঁদ থেকে তিনি (জিএম কাদের) বেরুতে পারবেন না। এই ফাঁদের সুতা মহাসচিবের হাতে, আর সে সুতায় ঘুরছেন জি এম কাদের।

 

তিনি বলেন, এই দলটাকে ধ্বংস করে ফেলা হয়েছে। আমরা জি এম কাদেরকে বহুবার বলেছি, আপনি এসব বেড়াজাল থেকে বেরিয়ে আসেন। তিনি বলেছেন, আমি পারি না। তিনি সারা দেশের কোনো খোঁজ খবর রাখেন না, সকালে অফিসে এসে রাতে বেরিয়ে যান। একটা কর্মসূচি, সমাবেশ, মহাসমাবেশ কোনোকিছুই তিনি করেন নাই। আমরা দলের মহাসচিবের পদত্যাগ চাই। তারা যোগ্য না, তারা সরে দাঁড়াক। এই দল হচ্ছে এরশাদের, আমরা তার পতাকাতলে আছি। আমরা জিএম কাদের নেতৃত্বে আর দল করব না। হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের আদর্শ নিয়েই আমরা সামনে আগাব।

 

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, এখন পর্যন্ত ৯টি থানার ৬৬৮ জন গণপদত্যাগ করেছেন। থানাগুলো হলো- রূপনগর, বাড্ডা, দারুস সালাম, মোহাম্মদপুর, আদাবর, হাতিরঝিল, মিরপুর, পল্লবী ও শেরেবাংলা নগর।